আজ রবিবার , ৭ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

হালুয়াঘাটের মামুন বাফুফে’র ক্যাপ্টেন নির্বাচিত হওয়ায় সংবর্ধনা ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে পৃথক স্থানে ট্রেনে কাটা পড়ে ২জন নিহত এমপি’র পক্ষে হালুয়াঘাট ধান্য ব্যবসায়ী সমিতির কম্বল বিতরণ ধোবাউড়ায় ট্রাক-হোন্ডা সংঘর্ষে নিহত-২, চালক ও হেলপার আটক বাউফলে ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি হালুয়াঘাটে ঝরে পড়া শিশুরা পাবে শিক্ষার সুযোগ। আসছে শিক্ষক নিয়োগও হালুয়াঘাটে স্বামীর আত্নহত্যা দেখে স্ত্রীও বিষ খায়! দুজনেরই মৃত্যু হালুয়াঘাটে স্বামী-স্ত্রীর আত্নহত্যা রাহেলা হযরত মডেল স্কুলে প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত ত্রিশাল অনলাইন প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধাঞ্জলি ভাষা শহীদদের প্রতি কংশ টিভির পরিবার ও গণমাধ্যম কর্মীদের শ্রদ্ধাঞ্জলী ফুটবল ফাইনাল টুর্নামেন্টে বিজয়ী মধুপুর একাদশ স্পোটিং ক্লাব ২৮ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়লো ময়মনসিংহ জেলার শ্রেষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার ত্রিশালের মোস্তাফিজুর রহমান হালুয়াঘাটে পিকনিকের বাস উল্টে আহত-৮

বাসায় কোচিং করানোর অপরাধে প্রধান শিক্ষককে জরিমানা

প্রকাশিতঃ ৩:২৬ অপরাহ্ণ | জুন ১০, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২১৫ বার

ডেস্ক রিপোর্টঃ বাসায় কোচিং করানোর কারণে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের বাইমহাটী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হোসনে আরাকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার (১০ জুন) সকালে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. জুবায়ের হোসেনের ভ্রাম্যমাণ আদালত এ জরিমানা করেন।
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সহকারী কমিশনার প্রধান শিক্ষক হোসনে আরার বাসায় হাজির হন। সেখানে তিনি দেখেন, একটি কক্ষে গাদাগাদি করে শিক্ষার্থীদের বসিয়ে কোচিং করানো হচ্ছে। শিক্ষক ও অধিকাংশ শিক্ষার্থীর মুখে মাস্ক ছিল না। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত ওই শিক্ষকের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করেন।
এলাকাবাসী ও ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, সরকার করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, কোচিং সেন্টার বন্ধ রেখেছে। কিন্তু নিয়ম না মেনে তিনি দীর্ঘদিন ধরে নিজের বাসায় তাঁর বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কোচিং করাচ্ছিলেন। বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের হোসনে আরা নিজের বাসাতেই কোচিং করান। তবে চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী বেশি। এর মধ্যে পঞ্চম শ্রেণির সব শিক্ষার্থীর তাঁর কাছে বাধ্যতামূলকভাবে কোচিং করতে হয়। এ জন্য তিনি একেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে প্রতি মাসে ২ হাজার টাকা করে নেন। পঞ্চম শ্রেণিতে ৭১ শিক্ষার্থী আছে বলে বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে।

প্রধান শিক্ষক হোসনে আরা বলেন, ‘ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে আমি বিল্ডিং করেছি। বেতন যা পাই, ঋণের টাকা পরিশোধ করতেই চলে যায়। এ জন্য কয়েকজনকে প্রাইভেট পড়াচ্ছি।’

বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা পর্ষদের সভাপতি লুৎফর রহমান বলেন, ‘প্রধান শিক্ষক হোসনে আরাকে এই পরিস্থিতিতে কোচিং না করানোর অনুরোধ করেছিলাম। জরিমানা করার বিষয়টি আমাদের জন্য দুর্নামের।’

মো. জুবায়ের হোসেন বলেন, ‘সরকারি নিয়ম না মেনে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করে প্রধান শিক্ষক শিক্ষার্থীদের পড়াচ্ছিলেন। এ জন্য তাঁকে জরিমানা করা হয়েছে। একই সঙ্গে কোচিং করানো বন্ধ করতে বলা হয়েছে।

Shares