আজ সোমবার , ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ইকোপার্কে বেড়াতে গিয়ে খালু কর্তৃক ভাগ্নী ধর্ষণের শিকার শ্রীবর্দীতে পানিতে ডুবে প্রতিবন্ধী শিশুর মৃত্যু মেয়ের খুনের বিচার চাইলেন বাবা বাউফলে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নালিতাবাড়ীতে বন্য হাতির আক্রমণে কৃষকের মৃত্যু দাশপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি আজম, সম্পাদক মজিবর নালিতাবাড়ীর নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর নিখোঁজ শিক্ষার্থী উদ্ধার নালিতাবাড়ীতে গণহত্যা দিবস পালিত দলিল প্রতি অতিরিক্ত ফি ১০ হাজার টাকা। প্রতিবাদে ধোবাউড়ায় সংবাদ সম্মেলন রামচন্দ্রকুড়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচারণায় বাঁধা: সংঘর্ষ, গাড়ি ভাংচুর, আহত হালুয়াঘাটে গাছের সাথে শত্রুতা হালুয়াঘাটে আরও ২৯ জন ভূমিহীনকে জমিসহ ঘর প্রদান ময়মনসিংহে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামী আটক। প্রধান মন্ত্রীর উপহার চান ভাগ্য বিড়ম্বিত বিধবা রেনুবালা! ২৫ বৎসরেও হয়নি বিলকিছের প্রতিবন্ধী ভাতা

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে খুব কম দেশই ‘এ-গ্রেড’ পাবে- বিল গেটস

প্রকাশিতঃ ৮:৫৯ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১২, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৮১ বার

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে

ডেস্ক রিপোর্টঃ করোনা ভাইরাস মহামারির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য খুব কম সংখ্যক দেশই ‘এ-গ্রেড’ পাবে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ে বিবিসি ব্রেকফাস্ট অনুষ্ঠানে এ কথা বলেছেন মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস। এক্সক্লুসিভ ওই সাক্ষাতকারে তিনি বলেছেন, এই মহামারির প্রেক্ষিতে বিনিয়োগে ঘাটতি ছিল। প্রস্তুতি ছিল না। এ কারণে আমরা এখন বসবাস করছি একটি অরক্ষিত অবস্থায়। বিল গেটস বলেন, আমি এবং অন্য সূত্রগুলো বেশ কিছু সময় ধরে যা বলে আসছি তা হলো সারাবিশ্ব এ যাবতকালে যত কঠিন অবস্থার মুখোমুখি হয়েছে তার মধ্যে এবার ভয়াবহ মন্দার মুখোমুখি হবে বিশ্ব। নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিকেলের এক আর্টিকেল অনুযায়ী বিল গেটস ওই সাক্ষাতকারে বলেন, আমাদেরকে পিছন ফিরে তাকাতে হবে। দেখতে হবে আমরা এ খাতে অনেক বিনিয়োগ করেছি কিনা।
যাতে আমরা দ্রুত রোগ শনাক্ত করতে, ওষুধ বাজারে আনতে এবং টীকা উদ্ভাবন করতে পারি। কিন্তু আমরা উচিত বিনিয়োগ করিনি। আমার লক্ষ্য ছিল এটা করা। আমরা সিইপিআই স্থাপন করেছি, যা কিছু টীকার প্লাটফরম তৈরি করেছে। আমরা যা করতে পেরেছি তা শতকরা ৫ ভাগের বেশি নয়। এর মধ্যে এই ভাইরাস কয়েক মাসের মধ্যে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। এ অবস্থায় প্রশ্ন রেখে বিল গেটস বলেন, পরীক্ষা ব্যবস্থা কি প্রস্তুত ছিল? কোনো দেশ কি তার আইসিইউ এবং ভেন্টিলেশন বাড়ানো কথা ভেবেছিল? এসব নিয়ে কথা বলার জন্য সময় থাকবে। খুব কম সংখ্যক দু’একটি দেশ এক্ষেত্রে এ-গ্রেড পাবে। আমরা যে অবস্থায় আছি, এমন অবস্থার চর্চা আমাদের নেই। স্বাস্থ্য ও অর্থনৈতিক অবস্থারও একই দশা। আমরা আমাদেরকে একটি অরক্ষিত অবস্থায় দেখতে পাচ্ছি।

Shares