আজ বুধবার , ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দাবীতে আজ মানববন্ধন হালুয়াঘাটের শিমুলকুচি গ্রামে কামাল’র কুলখানি অনুষ্ঠিত হালুয়াঘাটে বৃদ্ধকে নির্যাতনের ঘটনায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ হালুয়াঘাটের ট্রলি উল্টে দুই বন্দর শ্রমিকের মৃত্যু, আহত ৬ মাছ ধরার জালে ঢিল ছোড়ায় খুন হন শিশু শিক্ষার্থী সুমন হালুয়াঘাটে ১ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে খুন এমপি’র কাছে নালিশ করায় বৃদ্ধকে পিটিয়েছে চেয়ারম্যান হালুয়াঘাটে প্রতারিত শত শত কৃষক বাউফলে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন

দুই জমজ বোনের ৬ মাসের জেল

প্রকাশিতঃ ১:০৪ অপরাহ্ণ | জুন ২০, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৪০ বার

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বৃটিশ দুই জমজ বোন এলিনা ও সাশা পার্কার (৩৭)। তাদের পূর্ব পরিচয় পর্নো তারকা ছিলেন তারা । পরে দুবাইয়ে গিয়ে একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আইনী পেশা শুরু করেন। কিন্তু সেখানে পুলিশের এম্বুলেন্সে মদ্যপ অবস্থায় হামলে পড়ার অভিযোগে তাদেরকে মঙ্গলবার ৬ মাসের জেল দিয়েছে দুবাই ক্রিমিনাল কোর্ট। তবে অভিযুক্ত ওই দু’বোন এখন জামিনে রয়েছেন। শাস্তির বিরুদ্ধে আপিল করবেন কিনা সে সিদ্ধান্ত নিতে তাদেরকে সময় দেয়া হয়েছে এক মাস।

গত বছর আগস্টে দুবাইয়ের একটি বিলাসবহুল হোটেলের বাইরে তারা পুলিশের গাড়িতে মদ্যপ অবস্থায় হামলে পড়েন। এ জন্য তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। তখন তারা জোর দিয়ে নিজেদের নির্দোষ দাবি করেছিলেন। তবে তাদের বিরুদ্ধে বিচারে বিচারক শাইখা হামাদ বলেছেন, ওই দুই নারীর বিরুদ্ধে দৃঢ় ও নিরেট প্রমাণ পাওয়া গেছে। এ জন্য তাদেরকে তিনি ৬ মাসের জেল দেন। বিচারক তার নির্দেশে বলেন, জেল ভোগের পর মুক্তি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাদেরকে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে বের করে দিতে হবে। মঙ্গলবারের ওই বিচারে আদালতে উপস্থিত ছিলেন না ওই এলিনা ও সাশা। তাদের অনুপস্থিতিতেই বিচার কার্যক্রম শুরু হয়। সেকানে বিচারক বিস্তারিত জানতে চান। তাতে বলা হয়, ওই দুই বোন দুবাইয়ে আল সাফার অ্যান্ড পার্টনারস নামের আইনী প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন। এর আগে তারা সফট পর্নো ছবিতে অভিনয় করেছেন লন্ডনে থাকার সময়ে।  এলিনা ও সাশার জন্ম বেলারুমে। তারা আট বছর আগে বৃটিশ নাগরিকত্ব পান। বৃটিশ টেলিভিশনের পরিচালক মাইলস পার্কার একবার রাশিয়া গিয়েছিলেন ছবি নির্মাণে। সেখানে তার সঙ্গে সাক্ষাত হয তাদের। এর ধারাবাহিকতায় এলিনা ও সাশা বৃটেনে যান। উদ্দেশ্য পড়াশোনা করা। কিন্তু ২০০১ সালের জানুয়ারিতে পরিচালক মাইলসের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন এলিনা। পরে তার বোন সাশা নাম পাল্টে ফেলেন। এলিনা ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন, ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্টমিনস্টারে ২০০২ সাল থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত আইন বিষয়ে পড়াশোনা করেন। তারপর দু’বোনে মিলে চলে যান দুবাই।

Shares