আজ শনিবার , ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

হালুয়াঘাটে রাস্তার দাবিতে মানববন্ধন মর্ডান স্পোটিং ক্লাবের দোয়া ও ইফতার জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা কায়েসের ঈদ উপহার সচেতনতা মুলক স্টিকার ও মাস্ক বিতরণ করলো জনপ্রিয় সেচ্ছাসেবী সংঘঠন ত্রিশাল হেল্পলাইন আজ শফিকুল ইসলাম ভাইয়ের মৃত্যুবার্ষিকী খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় ত্রিশাল ছাত্রদলের পক্ষ থেকে ইফতার বিতরণ হালুয়াঘাটে কৃষকের ধান কাটলেন এমপি হালুয়াঘাটে কর্মহীন মানুষের মাঝে রুবেলে’র খাদ্য সামগ্রী বিতরণ! করোনাঃ মৃত্যুর মিছিলে ১৫৪ চিকিৎসক বাউফলে ডায়রিয়া আক্রান্তদের মাঝে বিনামূল্যে স্যালাইন বিতরণ বাউফলে টাকা চুরি’র ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক যুবককে কুপিয়ে জখম মৃত্যুপুরী ভারত শ্মশানে জায়গা না থাকায় গণচিতা ভারতে লুকানো হচ্ছে কোভিডে মৃতের সংখ্যা কমতে শুরু করেছে মৃত্যু ও শনাক্ত সংখ্যা বাউফলে ভ্রাম্যমান দুধ, ডিম ও মাংস বিক্রয়ে ব্যাপক সাড়া

দুই জমজ বোনের ৬ মাসের জেল

প্রকাশিতঃ ১:০৪ অপরাহ্ণ | জুন ২০, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২১০ বার

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ বৃটিশ দুই জমজ বোন এলিনা ও সাশা পার্কার (৩৭)। তাদের পূর্ব পরিচয় পর্নো তারকা ছিলেন তারা । পরে দুবাইয়ে গিয়ে একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আইনী পেশা শুরু করেন। কিন্তু সেখানে পুলিশের এম্বুলেন্সে মদ্যপ অবস্থায় হামলে পড়ার অভিযোগে তাদেরকে মঙ্গলবার ৬ মাসের জেল দিয়েছে দুবাই ক্রিমিনাল কোর্ট। তবে অভিযুক্ত ওই দু’বোন এখন জামিনে রয়েছেন। শাস্তির বিরুদ্ধে আপিল করবেন কিনা সে সিদ্ধান্ত নিতে তাদেরকে সময় দেয়া হয়েছে এক মাস।

গত বছর আগস্টে দুবাইয়ের একটি বিলাসবহুল হোটেলের বাইরে তারা পুলিশের গাড়িতে মদ্যপ অবস্থায় হামলে পড়েন। এ জন্য তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। তখন তারা জোর দিয়ে নিজেদের নির্দোষ দাবি করেছিলেন। তবে তাদের বিরুদ্ধে বিচারে বিচারক শাইখা হামাদ বলেছেন, ওই দুই নারীর বিরুদ্ধে দৃঢ় ও নিরেট প্রমাণ পাওয়া গেছে। এ জন্য তাদেরকে তিনি ৬ মাসের জেল দেন। বিচারক তার নির্দেশে বলেন, জেল ভোগের পর মুক্তি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাদেরকে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে বের করে দিতে হবে। মঙ্গলবারের ওই বিচারে আদালতে উপস্থিত ছিলেন না ওই এলিনা ও সাশা। তাদের অনুপস্থিতিতেই বিচার কার্যক্রম শুরু হয়। সেকানে বিচারক বিস্তারিত জানতে চান। তাতে বলা হয়, ওই দুই বোন দুবাইয়ে আল সাফার অ্যান্ড পার্টনারস নামের আইনী প্রতিষ্ঠানে কাজ করেন। এর আগে তারা সফট পর্নো ছবিতে অভিনয় করেছেন লন্ডনে থাকার সময়ে।  এলিনা ও সাশার জন্ম বেলারুমে। তারা আট বছর আগে বৃটিশ নাগরিকত্ব পান। বৃটিশ টেলিভিশনের পরিচালক মাইলস পার্কার একবার রাশিয়া গিয়েছিলেন ছবি নির্মাণে। সেখানে তার সঙ্গে সাক্ষাত হয তাদের। এর ধারাবাহিকতায় এলিনা ও সাশা বৃটেনে যান। উদ্দেশ্য পড়াশোনা করা। কিন্তু ২০০১ সালের জানুয়ারিতে পরিচালক মাইলসের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন এলিনা। পরে তার বোন সাশা নাম পাল্টে ফেলেন। এলিনা ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন, ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্টমিনস্টারে ২০০২ সাল থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত আইন বিষয়ে পড়াশোনা করেন। তারপর দু’বোনে মিলে চলে যান দুবাই।

Shares