আজ শনিবার , ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাচনে মোশারফ, ফরিদ, আশুরা বিজয়ী গরীবের আশার বাতিঘর হাজী মোশারফ হালুয়াঘাটে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি পুঁততে গিয়ে মৃত্যু-১, আহত-১ জাতীয় ভাবে”স্বপ্নজয়ী মা” নির্বাচিত হলেন জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জের অবিরণ নেছা ৬১০৮ ভোটের ব্যবধানে হামিদ বিজয়ী। শেখ রাসেল ও মনোয়ারা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হালুয়াঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনঃ প্রবীণে প্রবীণে লড়াই এম্বুলেন্সে করে মাদক পাচারকালে ২৪০ বোতল ভারতীয় মদসহ একজন আটক এমপি মাহমুদুল হক সায়েমকে সি.আই.পি শামিমের সংবর্ধনা হালুয়াঘাটে ঈদে বাড়ি ফেরার পথে লাশ হল স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালুয়াঘাটের স্থলবন্দর দিয়ে ২৭টি পণ্যের আমদানী রপ্তানীর পরিকল্পনা-এমপি সায়েম হালুয়াঘাটে ২৭ হাজার দুস্থ অসহায় পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ১৩ বছর পর পদত্যাগ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হালুয়াঘাটে ফেইসবুক গ্রুপে কোরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা। পুরস্কার বিতরণ ‘কৃষ্ণনগরের কৃষ্ণকেশীর ‘বেহিসেবি রঙ.. হিমাদ্রিশেখর সরকার হালুয়াঘাট থেকে ফুলপুর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা নির্মাণসহ সড়ানো হচ্ছে অস্থায়ী বাস কাউন্টার

মাতামুহুরী নদীতে খেলতে গিয়ে প্রাণ গেলো পাঁচ ছাত্রের

প্রকাশিতঃ ২:৫২ অপরাহ্ণ | জুলাই ১৫, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩৫৮ বার

কক্সবাজার সংবাদদাতাঃ মাতামুহুরী নদী হঠাৎ করে কেড়ে নিয়েছে চকরিয়া প্রি ক্যাড়েট গ্রামার স্কুলের ৫ ছাত্রের জীবন। ঘটেছে ৫বন্ধুর সলিল সমাধি। নিভে গেছে কয়েকটি পরিবারের কত স্বপ্ন। পুরো চকরিয়ায় নেমে এসেছে শোকের মাতম। ওই ছাত্রদের উদ্ধার করতে হাজারো মানুষ বেলা শেষে রাত অবধি নদীর পাড়ে ভীড় জমিয়েছে। ছুটে গিয়েছে প্রশাসন, পুলিশ, দমকাল বাহিনী ও চট্টগ্রাম থেকে এসেছে দক্ষ ডুবুরীর দল। অভিযান চালিয়ে ৩জন ছাত্রের নিথর দেহ উদ্ধার করতে পারলেও ২জন এখনও নিখোঁজ রয়েছে। তাদের বেচে থাকারও কোন সম্ভাবনা নেই বলে ধরে নিয়েছে উদ্ধার কাজে সংশ্লিষ্টরা। ঘটনাটি ঘটেছে, মাতামুহুরী নদীর চকরিয়া অংশে চিরিঙ্গা ব্রিজের কাছে। নিহত ও নিখোঁজ সকলেই চকরিয়া প্রিঃ ক্যাড়েট গ্রামার স্কুলের ছাত্র।
এদিন পরীক্ষা শেষে তারা দল বেধে মাতামুহুরী নদীর চরে ফুটবল খেলতে গিয়েছিল। সেখানে নদীতে একই সাথে একই স্কুলের ৫ ছাত্রের সলিল সমাধি ঘটে। তারা খেলা শেষে বাড়ির ফেরার জন্য নদীতে গোসল করতে নেমেছিল। কিন্ত কে জানত এটিই তাদের শেষ গোসল। কে জানত তাদের মাতামুহুরী নদী না বলে, না জানিয়ে এভাবে গিলে খাবে? শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত চট্টগ্রাম থেকে আসা ডুবুরীর দল উদ্ধার অভিযানে নেমেছে। যে তিন জনের লাশ উদ্ধার হয়েছে, তাদের মধ্যে রয়েছে দুই সহোদর আমিনুল ইসলাম(১৫) ও আফতাব হোসেন মেহেরাব (১২), তারা চিরিঙ্গা আনোয়ার শপিং কমপ্লেক্সের মালিক আনোয়ার হোসেন পুত্র। চিরিঙ্গায় তাদের বাড়ি। আর একজনের নাম ফারহান বিন শওকত(১৫)। এখানে দইজন ১০শ্রেণী ও একজন ৮ম শ্রেণীর ছাত্র। গ্রামার স্কুলের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলামের ছেলে সাঈদ জাওয়াদ আরভি(১৫) এবং ওই স্কুলের শিক্ষিকা জলি ভট্টচার্য এর ছেলে তুর্ণ ভট্টাচার্য(১৫) এখনও নিখোঁজ রয়েছে। তারাও ওই স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্র। হটাৎ করে মাতামুহুরী নদীর এমন নিষ্টুর আচরণ কেউ মেনে নিতে পারছেন না। চলছে পুরো চকরিয়ায় শোকের মাতম।

Shares