আজ বৃহস্পতিবার , ১৮ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

এমপি মাহমুদুল হক সায়েমকে সি.আই.পি শামিমের সংবর্ধনা হালুয়াঘাটে ঈদে বাড়ি ফেরার পথে লাশ হল স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালুয়াঘাটের স্থলবন্দর দিয়ে ২৭টি পণ্যের আমদানী রপ্তানীর পরিকল্পনা-এমপি সায়েম হালুয়াঘাটে ২৭ হাজার দুস্থ অসহায় পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ১৩ বছর পর পদত্যাগ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হালুয়াঘাটে ফেইসবুক গ্রুপে কোরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা। পুরস্কার বিতরণ ‘কৃষ্ণনগরের কৃষ্ণকেশীর ‘বেহিসেবি রঙ.. হিমাদ্রিশেখর সরকার হালুয়াঘাট থেকে ফুলপুর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা নির্মাণসহ সড়ানো হচ্ছে অস্থায়ী বাস কাউন্টার জনগণের অধিকার আদায় না হওয়া পর্যন্ত বিএনপি রাজপথে থাকবে-প্রিন্স ডামি নির্বাচন করে গণতন্ত্রকে আইসিইউতে পাঠিয়েছে আওয়ামী লীগ-প্রিন্স বাজারে পণ্যের অগ্নিমূল্যের তাপ তাদের গায়ে লাগেনা-প্রিন্স নালিতাবাড়ীতে প্রেসক্লাবের নির্বাচন, সভাপতি সোহেল সম্পাদক মনির গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে আন্দোলন অব্যাহত থাকবে-বিএনপি নেতা প্রিন্স হালুয়াঘাটে বিএনপি নেতা প্রিন্স’র লিফলেট বিতরণ ৯৮ দিন কারাভোগের পর নিজ এলাকায় বিএনপি নেতা প্রিন্সকে সংবর্ধনা

শেরপুরে অপহরণ-ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন

প্রকাশিতঃ ৯:১১ অপরাহ্ণ | মে ০৮, ২০২২ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৭৩ বার

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) সংবাদদাতা: কিশোরীকে (১৩) অপহরণের পর ধর্ষণের দায়ে শেরপুরে আবুল হোসেন (২৭) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।একই সঙ্গে অপহরণের দায়ে তাকে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। মামলার শুরু থেকেই আসামি আবুল হোসেন পলাতক রয়েছে।একমাত্র আসামির অনুপস্থিতিতে রোববার (৮ মে) দুপুরের দিকে শেরপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান এ রায় দেন। তবে উভয় সাজা একই সঙ্গে চলবে। দণ্ডপ্রাপ্ত আবুল হোসেন শেরপুর সদর উপজেলার চরশেরপুর ইউনিয়নের যোগিনীবাগ ভিটাকান্দা এলাকার আব্দুল জুব্বারের ছেলে ওই ট্রাইব্যুনালের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অ্যাডভোকেট গোলাম কিবরিয়া বুলু জানান, শেরপুর শহরের মোবারকপুর কইনাপাড়ার মেয়ে ও পার্শ্ববর্তী একটি মাদরাসার শিক্ষার্থী ওই কিশোরীকে ২০১৭ সালের ২১ সেপ্টেম্বর সকালের দিকে অজ্ঞাতনামা সহযোগিদের নিয়ে অপহরণ করেন আবুল হোসেন।ওই ঘটনায় ০২ অক্টোবর আবুল হোসেন, তার বড় ভাই আনোয়ার হোসেন ও বাবা আব্দুল জব্বারকে আসামি করে ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেন ভিকটিমের মা। পরে ভিকটিমকে উদ্ধার করে পুলিশ এবং একই বছরের ১৫ ডিসেম্বর তিনজনের নামেই অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। ২০২০ সালের ০৯ ডিসেম্বর পলাতক প্রধান আসামি আবুল হোসেনের নামে অভিযোগ গঠন করা হয় এবং অপর দুই সহযোগী আসামিকে অভিযোগের দায় থেকে অব্যাহতি দেন ট্রাইব্যুনাল। বিচারিক পর্যায়ে মামলার বাদী, ভিকটিম ও তদন্ত কর্মকর্তাসহ পাঁচজন সাক্ষীর সাক্ষ্য করা পর রোববার এ রায় দিয়েছেন আদালত।

Shares