আজ বুধবার , ১২ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ময়মনসিংহের ত্রিশালে সাংবাদিক এনামুল ফাউন্ডেশনের ইফতার ও দোয়া মাহফিল মা দিবসের শুভেচ্ছা ময়মনসিংহের এিশালে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও দীর্ঘায়ু কামনায় ইফতার হালুয়াঘাটে আরব আলী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৬ শত মানুষ পেল ঈদ উপহার হালুয়াঘাটে রাস্তার দাবিতে মানববন্ধন মর্ডান স্পোটিং ক্লাবের দোয়া ও ইফতার জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা কায়েসের ঈদ উপহার সচেতনতা মুলক স্টিকার ও মাস্ক বিতরণ করলো জনপ্রিয় সেচ্ছাসেবী সংঘঠন ত্রিশাল হেল্পলাইন আজ শফিকুল ইসলাম ভাইয়ের মৃত্যুবার্ষিকী খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় ত্রিশাল ছাত্রদলের পক্ষ থেকে ইফতার বিতরণ হালুয়াঘাটে কৃষকের ধান কাটলেন এমপি হালুয়াঘাটে কর্মহীন মানুষের মাঝে রুবেলে’র খাদ্য সামগ্রী বিতরণ! করোনাঃ মৃত্যুর মিছিলে ১৫৪ চিকিৎসক বাউফলে ডায়রিয়া আক্রান্তদের মাঝে বিনামূল্যে স্যালাইন বিতরণ বাউফলে টাকা চুরি’র ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক যুবককে কুপিয়ে জখম

ঘুমের ইনজেকশন দিয়ে রোগীকে ধর্ষণ

প্রকাশিতঃ ৪:৪৮ অপরাহ্ণ | জুন ১৭, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৯৮ বার

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের গুজরাটে এক নারী রোগীকে ঘুমের ইনজেকশন দিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগে পলাতক এক চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভাদোদারা জেলার নাদেসারি এলাকার আনগাধ গ্রামে রোগিনীকে নিজের ক্লিনিকের মধ্যেই ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ওই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে।

নাদেসারি পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত চিকিৎসকের নাম প্রতীক জোশি। শনিবার পঞ্চমহল এলাকায় এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে দুপুরে তাকে আটক করে পুলিশ।

তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, গত ১১ জুন ওই নারী প্রতীক জোশির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।

ওই নারীর দাবি, ক্লিনিকে ঘুমের ইনজেকশন দিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন ওই চিকিৎসক। সেই সময় ওই ক্লিনিকের কম্পাউন্ডার তার ফোনে ভিডিও করছিলেন বলে দাবি করেন তিনি। অভিযোগ পেয়ে সেদিন রাতেই দিলীপ গোহিল নামে ওই কম্পাউন্ডারকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

যদিও ঘটনার দিন থেকেই পলাতক ছিলেন অভিযুক্ত চিকিৎসক। তার বিরুদ্ধে ৩৭৬ ধারায় ধর্ষণসহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। খুব শিগগির তাকে আদালতে পেশ করা হবে।

পুলিশি জেরায় ওই চিকিৎসকের দাবি, ধর্ষণের ঘটনাটি তিন মাস আগেকার। গ্রেপ্তারকৃত কম্পাউন্ডার ও তার দুই সঙ্গী মিলে ওই চিকিৎসককে ব্ল্যাকমেল করা শুরু করেছিল। গত ২২ ফেব্রুয়ারি তাকে অপহরণ করে ৫০ লাখ টাকা দাবি করা হয়।

পুলিশ আলাদা করে অপহরণ ও ব্ল্যাকমেলের ঘটনারও তদন্ত শুরু করেছে। যদিও আরও দুই অভিযুক্ত মহেন্দ্র ও বিক্রম গোহিলকে এখনও ধরতে পারেননি তদন্তকারীরা।

Shares