আজ বুধবার , ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দাবীতে আজ মানববন্ধন হালুয়াঘাটের শিমুলকুচি গ্রামে কামাল’র কুলখানি অনুষ্ঠিত হালুয়াঘাটে বৃদ্ধকে নির্যাতনের ঘটনায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ হালুয়াঘাটের ট্রলি উল্টে দুই বন্দর শ্রমিকের মৃত্যু, আহত ৬ মাছ ধরার জালে ঢিল ছোড়ায় খুন হন শিশু শিক্ষার্থী সুমন হালুয়াঘাটে ১ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে খুন এমপি’র কাছে নালিশ করায় বৃদ্ধকে পিটিয়েছে চেয়ারম্যান হালুয়াঘাটে প্রতারিত শত শত কৃষক বাউফলে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন

ঘুমের ইনজেকশন দিয়ে রোগীকে ধর্ষণ

প্রকাশিতঃ ৪:৪৮ অপরাহ্ণ | জুন ১৭, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৪৩ বার

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের গুজরাটে এক নারী রোগীকে ঘুমের ইনজেকশন দিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগে পলাতক এক চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভাদোদারা জেলার নাদেসারি এলাকার আনগাধ গ্রামে রোগিনীকে নিজের ক্লিনিকের মধ্যেই ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ওই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে।

নাদেসারি পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত চিকিৎসকের নাম প্রতীক জোশি। শনিবার পঞ্চমহল এলাকায় এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে দুপুরে তাকে আটক করে পুলিশ।

তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, গত ১১ জুন ওই নারী প্রতীক জোশির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।

ওই নারীর দাবি, ক্লিনিকে ঘুমের ইনজেকশন দিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন ওই চিকিৎসক। সেই সময় ওই ক্লিনিকের কম্পাউন্ডার তার ফোনে ভিডিও করছিলেন বলে দাবি করেন তিনি। অভিযোগ পেয়ে সেদিন রাতেই দিলীপ গোহিল নামে ওই কম্পাউন্ডারকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

যদিও ঘটনার দিন থেকেই পলাতক ছিলেন অভিযুক্ত চিকিৎসক। তার বিরুদ্ধে ৩৭৬ ধারায় ধর্ষণসহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। খুব শিগগির তাকে আদালতে পেশ করা হবে।

পুলিশি জেরায় ওই চিকিৎসকের দাবি, ধর্ষণের ঘটনাটি তিন মাস আগেকার। গ্রেপ্তারকৃত কম্পাউন্ডার ও তার দুই সঙ্গী মিলে ওই চিকিৎসককে ব্ল্যাকমেল করা শুরু করেছিল। গত ২২ ফেব্রুয়ারি তাকে অপহরণ করে ৫০ লাখ টাকা দাবি করা হয়।

পুলিশ আলাদা করে অপহরণ ও ব্ল্যাকমেলের ঘটনারও তদন্ত শুরু করেছে। যদিও আরও দুই অভিযুক্ত মহেন্দ্র ও বিক্রম গোহিলকে এখনও ধরতে পারেননি তদন্তকারীরা।

Shares