আজ বুধবার , ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

এমপি মাহমুদুল হক সায়েমকে সি.আই.পি শামিমের সংবর্ধনা হালুয়াঘাটে ঈদে বাড়ি ফেরার পথে লাশ হল স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালুয়াঘাটের স্থলবন্দর দিয়ে ২৭টি পণ্যের আমদানী রপ্তানীর পরিকল্পনা-এমপি সায়েম হালুয়াঘাটে ২৭ হাজার দুস্থ অসহায় পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ১৩ বছর পর পদত্যাগ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হালুয়াঘাটে ফেইসবুক গ্রুপে কোরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা। পুরস্কার বিতরণ ‘কৃষ্ণনগরের কৃষ্ণকেশীর ‘বেহিসেবি রঙ.. হিমাদ্রিশেখর সরকার হালুয়াঘাট থেকে ফুলপুর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা নির্মাণসহ সড়ানো হচ্ছে অস্থায়ী বাস কাউন্টার জনগণের অধিকার আদায় না হওয়া পর্যন্ত বিএনপি রাজপথে থাকবে-প্রিন্স ডামি নির্বাচন করে গণতন্ত্রকে আইসিইউতে পাঠিয়েছে আওয়ামী লীগ-প্রিন্স বাজারে পণ্যের অগ্নিমূল্যের তাপ তাদের গায়ে লাগেনা-প্রিন্স নালিতাবাড়ীতে প্রেসক্লাবের নির্বাচন, সভাপতি সোহেল সম্পাদক মনির গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে আন্দোলন অব্যাহত থাকবে-বিএনপি নেতা প্রিন্স হালুয়াঘাটে বিএনপি নেতা প্রিন্স’র লিফলেট বিতরণ ৯৮ দিন কারাভোগের পর নিজ এলাকায় বিএনপি নেতা প্রিন্সকে সংবর্ধনা

বাউফলে ২শত ১৯ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নেই শহীদ মিনার

প্রকাশিতঃ ৭:১১ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩৪৫ বার

বাউফল(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি: নিজ নিজ বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার না থাকায় একুশে ফেব্রুয়ারির দিন শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পারছে না পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার ২ শত ১৯টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। দীর্ঘদিন ধরে শহীদ মিনার ছাড়াই চলছে এ সব বিদ্যালয়। অদুর ভবিষ্যাতে সরকারি এসব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহদি মিনার নির্মান করার মত কোন পরিকল্পনাও নেই প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, বাউফল উপজেলায় ২৩৫ টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে। এরমধ্যে মাত্র ১৬টি বিদ্যালয়ে রয়েছে শহীদ মিনার। আর বাকি ২ শত ১৯ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নেই কোন শহীদ মিনার।
উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ রিয়াজুল হক বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার নির্মান করার মত সরকারি অর্থ বরাদ্ধ দেয়া হয় না। তাই এখানকার সব বিদ্যালয়ে শহীদ মিনাার নির্মান করা সম্ভব হয়নি। শীঘ্রই সরকারিভাবে শহীদ মিনার নির্মানের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান ফিরোজ বলেন, একুশ আমাদের জাতীয় চেতনা। এই দিনটি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে । তাই প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার থাকা উচিৎ। শহীদ মিনার না থাকায় আমাদের সমস্যায় পড়তে হয়। উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাতে শহীদ মিনার নির্মান করা হয় , সেই বিষয়টি উর্ধবতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত পূর্বক অচিরেই ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Shares