আজ শনিবার , ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

মর্ডান স্পোটিং ক্লাবের দোয়া ও ইফতার জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা কায়েসের ঈদ উপহার সচেতনতা মুলক স্টিকার ও মাস্ক বিতরণ করলো জনপ্রিয় সেচ্ছাসেবী সংঘঠন ত্রিশাল হেল্পলাইন আজ শফিকুল ইসলাম ভাইয়ের মৃত্যুবার্ষিকী খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় ত্রিশাল ছাত্রদলের পক্ষ থেকে ইফতার বিতরণ হালুয়াঘাটে কৃষকের ধান কাটলেন এমপি হালুয়াঘাটে কর্মহীন মানুষের মাঝে রুবেলে’র খাদ্য সামগ্রী বিতরণ! করোনাঃ মৃত্যুর মিছিলে ১৫৪ চিকিৎসক বাউফলে ডায়রিয়া আক্রান্তদের মাঝে বিনামূল্যে স্যালাইন বিতরণ বাউফলে টাকা চুরি’র ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক যুবককে কুপিয়ে জখম মৃত্যুপুরী ভারত শ্মশানে জায়গা না থাকায় গণচিতা ভারতে লুকানো হচ্ছে কোভিডে মৃতের সংখ্যা কমতে শুরু করেছে মৃত্যু ও শনাক্ত সংখ্যা বাউফলে ভ্রাম্যমান দুধ, ডিম ও মাংস বিক্রয়ে ব্যাপক সাড়া করোনা ভাইরাস: দিল্লির হাসপাতালে অক্সিজেন বিপর্যয়ে বহু রোগীর মৃত্যু

‘আমি যখন খেতে বসতাম, বাবা আমাকে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দিত’

প্রকাশিতঃ ৮:৪২ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩৫৮ বার

অনলাইন ডেস্কঃ বয়স মাত্র চার। খেতে বসলে অল্প-স্বল্প বায়নাও করে বাচ্চা মেয়েটি। সে জন্যই তার গায়ে দেওয়া হয় গরম খুন্তির ছ্যাঁকা! মারাও হয় সেই খুন্তি দিয়ে! এমনকি চিমটিও কাটা হয়। আর এই কাজগুলো করেন শিশুটির ‘বাবা’! এবং নিয়মিত। হায়দরাবাদের এই ঘটনাটি সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে।
বাচ্চাটির কান্না শুনে কেমন সন্দেহ হত প্রতিবেশীদের। তাঁরাই প্রথমে বিষয়টি জানান স্থানীয় এক নেতাকে। সেখান থেকেই খবর পান অচ্যুত রাও নামে এক সমাজকর্মী। তিনি এসে উদ্ধার করেন শিশুটিকে। শিশুটিকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই সে বলে, ‘‘খেতে বসলেই বাবা আমাকে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেয়। মারধর করে, চিমটিও কাটে।’’এই ঘটনায় স্থানীয় থানায় অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে ওই শিশুটির ‘বাবা’র নামে।
পুলিশ জানিয়েছে, শিশুটির মায়ের সঙ্গে তার বাবার বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে বেশ কিছু দিন আগেই। বর্তমানে তিনি অন্য এক ব্যক্তির সঙ্গে লিভ ইন সম্পর্কে রয়েছেন। মায়ের সঙ্গে বচসা হলেই তার ‘কোপ’ পড়ত শিশুটির উপরে। শিশুটির নিজের মা-ও নিয়মিত মারধর করত তাকে।
সমাজকর্মী অচ্যুত জানিয়েছেন, ‘‘প্রাপ্তবয়স্কদের সমস্যার বলি হচ্ছে শিশুরা। বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের ফলে সমস্যার শিকার হচ্ছে বর্তমান প্রজন্মের বেশির ভাগ শিশু। এই শিশুটিও তাঁর ব্যতিক্রম নয়।’’ শিশুটিকে উদ্ধার করে আপাতত একটি সরকারি আবাসিক হোমে পাঠানো হয়েছে।

Shares