আজ রবিবার , ১৮ই জানুয়ারি, ২০২০ ইং | ৬ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

আনন্দ টিভির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আব্বাস উল্লাহ শিকদার আর নেই হালুয়াঘাটে মাকে খুন করা সেই বর্বর খুনী পুলিশের হাতে আটক! নালিতাবাড়ীতে মাধ্যমিক শিক্ষক সমবায় সমিতির নির্বাচনী প্রচারনা পুলিশের বিশেষ সেবা! জনতার দোরগোড়ায় হালুয়াঘাট থানার পুলিশ নামহীন- শিখা গুহ রায় কোন অজানা শহর–শিখা গুহ রায় খুব কাছে আবার দূরে- শিখা গুহ রায় মন- শিখা গুহ রায় কাল্পনিক- শিখা গুহ রায়। আকাশের দিকে চেয়ে দেখো-শিখা গুহ রায় নিঝুম রাতে- শিখা গুহ রায় ফেলে আসা অতীত- শিখা গুহ রায় হালুয়াঘাটে দুই শতাধিক প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মাঝে কম্বল বিতরণ হালুয়াঘাটে সালমান ওমর রুবেলের চক্ষু ক্যাম্পে ৬ হাজার লোককে বিনামূল্যে ব্যবস্থাপত্র প্রদান হালুয়াঘাটে বিজ্ঞান মেলার উদ্ভোধন, র‍্যালী ও আলোচনা সভা

চ্যারিটেবল মামলার পরবর্তী শুনানি ১২ ও ১৩ সেপ্টেম্বর

প্রকাশিতঃ ৪:০০ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৫, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৮৩ বার

নিজস্ব প্রতিবেদক: জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী আদালতে বিচার অনুষ্ঠিত হয়েছে।আধা ঘণ্টারও কম সময় আদালতের কার্যক্রম চলার পর আসামিপক্ষের আইনজীবীরা না থাকায় শুনানি পিছিয়ে দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (০৫ সেপ্টেম্বর) সকালে পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতর স্থাপিত বিশেষ আদালতে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার শুনানি হওয়ার কথা ছিলো।কিন্তু শুনানি মুলতবি করে আগামী ১২ ও ১৩ সেপ্টেম্বর নতুন তারিখ ঠিক করে দিয়েছেন ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ মো. আখতারুজ্জামান।

কারাগারের ভিতর থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, পুরাতন কারাগারের প্রশাসনিক ব্লকে বিশেষ আদালত বসেছিলো। খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের না দেখে আদালতও কিছুক্ষণ সময় নিয়েছেন, আমিও তার আইনজীবীদের সঙ্গে যোগযোগ করেছি। এক পর্যায়ে আদালত মনে করেছেন শুনানি একতরফা না হয়ে যায় তাই চলতি মাসের ১২-১৩ তারিখে শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, খালেদা জিয়া আদালতে উপস্থিত ছিলেন, তিনি হুইলচেয়ারে করে আদালতে এসেছেন। তিনি আদালতকে বলেছেন- তিনি অসুস্থ, তার পায়ে ব্যথা, তিনি বেশিক্ষণ বসে থাকতে পারবেন না। এ পরিস্থিতিতে তার আইনজীবীরা না থাকায় শুনানির কার্যক্রম পিছিয়ে দিয়েছেন আদালত।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার শুনানির জন্য পুরান ঢাকার পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগার ঘিরে কড়া নিরাপত্তাবেষ্টনী গড়ে তোলা হয়। মামলার আসামি বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আরেক মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়ে এই কারাগারেই বন্দী আছেন।

Shares
error: Content is protected !!