আজ শুক্রবার , ২৫শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফলে ৫ হাজার মিটার অবৈধ বাঁধা জাল জব্দ ৫ বছর পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সিজারিয়ান কার্যক্রম শুরু জনগনের সেবক হতে চাই- অধ্যক্ষ পিকু জনগনের সেবক হতে চাই- অধ্যক্ষ পিকু হালুয়াঘাটে আশার আলো’র নির্বাচন! কাঞ্চন সভাপতি, আলী হোসেন সম্পাদক ব্যক্তিগত কারণে আত্মগোপনে ছিলেন ত্ব-হা: ডিবি হালুয়াঘাটে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান উপলক্ষে প্রেস ব্রিফিং হালুয়াঘাটে বাসের চাপায় পিষ্ট হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত একদিনে আরও ৬০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯৫৬ ময়মনসিংহে নিখোঁজ শিক্ষার্থীর লাশ পাওয়া গেল টয়লেটের ট্যাংকে বাউফলে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে বন্ধ ময়মনসিংহের ত্রিশালে সাংবাদিক এনামুল ফাউন্ডেশনের ইফতার ও দোয়া মাহফিল মা দিবসের শুভেচ্ছা ময়মনসিংহের এিশালে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও দীর্ঘায়ু কামনায় ইফতার হালুয়াঘাটে আরব আলী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৬ শত মানুষ পেল ঈদ উপহার

ছোট বড় সকল নির্বাচনে স্বচ্ছতা দেখতে চায় ইইউ

প্রকাশিতঃ ৯:৫৩ অপরাহ্ণ | জুলাই ১৯, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৩৯ বার

সীমান্তবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশে স্থানীয় ও সংসদ দুই ক্ষেত্রের নির্বাচন সুষ্ঠু অবাধ ও নিরপেক্ষ অনুষ্ঠিত হতে দেখতে চায় ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।
রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন মেঘনায় আজ বাংলাদেশের সঙ্গে ইইউ-এর মধ্যে তৃতীয় ফরেন অফিস কনসালটেশন বৈঠক শেষে প্রতিনিধি দলের নেতা গানার উইগান্ড একথা বলেন। তিনি বলেন, ইইউ চায় ছোট বড় সকল নির্বাচনে স্বচ্ছতা। অন্যদিকে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ অনুসরণীয় কাজ করেছে। তবে তাদের জন্য সকলেরই আরো কাজ করতে হবে।

ইইউর সঙ্গে বাণিজ্য ভাল, তবে তা আরো বাড়ছে এটা ইতিবাচক দিক। বাংলাদেশি শ্রমিকদের বেতন ভাতা পাওনার বিষয়ে সাম্যের কথা বলেন। কিছুদিন পর পরিদর্শন টিম সফরে আসবে বলেও তিনি জানান।

বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক এবং ইইউ প্রতিনিধি দলের নেতা সংস্থাটির এশিয়া প্যাসিফিক বিভাগের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গানার উইগান্ড।

তার সঙ্গে আসা সাত সদস্যের প্রতিনিধি দল বৈঠকে যোগ দেন।
২০১৬ সালের এপ্রিলে ঢাকায় প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে ফরেন অফিস কনসালটেশন বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এরপর গতবছর ১৫ ফেব্রুয়ারি ব্রাসেলসসে দ্বিতীয় বৈঠক হয়।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, দুই পক্ষে প্রায় সকল বিষয়ে ফলপ্রসু আলোচনা হয়েছে। বিশেষ করে রাজনীতি, সামাজিক ও উন্নয়ন ছাড়াও আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপট আলোচনা হয় বৈঠকে।

রোহিঙ্গা ইস্যু প্রাধান্য পেয়েছে, কারণ ইইউ প্রথম থেকেই এ বিষয়ে সহযোগিতা করে যাচ্ছে এবং সামনে করবে বলে জানিয়েছে।
এসডিজি বাস্তবায়নসহ ইউরোপে নিয়মছাড়া যে বাংলাদেশি রয়েছে তাদের নিয়েও কথা হয়েছে। প্রতিনিধি দলের নেতা বলেন, আমরা সকল দলের অংশ গ্রহণমূলক সুষ্ঠু অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দেখতে চাই।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহযোগিতার বিষয়ে ইইউ এককভাবে সবচেয়ে বড় অর্থের জোগানদাতা। ইইউ-এর বাইরে অন্য দেশের এ বিষয়ে আরো যোগদান করা উচিৎ। রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও সম্মানের সঙ্গে প্রত্যাবাসনের পক্ষে কাজ করে যাবে ইইউ।

Shares