আজ রবিবার , ১৪ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১লা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

এমপি মাহমুদুল হক সায়েমকে সি.আই.পি শামিমের সংবর্ধনা হালুয়াঘাটে ঈদে বাড়ি ফেরার পথে লাশ হল স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালুয়াঘাটের স্থলবন্দর দিয়ে ২৭টি পণ্যের আমদানী রপ্তানীর পরিকল্পনা-এমপি সায়েম হালুয়াঘাটে ২৭ হাজার দুস্থ অসহায় পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ১৩ বছর পর পদত্যাগ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হালুয়াঘাটে ফেইসবুক গ্রুপে কোরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা। পুরস্কার বিতরণ ‘কৃষ্ণনগরের কৃষ্ণকেশীর ‘বেহিসেবি রঙ.. হিমাদ্রিশেখর সরকার হালুয়াঘাট থেকে ফুলপুর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা নির্মাণসহ সড়ানো হচ্ছে অস্থায়ী বাস কাউন্টার জনগণের অধিকার আদায় না হওয়া পর্যন্ত বিএনপি রাজপথে থাকবে-প্রিন্স ডামি নির্বাচন করে গণতন্ত্রকে আইসিইউতে পাঠিয়েছে আওয়ামী লীগ-প্রিন্স বাজারে পণ্যের অগ্নিমূল্যের তাপ তাদের গায়ে লাগেনা-প্রিন্স নালিতাবাড়ীতে প্রেসক্লাবের নির্বাচন, সভাপতি সোহেল সম্পাদক মনির গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে আন্দোলন অব্যাহত থাকবে-বিএনপি নেতা প্রিন্স হালুয়াঘাটে বিএনপি নেতা প্রিন্স’র লিফলেট বিতরণ ৯৮ দিন কারাভোগের পর নিজ এলাকায় বিএনপি নেতা প্রিন্সকে সংবর্ধনা

নালিতাবাড়ীতে দিনমজুরের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার, আটক ৫

প্রকাশিতঃ ৪:৫৩ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ২৭, ২০২৪ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২০ বার

মোঃ দৌলত হোসেন নালিতাবাড়ী:
 শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে একটি শুকনো খালের ধারের ঝোপের নিচ থেকে শাহ কামাল ওরফে কদু (৩৮) নামে এক দিনমজুরের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হত্যাকাণ্ডের শিকার শাহ কামালের আপন মামা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হবি, তার স্ত্রী ঝর্ণা, ছেলে শান্ত ও দুই ভাতিজা মিলে ৫ জনকে আটক করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৬ জানুয়ারি) বেলা এগারোটার দিকে উপজেলার ১০ নং যোগানিয়া ইউনিয়নের কুত্তামারা গ্রামের হরখালী খালের তীর থেকে ওই মরদেহ উদ্ধার করা হয়। আটককৃত সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হবি, তার স্ত্রী ও সন্তানসহ অন্যরা ২০১৯ সালের ২৫ এপ্রিল অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে গুলি করে কৃষক ইদ্রিস আলী হত্যা ও আগ্নেয়াস্ত্র মামলার চার্জশীটভুক্ত আসামী।

সরেজমিনে অনুসন্ধানে জানা যায়, ২০১৮ সালে তৎকালীন যোগানিয়া ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হবির আপন ভাগ্নে নিঃসন্তান ও দিনমজুর কুত্তামারা গ্রামের শাহ কামাল একই এলাকার ফজল মিয়ার কাছ থেকে শ্বশুড়বাড়ি থেকে প্রাপ্ত ৭০ হাজার টাকায় ১১ কাঠা (৫৫ শতক) জমি বন্ধক নেন। এক ফসল ঘরে তোলার পর ২০১৯ সালের ২৫ এপ্রিল চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমানের ভাতিঝি জামাই মাজব আলীর সাথে জমির ধান কাটা নিয়ে সোহরাব আলীর সংঘর্ষ বাঁধে। একপর্যায়ে সংঘর্ষ দুই পক্ষের মাঝে ছড়িয়ে পড়লে চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমানের অবৈধ পিস্তলের গুলিতে প্রতিপক্ষ গ্রুপের ফজল মিয়ার ছেলে ইদ্রিস আলী ঘটনাস্থলেই নিহত হন। ওই ঘটনার পর মামলা, গ্রেফতার, বাড়ি ভাংচুরসহ বহু অঘটনের জন্ম দেয়। একই সাথে ছেলে হত্যাকাণ্ডের জেরে ফজল মিয়া তার বন্ধক দেওয়া জমি হবি চেয়ারম্যানের ভাগ্নে শাহ কামালকে না দিয়ে নিজেরা ভোগদখল করতে থাকেন। এমনকি টাকা নেওয়ার কথাও অস্বীকার করেন। কিছুদিন আগে ওই জমির জন্য বন্ধকী টাকা ফেরত পেতে দফায় দফায় শালিশি বৈঠক করেন দিনমজুর শাহ কামাল।

এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার রাত আটটার দিকে গড়াকুড়া বাজারে চা পানের কথা বলে বাড়ি থেকে বেরুয় শাহ কামাল। রাতে বাড়ি না ফেরায় একমাত্র স্ত্রী শেফালী বেগম খোঁজাখুঁজি করে ব্যর্থ হন।

এদিকে শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে হরেখালীর তীরের বাসিন্দা রনি মিয়া প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বেরুলে ঝোপের নিচে শাহ কামালের গলাকাটা মরদেহ দেখতে পান। পরে ত্রিপল নাইনে ফোন করলে নালিতাবাড়ী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ওই মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শেরপুর মর্গে পাঠায়।

শাহ কামালের স্বজন ও এলাকাবাসী জানান, শাহ কামাল সহজ-সরল মানুষ ছিলেন। তার সাথে কারও এমন শত্রুতা নেই যে তাকে হত্যা করবে। এসময় তারা শাহ কামাল কারও বলি হতে পারে বলেও মন্তব্য করেন।

অন্যদিকে ঘটনার তদন্তকালে হত্যায় ব্যবহৃত আলামত উদ্ধার করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হত্যাকাণ্ডের শিকার শাহ কামালের আপন মামা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হবিসহ ৫ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে সহকারী পুলিশ সুপার নালিতাবাড়ী সার্কেল দিদারুল ইসলাম জানান, হত্যাকান্ডের ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছে। প্রাথমিক তদন্ত ও মামলা গ্রহণ শেষে শনিবার বিস্তারিত জানানো হবে।

Shares