আজ রবিবার , ২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাচনে মোশারফ, ফরিদ, আশুরা বিজয়ী গরীবের আশার বাতিঘর হাজী মোশারফ হালুয়াঘাটে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি পুঁততে গিয়ে মৃত্যু-১, আহত-১ জাতীয় ভাবে”স্বপ্নজয়ী মা” নির্বাচিত হলেন জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জের অবিরণ নেছা ৬১০৮ ভোটের ব্যবধানে হামিদ বিজয়ী। শেখ রাসেল ও মনোয়ারা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হালুয়াঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনঃ প্রবীণে প্রবীণে লড়াই এম্বুলেন্সে করে মাদক পাচারকালে ২৪০ বোতল ভারতীয় মদসহ একজন আটক এমপি মাহমুদুল হক সায়েমকে সি.আই.পি শামিমের সংবর্ধনা হালুয়াঘাটে ঈদে বাড়ি ফেরার পথে লাশ হল স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালুয়াঘাটের স্থলবন্দর দিয়ে ২৭টি পণ্যের আমদানী রপ্তানীর পরিকল্পনা-এমপি সায়েম হালুয়াঘাটে ২৭ হাজার দুস্থ অসহায় পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ১৩ বছর পর পদত্যাগ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হালুয়াঘাটে ফেইসবুক গ্রুপে কোরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা। পুরস্কার বিতরণ ‘কৃষ্ণনগরের কৃষ্ণকেশীর ‘বেহিসেবি রঙ.. হিমাদ্রিশেখর সরকার হালুয়াঘাট থেকে ফুলপুর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা নির্মাণসহ সড়ানো হচ্ছে অস্থায়ী বাস কাউন্টার

হালুয়াঘাট-ফুলপুর সড়কের বেহালদশা। রাস্তা লক্কর ঝক্কর, গাড়ি চলে হেলে দোলে।

প্রকাশিতঃ ৫:০৪ অপরাহ্ণ | মে ৩১, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৪৮৪ বার

ওমর ফারুক সুমন, হালুয়াঘাট: রাস্তা লক্কর ঝক্কর, গাড়ি চলে হেলে দোলে। দুর্ভোগ চড়মে। গাড়িতে বসে থাকা মুশকিল। একবার এই রাস্তায় গেলে জীবন আসে আর যায়। এই বুঝি গাড়ী উলটে গেলরে। পেটের ভাত পর্যন্ত বের হয়ে যেতে চাই। বছরের পর বছর ধরে চলছে এই দুর্ভোগ। হালুয়াঘাট-ফুলপুর মহাসড়কের রাস্তা পিচ উঠে গিয়ে লাখো গর্তে পরিনত হয়েছে। নিন্ম মানের কাজ করায় রাস্তাটি সাবেক অবস্থায় ফিরে এসে জনগণের ভোগান্তি আরও বাড়িয়ে তুলেছে। ভেঙ্গে পড়েছে ফের আবার। গাড়িগুলো চলছে লক্কড়-ঝক্কর করে। মনে হয় এ বুঝি গাড়িটি উল্টে গেল। হালুয়াঘাটের প্রাণকেন্দ্র পুরাতন বাস স্ট্যান্ডের নিরাপদ ডায়াগনোষ্টিক থেকে শুরু এই গর্তের প্রদর্শণী। এখান থেকে নাগলা বাজার পর্যন্ত ৯ কিলোমিটার রাস্তার এমন বেহাল দশা। খানাখন্দে ভরা। কোথাও কোথাও ইটের সুরকি আর বালু দিয়ে গর্ত ভরাট করলেও আবার বৃষ্টি হলেই নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। রাস্তার অর্ধেকের বেশি অংশের পিচ, ইট, পাথরের খোয়া উঠে গেছে। একটু বৃষ্টি হলেই বীভৎস অবস্থার সৃষ্টি হয় রাস্তাজুড়ে। তখন সড়কটি যেন মৃত্যুফাঁদ হয়ে উঠে। রাস্তায় কাদা জমে হাঁটুপানি হয়ে যায়। মাঝে মাঝে ট্রাকের চাকা ডুবে বন্ধ হয়ে যায় যানবাহন চলাচল। ভারি মালবাহী যানবাহন দূরের কথা, রিক্সা আর সিএনজি চালাতেও অনুপযোগী । এলাকাবাসী, পথচারী ও যানবাহন চালকরা জানান, কয়েকটি দুরপাল্লার যানবাহনের স্ট্যান্ড ছাড়াও প্রচুরসংখ্যক ব্যক্তিগত গাড়ি যাতায়াত করে এই সড়কে। এছাড়া শিল্পকারখানার হাজার হাজার মালবাহী যানবাহন প্রতিদিন এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করে। সরজমিন ঘুরে দেখা যায়, হালুয়াঘাট পৌরসভার পুরাতন বাস স্ট্যান্ড, গাঙ্গিনারপার, দরিনগুয়া, ধারাবাজার, টিকুরিয়া, নাগলা বাজার প্রভৃতি স্থানে এই সড়কের বেহাল দশা মানুষকে অবর্ণনীয় দুর্ভোগে পরিনত করেছে। উপজেলার জনগণের সুবিধার্থে পুনঃ সংস্কারের নামে নির্মিত এ সড়কটি এখন শ্রীহীন। রাস্তাটি পুরো অংশ জুরেই ফের আবার গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। চলাচলের অনুপযোগী । কোথাও দেবে গেছে। কোথাও ভাঙ্গা। কোথাও গর্ত। যা অত্যন্ত বিপজ্জনক। পিচ ভেঙে পুরো রাস্তাটি যেন একটি ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। যেন মৃত্যুগুহা। এ এলাকার মানুষের প্রাণের দাবী হচ্ছে অতি দ্রুত এ রাস্তাটি মেরামত করার। ###

Shares