আজ শুক্রবার , ১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৮শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ীতে কৃষি মেলার উদ্ভোধন ইকোপার্কে বেড়াতে গিয়ে খালু কর্তৃক ভাগ্নী ধর্ষণের শিকার শ্রীবর্দীতে পানিতে ডুবে প্রতিবন্ধী শিশুর মৃত্যু মেয়ের খুনের বিচার চাইলেন বাবা বাউফলে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নালিতাবাড়ীতে বন্য হাতির আক্রমণে কৃষকের মৃত্যু দাশপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি আজম, সম্পাদক মজিবর নালিতাবাড়ীর নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর নিখোঁজ শিক্ষার্থী উদ্ধার নালিতাবাড়ীতে গণহত্যা দিবস পালিত দলিল প্রতি অতিরিক্ত ফি ১০ হাজার টাকা। প্রতিবাদে ধোবাউড়ায় সংবাদ সম্মেলন রামচন্দ্রকুড়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচারণায় বাঁধা: সংঘর্ষ, গাড়ি ভাংচুর, আহত হালুয়াঘাটে গাছের সাথে শত্রুতা হালুয়াঘাটে আরও ২৯ জন ভূমিহীনকে জমিসহ ঘর প্রদান ময়মনসিংহে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামী আটক। প্রধান মন্ত্রীর উপহার চান ভাগ্য বিড়ম্বিত বিধবা রেনুবালা!

কেড়ে নেয়া মাকে খুঁজছে অবুঝ শিশুটি

প্রকাশিতঃ ১০:৪৩ অপরাহ্ণ | জুন ২২, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩০৮ বার

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃএকটি খুদে শিশু ফুপিয়ে ফুপিয়ে কাঁদছে। আটক মাকে খুঁজছে সে। তার সামনে দাঁড়ানো বিশাল অবয়বের এক লম্বা ব্যক্তি। স্যুট-টাই পরা কেতাদুরস্থ ব্যক্তিটির অনেক ক্ষমতা।

মেক্সিকো সীমান্ত পাড়ি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করা অবৈধ অভিবাসী শিশুদের পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন করেছেন তিনি। এই ব্যক্তিটি আর কেউ নন, স্বয়ং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।-খবর গার্ডিয়ানের।

তিনি দুই বছর বয়সী হুন্ডুরান শিশুটির দিকে নির্বিকারভাবে তাকিয়ে আছেন। তার মুখে কোনো অভিব্যক্তি নেই। ছবিটির ক্যাপশনে লেখা-ওয়েলকাম টু আমেরিকা। অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্রে স্বাগত।

বিখ্যাত টাইম ম্যাগাজিনের চলতি সপ্তাহের প্রচ্ছদটি করতে শিশুটির ছবি নেয়া হয়েছে পুলিৎজার বিজয়ী আলোকচিত্রী জন মুরের একটি বেদনাদায়ক ছবি থেকে।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সবসময়ই বিখ্যাত টাইম ম্যাগাজিনের কাভার পেজের ছবি হওয়াকে পছন্দ করেন। টাইমের কভার হওয়াকে তিনি ফলাও করে প্রচার করে থাকেন।

কিন্তু এবারের ছবি তার পছন্দ হবে বলে মনে করছেন না বিশেষজ্ঞরা। মূলত ট্রাম্পের অভিবাসন নীতির প্রতিফলন ফুটে উঠেছে এ ছবিটিতে।

মেক্সিকো সীমান্তে আটক মাকে খুঁজছে আর কাঁদছে দুই বছর বয়সী শিশুটি। ছবি: সংগৃহীত

যেসব বাবা-মা মেক্সিকো সীমান্ত পাড়ি দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকেছেন, তাদের কাছ থেকে সন্তানদের বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। এতে করে বাবা-মা থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়া শিশুদের করুণ অবস্থা স্পষ্ট হয়েছে এ ছবিতে।

গার্ডিয়ানের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে মুর বলেন, একজন আলোকচিত্রী হিসেবে বহু বছর ধরে এ ধরনের কাহিনীর ছবি তুলছি। সদ্য হাঁটতে শেখা একটি শিশুসহ আমি তিন সন্তানের বাবা। কাজেই এই ছবি তোলা ছিল আমার জন্য খুবই বেদনায়ক।

Shares