আজ শুক্রবার , ৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭ হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিএনপি নেতা রুবেল’র অক্সিজেন সিলিন্ডার ও চিকিৎসা সামগ্রী প্রদান বাউফলে খাদ্য ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী পেল ২৬২ দুস্থ পরিবার হালুয়াঘাটে ১০৮০ টাকায় এম্ভুলেন্স সেবা। উদ্ভোধন করলেন এমপি জুয়েল আরেং হালুয়াঘাট ডোবা থেকে বৃদ্ধা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার বাউফল প্রেসক্লাবের সভাপতিকে হুমকি বাউফলে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেপ্তার হালুয়াঘাটে গত দুইদিনে তিন নারীর আত্মহত্যা! হালুয়াঘাটে পারিবারিক দ্বন্ধে দুই নারীর আত্মহত্যা! হালুয়াঘাটে পারিবারিক দ্বন্ধে দুই নারীর আত্মহত্যা করোনা সন্দেহে লাশ নেয়নি পরিবার, দাফন করল ছাত্রলীগ বাউফলে ইশা ছাত্র আন্দোলনের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ভিক্ষুক সালেমুন নেছার বাড়িতে ইউ.এন.ও ভিক্ষুক সালেমুন নেছা’র আজও হয়নি পুনর্বাসন

জনগনের সেবক হতে চাই- অধ্যক্ষ পিকু

প্রকাশিতঃ ১১:৩৭ অপরাহ্ণ | জুন ১৮, ২০২১ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৫ বার

তোফাজ্জেল হোসেন,বাউফল(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পটুয়াখালী বাউফলের কেশবপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী অধ্যক্ষ সালেহ উদ্দিন পিকু বলেছেন,‘ইউনিয়নের উন্নয়ন ও নাগরিক সেবা নিশ্চিত করার জন্য জনগণের সেবক হতে চাই। নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আমাকে নির্বাচিত করার মাধ্যমে সব ধরনের নাগরিক সুবিধা সম্পন্ন একটি ইউনিয়ন গড়ার সুযোগ দিবেন, ইনশাআল্লাহ। আমি নির্বাচিত হলে জনগণের কল্যাণে কাজ করবো। আজ শুক্রবার বিকেল ৩ টায় মেহেন্দীপুর বাজারে এক পথ সভায় এসব কথা বলেন তিনি। সালেহ উদ্দিন পিকু বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বাউফল উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি ও ওই ইউনিয়নের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাষ্টার্স পাশ করে তিনি প্রথমে বাউফল ডিগ্রী কলেজে গনিত বিষয়ের প্রভাষক হিসেবে চাকুরি জীবন শুরু করেন। পরে ২০১০ ইং সালের ২৫ ফেব্রুয়ারী কেশবপুর ডিগ্রী কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেন। এরপর কলেজের গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীর নানা রকমের সুযোগ সুবিধা প্রদানসহ রাজনৈতিক নেতা হিসেবে ইউনিয়নের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে নিজেকে সম্পৃক্ত রাখেন তিনি। তাঁর পিতা মৃত জালাল উদ্দিন আহম্মেদ কেশবপুর কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ও কেশবপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন। সব মিলিয়ে কেশবপুরবাসী মাঝে অধ্যক্ষ সালেহ উদ্দিন পিকুর পরিবারের আলাদা একটা ইমেজ থাকায় জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন তিনি।
আগামী ২১ জুন নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার সুযোগ করে দেওয়ার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, নৌকা প্রতিক জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতীক, এটা বঙ্গবন্ধুর প্রতীক, এই প্রতীক উন্নয়নের প্রতীক, এই প্রতীক মুক্তিযুদ্ধের প্রতীক। সকলের সমন্বয়ে ও পরামর্শক্রমে কেশবপুর ইউনিয়নের উন্নয়ন করতে চাই। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক প্রভাষক ফরিদ উদ্দিন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক(ভারপ্রাপ্ত) মনিরুজ্জামান খান টিটু, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি জহিরুল হক, ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রহিম মাতুব্বর প্রমুখ।

Shares