আজ শনিবার , ২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

হালুয়াঘাটে এক শত গৃহহীন পরিবারকে প্রধান মন্ত্রীর দেয়া ঘর হস্তান্তর হালুয়াঘাটে ১২শত মানুষের মাঝে ‘প্রিন্সে’র শীত বস্ত্র বিতরণ পাটগ্রাম সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত চুয়াডাঙ্গায় স্বামীর মোটরসাইকেল থেকে পড়ে নিহত ১ ময়মনসিংহের ত্রিশাল সরকারি নজরুল একাডেমি ভর্তির লটারীর ড্র অনুষ্ঠিত ময়মনসিংহের ত্রিশাল কুড়াগাছা রাস্তার বেহাল দশা ময়মনসিংহের ত্রিশাল পৌরসভার বাতিলকৃত নির্বাচন ১৪ই ফেব্রুয়ারী আর কলেজে ভর্তি হওয়া হলো না নুসরাতের দুইবারের বেশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি নয়, হাইকোর্টের রায় স্টামফোর্ড সাংবাদিক ফোরামের সহ-সভাপতি হলেন বাউফলের মাজহারুল তামিম বাউফল প্রেসক্লাবের নব নির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহন বাউফলে আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত যাত্রীবাহি বাসে অজ্ঞান পার্টির ৫ জন ধৃত বাউফলে গোদরোগ প্রতিরোধে সামাজিক উদ্বুদ্ধকরণ সভা অনুষ্ঠিত হালুয়াঘাটে পানিতে ডুবে যুবকের মৃত্যু

বরগুনার আমতলীতে নিখোঁজের একদিন পরে যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রকাশিতঃ ৫:৪৭ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৮ বার

সাইফুল ইসলাম জুলহাস বরগুনা প্রতিনিধি:নিখোঁজের ২০ ঘন্টা পর গাছের সাথে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় নুর জামাল মোল্লা (৪০) নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।নিহতের স্ত্রী লাইলি বেগমের দাবী তাকে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা গলায় ফাঁস দিয়ে গাছে ঝুলিয়ে রেখেছে। শুক্রবার নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে প্রেরন করেছে।
ঘটনা ঘটেছে বরগুনার আমতলী উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের উত্তর তক্তাবুনিয়া গ্রামে বৃহস্পতিবার রাতে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
জানাগেছে, উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের উত্তর তক্তাবুনিয়া গ্রামের আলতাফ হোসেন মোল্লার ছেলে নুর জামাল মোল্লা রুপক নামের একটি বে-সরকারী সংস্থায় দীর্ঘদিন ধরে চাকুরী করতো। গত এক বছর পূর্বে সে ওই সংস্থায় চাকুরী ছেড়ে বাড়ীতে সাংসারিক কাজ শুরু করে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে নুর জামাল বাড়ী থেকে বের হয়ে যায়। এরপর থেকে জামাল নিখোঁজ থাকে। নিখোঁজের পর থেকে স্বজনরা বিভিন্ন স্থানে খুঁজতে থাকে কিন্তু কোন সন্ধান পায়নি। নিখোঁজের ২০ ঘন্টা পর শুক্রবার সকালে তার বাড়ীর পুকুর পাড়ে একটি গাছের সাথে তোয়ালে প্যাচানো গলায় ফঁাস দেয়া অবস্থায় তার মরদেহ স্বজনরা দেখতে পায়।
নুর জামালের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ ও পরিধেয় কাপড়ে রক্তমাখা রয়েছে বলে জানান প্রত্যাক্ষদর্শীরা।
খবর পেয়ে এএসপি (সার্কেল) সৈয়দ মোঃ রবিউল ইসলাম, আমতলী থানার ওসি মোঃ শাহ আলম হাওলাদার ও ওসি (তদন্ত) হেলাল উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে প্রেরন করেছে।
পরিবারের দাবী নুর জামালকে দুর্বৃত্তরা হত্যা করে গলায় ফাঁস দিয়ে গাছের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে। এ ঘটনায় এলাকার চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। স্ত্রী লাইলি বেগম কান্নাজনিত বলেন, আমার স্বামী বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে বাড়ী থেকে বের হয়ে যায়। এরপর থেকে সে নিখেঁাজ ছিল। তাকে বিভিন্ন স্থানে খুজেও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। শুক্রবার সকালে আমি পুকুরে মুখমন্ডল ধৌত করতে গেলে গাছের সাথে গলায় ফাঁস দেয়া তার মরদেহ দেখতে পাই। তিনি আরো বলেন, আমার স্বামীকে দুবর্ৃত্তরা হত্যা করে গলায় ফঁাস দিয়ে রেখেছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।
আমতলী থানার ওসি মোঃ শাহ আলম হাওলাদার বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃতু মামলা হয়। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Shares