আজ রবিবার , ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন বাউফলে জাতীয় মৎস সপ্তাহ শুরু হালুয়াঘাটে বজ্রপাতে মৃত্যু! বাবার লাশের পাশে দেড় বছরের শিশু ‘নুসাইবা’ হালুয়াঘাটে নির্মাণের বছরেই বক্স কালভার্ট ধ্বস! বাউফলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত ভিক্ষের টাকা গণনা করছিলো ভিক্ষুক। ইমাম বাসের চাপায় মৃত্যু ঐ ভিক্ষুকের শোক দিবসে হালুয়াঘাটে বিজিবি’র ত্রাণ বিতরণ বাউফলে সফিউল বারী বাবু’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭ হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিএনপি নেতা রুবেল’র অক্সিজেন সিলিন্ডার ও চিকিৎসা সামগ্রী প্রদান

কুমিল্লার হাইওয়ে হোটেল নূরজাহানে নোংরা খাবার! ৫ লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিতঃ ৯:৫৬ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৭৭ বার

]অনলাইন ডেস্কঃ অপরিষ্কার ও নোংরা রান্নাঘরের কারণে কুমিল্লা হাইওয়েতে অবস্থিত হোটেল নূরজাহানকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একই কারণে আরও দুটি হোটেলকে জরিমানা করা হয়।

বাকি হোটেল দুটি হলো- তাজমহল এবং টাইমস স্কয়ার। মঙ্গলবার নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্যরা অ’ভিযানে গিয়ে হোটেল তিনটির রান্নাঘরে নোংরা পরিবেশ দেখতে পান।
নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য মাহবুব কবির মিলন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি তার ফেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ বিষয়ে একটি পোস্ট দিয়েছেন।
পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘আজ কুমিল্লা হাইওয়ে হোটেলে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের দুজন ম্যাজিস্ট্রেট মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।
মা’রাত্মক অপরিষ্কার ও অত্যন্ত নোংরা কিচেনের কারণে হোটেল নূরজাহানকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা, তাজমহলকে ২ লাখ এবং টাইমস স্কয়ারকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।’
‘সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে তারা কিচেনের পরিবেশ উন্নত না করলে চরম ব্যবস্থা নেয়া হবে।’ খাবারের দামের বিষয়ে তিনি লেখেন, ‘দামের বিষয়ে আমাদের করণীয় কিছু নেই।

সর্বোচ্চ খুচরা মূল্যের (এমআরপি) চেয়ে বেশি দাম রাখা হলে ভোক্তা অধিকারে অ’ভিযোগ করতে হবে মেমো বা রশিদ দিয়ে। মূল্যতালিকা দেয়া থাকলে কারও করার কিছু নেই। ধরে নেয়া হয় ভোক্তা তা জেনেই খেয়েছেন।’

Shares