আজ মঙ্গলবার , ২০শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

উপ নির্বাচন. ইউপি সদস্যসহ আটক ৪ হালুয়াঘাটে পৃথক স্থানে ট্রাক চাপায় ও বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুইজনের মৃত্যু গৌরিপুরে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা হালুয়াঘাটে ইয়াবাসহ আটক-২ সারাদেশে ধর্ষণের প্রতিবাদে হালুয়াঘাটে মানববন্ধন বগুড়ার শেরপুরে গ্রাম্য শালিশ বৈঠক নিয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশে গ্রামবাসীর প্রতিবাদ ময়মনসিংহে রেজিয়া ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ ও চিকিৎসকদের গাফিলতিতে ছেলের মৃত্যুর বিচার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন চেয়ারম্যান ইরাদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন বরগুনায় শিশু অপহরণকারী আজিমের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন বরগুনার তালতলীতে পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণ, ধর্ষক সোবহান গ্রেফতার অনিয়ম দূর্নীতির আখড়া রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চল বিভাগীয় পে এন্ড ক‍্যাশ অফিস পর্ব-১ হালুয়াঘাটে চেয়ারম্যান ইরাদের সকল অপকর্ম ফাঁস! পুলিশের জালে আটক রিফাত হত্যা মামলার রায় ঘোষণা! মিন্নিসহ ছয় জনকে মৃত্যুদণ্ড আমতলীতে ৪’শ পিস ইয়াবাসহ মাদক বিক্রেতা গ্রেফতার বরগুনার আমতলীতে মামলা তুলে নিতে বাদীকে বিএনপি নেতার জীবন নাশের হুমকি

কুমিল্লার হাইওয়ে হোটেল নূরজাহানে নোংরা খাবার! ৫ লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিতঃ ৯:৫৬ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৯৯ বার

]অনলাইন ডেস্কঃ অপরিষ্কার ও নোংরা রান্নাঘরের কারণে কুমিল্লা হাইওয়েতে অবস্থিত হোটেল নূরজাহানকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একই কারণে আরও দুটি হোটেলকে জরিমানা করা হয়।

বাকি হোটেল দুটি হলো- তাজমহল এবং টাইমস স্কয়ার। মঙ্গলবার নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্যরা অ’ভিযানে গিয়ে হোটেল তিনটির রান্নাঘরে নোংরা পরিবেশ দেখতে পান।
নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য মাহবুব কবির মিলন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি তার ফেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ বিষয়ে একটি পোস্ট দিয়েছেন।
পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘আজ কুমিল্লা হাইওয়ে হোটেলে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের দুজন ম্যাজিস্ট্রেট মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।
মা’রাত্মক অপরিষ্কার ও অত্যন্ত নোংরা কিচেনের কারণে হোটেল নূরজাহানকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা, তাজমহলকে ২ লাখ এবং টাইমস স্কয়ারকে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।’
‘সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে তারা কিচেনের পরিবেশ উন্নত না করলে চরম ব্যবস্থা নেয়া হবে।’ খাবারের দামের বিষয়ে তিনি লেখেন, ‘দামের বিষয়ে আমাদের করণীয় কিছু নেই।

সর্বোচ্চ খুচরা মূল্যের (এমআরপি) চেয়ে বেশি দাম রাখা হলে ভোক্তা অধিকারে অ’ভিযোগ করতে হবে মেমো বা রশিদ দিয়ে। মূল্যতালিকা দেয়া থাকলে কারও করার কিছু নেই। ধরে নেয়া হয় ভোক্তা তা জেনেই খেয়েছেন।’

Shares