আজ বৃহস্পতিবার , ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফলে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন বাউফলে জাতীয় মৎস সপ্তাহ শুরু হালুয়াঘাটে বজ্রপাতে মৃত্যু! বাবার লাশের পাশে দেড় বছরের শিশু ‘নুসাইবা’ হালুয়াঘাটে নির্মাণের বছরেই বক্স কালভার্ট ধ্বস! বাউফলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত ভিক্ষের টাকা গণনা করছিলো ভিক্ষুক। ইমাম বাসের চাপায় মৃত্যু ঐ ভিক্ষুকের শোক দিবসে হালুয়াঘাটে বিজিবি’র ত্রাণ বিতরণ বাউফলে সফিউল বারী বাবু’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭

কাবুলে স্পোর্টস ক্লাবে বোমা হামলা, সাংবাদিকসহ নিহত ২০

প্রকাশিতঃ ৪:২৩ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৭৯ বার

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে একটি রেসলিং ক্লাবে জোড়া বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে দুই সাংবাদিকসহ অন্তত ২০ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ৭০ জন।

বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে হামলার ঘটনা ঘটে। তবে এখন পর্যন্ত কেউ হামলার দায় স্বীকার করেনি।

এদিকে এমন হামলায় দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, বেসামরিক নাগরিক এবং গণমাধ্যমকর্মীদের ওপর এই হামলা মানবতা এবং স্বাধীনতার বিরুদ্ধে হামলা।

আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাজিব দানিশ জানিয়েছেন, বুধবার কাবুলের দাশতের বারচি এলাকার ওই স্পোর্টস ক্লাবে জঙ্গিরা হামলা চালায়। ক্লাবের নিরাপত্তারক্ষীকে গুলি করে হত্যার পর এক ব্যক্তি ভেতরে প্রবেশ করে আত্মঘাতী বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। হামলার পর হতাহতদের উদ্ধারে লোকজন জড়ো হলে সেখানে আরেকটি গাড়ি বোমার বিস্ফোরণ ঘটে। এতে দুই সাংবাদিকসহ ২০ জন নিহত হন।

কাবুল পুলিশের মুখপাত্র হাসমত স্ট্যানেকজাই জানান, নিহত দুই সাংবাদিক দেশটির ‘তোলু’টিভিতে কাজ করেন। দুই হামলায় কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তাসহ ৭০ জনের মতো আহত হন।

গত মাসে ওই এলাকায় একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বোমা হামলায় ৫০ জন নিহত হন। এ ছাড়াও ওই এলাকায় বসবাস করা শিয়া হাজারা সম্প্রদায় এর আগে বহুবার হামলার শিকার হয়।

 

Shares