আজ রবিবার , ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে পৃথক স্থানে ট্রেনে কাটা পড়ে ২জন নিহত এমপি’র পক্ষে হালুয়াঘাট ধান্য ব্যবসায়ী সমিতির কম্বল বিতরণ ধোবাউড়ায় ট্রাক-হোন্ডা সংঘর্ষে নিহত-২, চালক ও হেলপার আটক বাউফলে ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি হালুয়াঘাটে ঝরে পড়া শিশুরা পাবে শিক্ষার সুযোগ। আসছে শিক্ষক নিয়োগও হালুয়াঘাটে স্বামীর আত্নহত্যা দেখে স্ত্রীও বিষ খায়! দুজনেরই মৃত্যু হালুয়াঘাটে স্বামী-স্ত্রীর আত্নহত্যা রাহেলা হযরত মডেল স্কুলে প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত ত্রিশাল অনলাইন প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধাঞ্জলি ভাষা শহীদদের প্রতি কংশ টিভির পরিবার ও গণমাধ্যম কর্মীদের শ্রদ্ধাঞ্জলী ফুটবল ফাইনাল টুর্নামেন্টে বিজয়ী মধুপুর একাদশ স্পোটিং ক্লাব ২৮ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়লো ময়মনসিংহ জেলার শ্রেষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার ত্রিশালের মোস্তাফিজুর রহমান হালুয়াঘাটে পিকনিকের বাস উল্টে আহত-৮ ময়মনসিংহের ত্রিশালে করোনা টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন

৯৬ ঘণ্টা অতিবাহিতের পরেও সাপে কাটা রোগী সুস্থ্য!

প্রকাশিতঃ ৭:০৭ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৬, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩০৩ বার

অনলাইন ডেস্কঃ সংসারের খরচ চালানোর তাগিদে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দক্ষিণ ২৪ পরগনার গোসাবার বাসিন্দা মধুসূদন সরদার কর্নাটক গিয়েছিলেন। সেখানেই একদিন সাপে কামড়ায় তাকে। সাপের বিষ শরীরে ছড়িয়ে যাওয়ায় মধুসূদন অসুস্থ হয়ে পড়েন। সহকর্মীরা মধুসূদনকে নিয়ে স্থানীয় এক ওঝার কাছে যান। শুরু হয় ওঝার ঝাড়ফুঁক।

বিপত্তি আরও বাড়ে। ওঝার ঝাড়ফুঁকে সুস্থ হওয়া তো দূরের কথা, স্বাভাবিকভাবেই আরও অসুস্থ হয়ে পড়েন মধুসূদন। ইতিমধ্যেই খবর পৌঁছায় মধুসূদনের বাড়িতে। স্ত্রী প্রাথমিকভাবে কিছুটা ভেঙে পড়েন। পরে সিদ্ধান্ত নেন স্বামীকে ফিরিয়ে আনার।

কর্নাটকে স্বামীর সহকর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন তিনি। সেখানে পৌঁছান তিনি। এরপর ট্রেনেই কর্নাটক থেকে ক্যানিং ফিরিয়ে আনেন তিনি। ৯৬ ঘণ্টা ট্রেনযাত্রার শেষে ক্যানিং হাসপাতালে ভর্তি করা হয় মধুসূদনকে। শুরু হয় চিকিত্‍সা।

চিকিত্‍সকরা জানিয়েছেন, এখন বিপদ কেটেছে মধুসূদনের। সাপে কামড়ানো রোগীর ঠিক সময়ে চিকিত্‍সা শুরু হলে তাকে সম্পূর্ণ সুস্থ করে তোলা সম্ভব। পরিবারের লোককে সুস্থ অবস্থায় ফিরে পেয়ে খুশি রোগীর পরিবারও।

Shares