আজ মঙ্গলবার , ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ভালুকায় সাংবাদিক নিগ্রহের বিচার দাবিতে মানববন্ধন রিফাত হত্যা রায় ৩০ সেপ্টেম্বর ! মিন্নির সাজা হবে কি? টাংগাইল সদরের (বুরো এনজিও) কর্মকর্তা খুন। মতলব উত্তরে আধুনিক প্রযুক্তিতে বীজ উৎপাদন সংরক্ষনে মাঠ দিবস অনুষ্টিত টাংগাইলে জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান লিটন কে কুপিয়ে হত্যা চেস্টা। টাংগাইলে চতুর্থ শ্রেণির (১০) এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা। রাঙ্গাবালীতে বিয়ের প্রতিশ্রæতিতে প্রতারণার অভিযোগ, চারজনের বিরুদ্ধে মামলা হালুয়াঘাটে বিজিবি’র পিটুনিতে আহত-১ প্রশ্নবিদ্ধ টি.এইচ.ও ডা. সোহেলী শারমিন! কোটি টাকার দূর্ণীতির নেপথ্যে–? হালুয়াঘাটে নারী সোর্স সুমিসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর অভিযোগ বাউফলে এক ব্যক্তির চোখ উৎপাটন হালুয়াঘাটে সুমী’র অপকর্ম ফাঁস! প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৮২৭ রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের স্বঘোষিত সভাপতির হুমকিতে ৫ সাংবাদিক এলাকাছাড়া করোনায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু

হালুয়াঘাটের শিশু ধর্ষণ ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টায় ‘গেসু’ ও ‘গনি’

প্রকাশিতঃ ৮:২৪ অপরাহ্ণ | জুন ০৮, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৬৯ বার

ওমর ফারুক সুমন: মাত্র ১ টাকা দামের একটি বিস্কুটের প্রলোভন দেখিয়ে ৭ বৎসরের এক শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টায় কয়রাহাটি গ্রামের গিয়াস উদ্দিন (৫২) ও আব্দুল গনি (৪৫) এরা দুইজন লিপ্ত ছিলো বলে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে অভিযোগ উঠেছে। যার ফলশ্রুতিতে ধর্ষনের ঘটনা ঘটার দুইদিন পরে হালুয়াঘাট থানায় মামলা করতে আসেন ধর্ষণের শিকার ঐ শিশুর পরিবার। এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, গত ৩ জুন রবিবার সন্ধায় ঘটনা ঘটে। মামলা হয় ৫ জুন রাতে। এ দু‘দিন ভুক্তভোগী পরিবারের সাথে ধর্ষণকারী পরিবারের পক্ষ নিয়ে আপোষের চেষ্টা চালায় এই দুই মূল হোতা। স্থানীয়রা জানান, এরা এখনো পর্যন্ত অভিযুক্ত মঞ্জুরুলকে বাঁচানোর চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। তাদেরকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ধর্ষণের আলামত নষ্ট করার জন্যেও অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানান। ধর্ষক  মঞ্জুরুলের বাড়ি হালুয়াঘাট উপজেলার ৯ নং ধারা ইউনিয়নে। সে আব্দুল হেকিমের পুত্র। শিশুটি গত রবিবার ধারাকলেজ মাঠে ইফতার পার্টি থেকে ইফতার খেয়ে বাড়ি ফেরার পথে পিঁছু অবুঝ শিশুটিকে ফুঁসলিয়ে বিস্কুট খাওয়াবে বলে নদীর পাড়ে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানেই ধর্ষণ করে বখাটে মঞ্জুরুল। এ বিষয়ে হালুয়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার বলেন, মঞ্জুরুলকে আটকের চেষ্টা চলছে। সে পলাতক থাকায় এখনো আটক হয়নি। তবে আটক করা হবে সে যেখানেই থাকুক। এমনটিই জানালেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

Shares