আজ মঙ্গলবার , ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

জনগনের সেবক হতে চাই- অধ্যক্ষ পিকু জনগনের সেবক হতে চাই- অধ্যক্ষ পিকু হালুয়াঘাটে আশার আলো’র নির্বাচন! কাঞ্চন সভাপতি, আলী হোসেন সম্পাদক ব্যক্তিগত কারণে আত্মগোপনে ছিলেন ত্ব-হা: ডিবি হালুয়াঘাটে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান উপলক্ষে প্রেস ব্রিফিং হালুয়াঘাটে বাসের চাপায় পিষ্ট হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত একদিনে আরও ৬০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯৫৬ ময়মনসিংহে নিখোঁজ শিক্ষার্থীর লাশ পাওয়া গেল টয়লেটের ট্যাংকে বাউফলে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে বন্ধ ময়মনসিংহের ত্রিশালে সাংবাদিক এনামুল ফাউন্ডেশনের ইফতার ও দোয়া মাহফিল মা দিবসের শুভেচ্ছা ময়মনসিংহের এিশালে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও দীর্ঘায়ু কামনায় ইফতার হালুয়াঘাটে আরব আলী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৬ শত মানুষ পেল ঈদ উপহার হালুয়াঘাটে রাস্তার দাবিতে মানববন্ধন মর্ডান স্পোটিং ক্লাবের দোয়া ও ইফতার

ময়মনসিংহে পুলিশ পরিচয়ে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ! ভুঁয়া পুলিশ আটক

প্রকাশিতঃ ১২:৫৪ অপরাহ্ণ | জুন ০৯, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১,২৩২ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ পুলিশের ভূয়া এসআই পরিচয়ে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ ও গোপনে ভিডিও করে রাখার অভিযোগে জমশেদ আলী শাকিব নামে পুলিশের এক ভূয়া এসআইকে গ্রেফতার করেছে মুক্তাগাছা থানা পুলিশ। তার বাড়ি মুক্তাগাছা উপজেলার নটাকুড়ি গ্রামে। এ ঘটনায় রোববার রাতে তার নামে মুক্তাগাছা থানায় ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা হয়েছে। পরে ওই রাতেই জমশেদ আলী শাকিব ও তার স্ত্রী আমেনা খাতুনকে গ্রেফতার করেছে মুক্তাগাছা থানা পুলিশ।
অনার্স ৩য় বর্ষের এক ছাত্রীর সাথে রং নাম্বারে দুইমাস আগে যোগাযোগ হয় মুক্তাগাছার নটাকুড়ি গ্রামের আব্দুল হালিমের ছেলে জমশেদ আলী শাকিবের। ওই সময় শাকিব নিজেকে পুলিশের এসআই ও অবিবাহিত হিসেবে পরিচয় দেয়। এর পর থেকে তাদের মধ্যে মোবাইলে ফোনে নিয়মিত যোগাযোগ হয়। এ সুযোগে কলেজ ছাত্রীর ছোট ভাইকে তথ্য মন্ত্রণালয়ে চাকুরির দেওয়ার কথা জানায় জমশেদ আলী শাকিব।
তার কথা মত রমজান মাসের শুরুতে ২৯ এপ্রিল ছোট ভাইয়ের কাগজপত্র নিয়ে মুক্তাগাছায় দেখা করতে আসে ওই কলেজ ছাত্রী। এ দিন তাকে মুক্তাগাছা শহরের মনিরামবাড়ি এলাকার একটি ভাড়া বাসায় জোরপূর্বক নিয়ে যায় পুলিশের ভূয়া এসআই নামধারী জমশেদ আলী শাকিব। ওই বাসায় মেয়েটিকে আটকে রেখে ওইদিন রাতে দুই দফা ধর্ষণ করে শাকিব। এ সময় গোপনে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে রাখে সে। পরদিন সকালে ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেওয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে মেয়েটিকে বাসা থেকে বের করে দেয়। পরবর্তীতে বিভিন্ন সময় ভিডিও চিত্র ফাঁস করে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে মেয়ের পরিবারের কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করে পুলিশের ওই ভূয়া এসআই। এ ঘটনায় কোনো উপায় না দেখে রোববার রাতে জমশেদ আলী শাকিব ও তার স্ত্রী আমেনা খাতুনের নামে মুক্তাগাছা থানায় মামলা করেন তার পরিবার।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে মুক্তাগাছা থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, ধর্ষণ ও গোপনে চিত্র ধারণ করে রাখার অভিযোগে পুলিশের ভূয়া এসআই নামধারী জমশেদ আলী শাকিব ও তার স্ত্রী আমেনা খাতুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও পর্ণোগ্রাফী আইনে মামলা হয়েছে।

Shares