আজ সোমবার , ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

গরীবের আশার বাতিঘর হাজী মোশারফ হালুয়াঘাটে পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি পুঁততে গিয়ে মৃত্যু-১, আহত-১ জাতীয় ভাবে”স্বপ্নজয়ী মা” নির্বাচিত হলেন জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জের অবিরণ নেছা ৬১০৮ ভোটের ব্যবধানে হামিদ বিজয়ী। শেখ রাসেল ও মনোয়ারা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হালুয়াঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনঃ প্রবীণে প্রবীণে লড়াই এম্বুলেন্সে করে মাদক পাচারকালে ২৪০ বোতল ভারতীয় মদসহ একজন আটক এমপি মাহমুদুল হক সায়েমকে সি.আই.পি শামিমের সংবর্ধনা হালুয়াঘাটে ঈদে বাড়ি ফেরার পথে লাশ হল স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালুয়াঘাটের স্থলবন্দর দিয়ে ২৭টি পণ্যের আমদানী রপ্তানীর পরিকল্পনা-এমপি সায়েম হালুয়াঘাটে ২৭ হাজার দুস্থ অসহায় পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ১৩ বছর পর পদত্যাগ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হালুয়াঘাটে ফেইসবুক গ্রুপে কোরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা। পুরস্কার বিতরণ ‘কৃষ্ণনগরের কৃষ্ণকেশীর ‘বেহিসেবি রঙ.. হিমাদ্রিশেখর সরকার হালুয়াঘাট থেকে ফুলপুর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা নির্মাণসহ সড়ানো হচ্ছে অস্থায়ী বাস কাউন্টার জনগণের অধিকার আদায় না হওয়া পর্যন্ত বিএনপি রাজপথে থাকবে-প্রিন্স

হালুয়াঘাটে শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যার মূল আসামী কমিশনার শামছুসহ সকলের গ্রেফতার দাবী

প্রকাশিতঃ ৮:১২ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১,৫৭৫ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ
ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার দক্ষিন মনিকূড়া গ্রামে নাফি আল নাজরান (১৮) নামে এক পলিটেকনিক্যাল ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী কমিশনার শামসুদ্দিনসহ অন্যান্য আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে পোষ্টার টানিয়ে প্রতিবাদ জানান নিহত নাজরানের পক্ষে এলাকাবাসী। দেখা যায়, ইতিমধ্যে হালুয়াঘাট বাজারের বিভিন্ন স্থানে কমিশনার শামছুসহ বাকী আসামীদের ছবি দিয়ে পোষ্টার লাগানো হয়। নিহত নাজরানার পরিবারের সাথে কথা বললে তারা বাকী আসামীদের গ্রেফতারের দাবী জানান। গত ১৭ আগষ্ট শিক্ষার্থী খুন হলে তৎক্ষনাৎ ৪ জনকে আটক করলেও বাকী আসামীদেরকে এখনো আটক হয়নি বলে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন নিহত নাজরানের পরিবার।
নাজরানের খুনের ঘটনায় মামলা দায়ের করেন নিহতের পিতা নাজমুল হুদা। এদের মাঝে চারজন সিয়াম, সুলাইমান, অয়ন, হিমেলকে প্রথমদিনেই আটক করে পুলিশ। হত্যার অভিযুক্ত আসামীরা হলেন, কমিশনার শামসুদ্দিন (৫০), দক্ষিন মনিকূড়ার হালিমের পুত্র রাকিবুল হাসান সুমন (১৬), সিদ্দিকের পুত্র সিয়াম (১৫), হালিমের পুত্র মেহেদি হাসান হিমেল (১৫), মজিবরের পুত্র অয়ন হাসান (১৬), গোলাম হোসেনের পুত্র ছাইফুল (১৫),আশিষ (১৬), আকনপাড়ার শামসুল আলম লিমনের পুত্র তাজ (১৬), আব্দুল মতিনের পুত্র সোহাগ (১৫), দক্ষিন মনিকূড়ার আলামিন (১৬), সন্ধাকুড়ার খাইরুল ইসলাম ভুট্টুর পুত্র সানি (১৬), পূর্ব মনিকূড়ার জামাল উদ্দিনের পুত্র রুকন (১৬)। উল্লেখ্য ঘটনার দিন শুক্রবার সন্ধায় নাদিয়া হক ঋতু নামে এক মেডিক্যাল শিক্ষার্থী মোবাইলের গেইম পেইজে “ক্লেস অফ ক্লেনস” নামে একটি মোবাইল গেইম খেললে সেখানে ঐ একই গ্রুপে উত্তরবাজার এলাকার হালিমের পুত্র সুমন(১৬) বাজে মন্তব্য করেন। পরে ঋতু বিষয়টি তার খালাতো ভাই নিহত নাজরানকে জানালে নাজরান তার প্রতিবাদ করেন। সেই আক্রোশের জের ধরে শুক্রবার রাত সাতটার দিকে সুমন তার সঙ্গীয় বন্ধুদের নিয়ে নাজরানকে বেধড়ক মারপিট করেন। পরে ভোর পাঁচটায় হালুয়ঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মারা যায়। নিহত নাজরান গৌরিপুর পলিটেকনিক্যাল কলেজের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আর ঋতু দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থী। ঋতুর ধোবাউড়া রোদের এমদাদ মেম্বারের কন্যা।

Shares