আজ বুধবার , ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সমিতির কমিটি গঠন হালুয়াঘাটে নকল স্বর্ণ বিক্রি করায় এক প্রতারককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ অসুস্থ পিতা-মাতার ভরসা চা বিক্রেতা বাক প্রতিবন্ধী ‘মনিষা’ নালিতাবাড়ীতে ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে ১৮ সদস্য বিশিষ্ট আংশিক কমিটি ঘোষণা হালুয়াঘাটে ৯০ পিচ ইয়াবাসহ আটক -০২ হালুয়াঘাটে নারী কৃষকদের জন্য কারিতাস’র আয়োজনে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত নালিতাবাড়ী আ’লীগের সভাপতি মোস্তফা সম্পাদক ওয়াজ কুরুণী অবৈধ বালু উত্তোলন। নালিতাবাড়ীতে ১০ ড্রেজার ধ্বংস নালিতাবাড়ীতে নানা আয়োজনে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ অনুষ্ঠিত নালিতাবাড়ীতে অপহরণ নাটক নালিতাবাড়ীতে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচিতে ঘোষ গ্রহণের অভিযোগ ব্যর্থতা স্বীকার করে সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে-প্রিন্স হালুয়াঘাটে ভারতীয় মদসহ আটক-৩ হালুয়াঘাটে শিশুকে বেধড়ক পিটুনি। শিক্ষক আটক

নালিতাবাড়ীতে অপহরণ নাটক

প্রকাশিতঃ ১০:০৯ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৩, ২০২২ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৬২ বার

মোঃ দৌলত হোসেন নালিতাবাড়ীঃ শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে
দলিল জালিয়াতির মামলায় ফেঁসে যাওয়ার ভয়ে প্রতিপক্ষ বাদীকে চাপে ফেলে মামলাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে অপহরণ নাটক সাজিয়ে মিথ্যা অভিযোগ দায়েরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষরিত একটি আবেদন করা হয়েছে নালিতাবাড়ী থানায়।
জানা গেছে, শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার নন্নী ইউনিয়নের বনকুড়া গ্রাম। এ গ্রামের একজন বয়োজ্যেষ্ঠ বাসিন্দা মোকাদ্দেস। একই গ্রামের বাসিন্দা মৃত বেলায়েত হোসেনের নাতি আল আমিন। গত ২০১৬ সালে মোকাদ্দেস ও শামছুন্নাহার নামে এক নারী মিলে দাদার নামে থাকা পৈত্রিক ওয়ারিশ সূত্রে প্রাপ্ত আল আমিনের এক একর জমি গোপনে জাল দলিল করে সমহারে লিখে নেন মোকাদ্দেস ও শামছুন্নাহার। তৎকালীণ ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা মামুনের সহযোগিতায় গোপনে করে নেন নামজারীও। একপর্যায়ে বিষয়টি প্রকাশ হয়ে পড়লে প্রকৃত মালিক আল আমিনের আবেদনের প্রেক্ষিতে একই বছরে ওই নামজারী বাতিল করেন তৎকালীন ভূমি কমিশনার লুবনা শারমিন। পরে ২০১৯ সালে জাল দলিলকারী মোকাদ্দেস ও শামছুন্নাহারের বিরুদ্ধে সিআর আমলি আদালতে জালিয়াতির মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী আল আমিন। এ মামলায় কিছুদিন হাজতবাসও করে অভিযুক্তরা।
বর্তমানে বিচারাধীন দলিল জালিয়াতির মামলায় দণ্ড হওয়ার ভয়ে মামলাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে ষড়যন্ত্রে নামে মোকাদ্দেস গং। তার ছেলে রজব আলীকে দিয়ে গত ২৬ অক্টোবর রাতে মিথ্যা অপহরণের নাটক তৈরি করে। ২৭ অক্টোবর ওই নাটকে অভিযুক্ত করে আল আমিনসহ এলাকার কতিপয় নিরীহ মানুষকে জড়িয়ে অভিযোগ করা হয় নালিতাবাড়ী থানায়।
এদিকে সাজানো এ ঘটনায় ফুঁসে ওঠে এলাকাবাসী। স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল্লাহসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ গতকাল ৩ নভেম্বর শালিশি বৈঠকে বসেন। বৈঠকে জাল দলিলকারী মোকাদ্দেস, এলাকায় নানা অপকর্ম করে বেড়ানো তার ছেলে রজব আলী ও মিথ্যা অপহরণ মামলার বাদী অপর ছেলে রমজান আলীর বিরুদ্ধে প্রতিকার চেয়ে একটি গণস্বাক্ষরিত আবেদন তৈরি করে নাালিতাবাড়ী থানাসহ বিভিন্ন দফতরে দাখিল করেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল্লাহ জানান, রজব আলীসহ তার কয়েকজন সাঙ্গপাঙ্গ এলাকায় সবসময় মাদকসহ নানা ধরণের অপকর্ম করে বেড়ায়। প্রকাশ্যে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মানুষকে হুমকি দেয়। ফলে কেউ তাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলে না। প্রশাসনিকভাবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হলে মানুষ স্বস্তি পাবে। একই কথা বলেন নন্নী ইউপি চেয়ারম্যান বিল্লাল হোসেন চৌধুরী

Shares