আজ বুধবার , ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সমিতির কমিটি গঠন হালুয়াঘাটে নকল স্বর্ণ বিক্রি করায় এক প্রতারককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ অসুস্থ পিতা-মাতার ভরসা চা বিক্রেতা বাক প্রতিবন্ধী ‘মনিষা’ নালিতাবাড়ীতে ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে ১৮ সদস্য বিশিষ্ট আংশিক কমিটি ঘোষণা হালুয়াঘাটে ৯০ পিচ ইয়াবাসহ আটক -০২ হালুয়াঘাটে নারী কৃষকদের জন্য কারিতাস’র আয়োজনে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত নালিতাবাড়ী আ’লীগের সভাপতি মোস্তফা সম্পাদক ওয়াজ কুরুণী অবৈধ বালু উত্তোলন। নালিতাবাড়ীতে ১০ ড্রেজার ধ্বংস নালিতাবাড়ীতে নানা আয়োজনে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ অনুষ্ঠিত নালিতাবাড়ীতে অপহরণ নাটক নালিতাবাড়ীতে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচিতে ঘোষ গ্রহণের অভিযোগ ব্যর্থতা স্বীকার করে সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে-প্রিন্স হালুয়াঘাটে ভারতীয় মদসহ আটক-৩ হালুয়াঘাটে শিশুকে বেধড়ক পিটুনি। শিক্ষক আটক

হালুয়াঘাটে শিশুকে বেধড়ক পিটুনি। শিক্ষক আটক

প্রকাশিতঃ ৬:১৯ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৩, ২০২২ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩,৪৬২ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে ক্লাসের পড়া না পাড়ায় প্রথম শ্রেণীর এক মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে বেধড়ক পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগে উঠেছে জাফর আলী নামে এক মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় নির্যাতিত শিশুর পরিবারের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দায়ের করেন শিশুটির পিতা সাইদুল ইসলাম রুবেল। পরে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ওসি শাহিনুজ্জামান খানের নেতৃত্বে এস আই শামসোদ্দোহা সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষক আবু জাফরকে আটক করে।আটকের পর হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎধীন অবস্থায় শিশুটিকে দেখতে যান হালুয়াঘাট থানার ওসি শাহিনুজ্জামান খান। এ সময় শিশুর স্বজনদেরকে ন্যায় বিচার পাওয়ার প্রতিশ্রুতিও দেন। এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুরে আবু জাফরকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়। পুলিশ ও শিশুটির পিতা সাইদুল ইসলাম রুবেল ও মামলা সুত্রে জানা যায়, হালুয়াঘাট উপজেলার উত্তর খয়রাকুড়ি গ্রামের রওজাতুল আতফাল নূরানী হাফেজিয়া মাদ্রাসার প্রথম শ্রেণীতে পড়তেন জুনাঈদ।প্রতিদিনের ন্যায় বুধবার সকালে মাদ্রাসায় যান নয় বছরের এই নির্যাতিত শিক্ষার্থী। ঐদিন ক্লাসের পড়া না পাড়ায় শিশু জুনাঈদকে কাঠের লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে আহত করেন মাদ্রাসার শিক্ষক আবু জাফর সিকদার এমন দাবী করা হয় জুনাঈদের পরিবারের পক্ষ থেকে।পরে খবর পেয়ে শিশুর স্বজনরা আহত জুনাঈদকে উদ্ধার করে হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জানতে চাইলে জুনাঈদ বলেন, ক্লাসে পড়া না পারার কারনে তাকে নির্মমভাবে পিটিয়েছে শিক্ষক আবু জাফর।এ সময় শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্নও দেখান তিনি।পিটানোর বিষয়ে জানতে চাইলে হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত মেডিক্যাল অফিসার শাহাদত হোসেন বলেন, শিশু জুনাঈদের শরীরের কয়েক জায়গায় বেতের দ্বারা আঘাতের চিহ্ন রয়েছে, তাই তাকে ভর্তি করা হয়েছে। মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে মাদ্রাসার পরিচালক রুবেল বলেন, শিশু জুনাঈদ এক মেয়ের কাছে প্রায়ই চিঠি দেয়। তাই তাকে পিটিয়েছে অভিযুক্ত শিক্ষক আবু জাফর।শিশু জুনাঈদের বিরুদ্ধে মুঠোফোনে একই অভিযোগ করেন অভিযুক্ত শিক্ষক আবু জাফর। সামান্য পিটানো হয়েছে বলে দাবী আবু জাফরের।হালুয়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুজ্জামান খান বলেন, অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথেই অভিযান চালিয়ে শিক্ষক আবু জাফরকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতন আইনে মামলা রুজো হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে আটককৃত আসামীকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

Shares