আজ বুধবার , ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতে বালু জব্ধ নালিতাবাড়ী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সমিতির কমিটি গঠন হালুয়াঘাটে নকল স্বর্ণ বিক্রি করায় এক প্রতারককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ অসুস্থ পিতা-মাতার ভরসা চা বিক্রেতা বাক প্রতিবন্ধী ‘মনিষা’ নালিতাবাড়ীতে ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে ১৮ সদস্য বিশিষ্ট আংশিক কমিটি ঘোষণা হালুয়াঘাটে ৯০ পিচ ইয়াবাসহ আটক -০২ হালুয়াঘাটে নারী কৃষকদের জন্য কারিতাস’র আয়োজনে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত নালিতাবাড়ী আ’লীগের সভাপতি মোস্তফা সম্পাদক ওয়াজ কুরুণী অবৈধ বালু উত্তোলন। নালিতাবাড়ীতে ১০ ড্রেজার ধ্বংস নালিতাবাড়ীতে নানা আয়োজনে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ অনুষ্ঠিত নালিতাবাড়ীতে অপহরণ নাটক নালিতাবাড়ীতে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচিতে ঘোষ গ্রহণের অভিযোগ ব্যর্থতা স্বীকার করে সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে-প্রিন্স হালুয়াঘাটে ভারতীয় মদসহ আটক-৩

দলীয় পদ হারালেন শেরপুর জেলা পরিষদের প্রশাসক রুমান।

প্রকাশিতঃ ৯:১৩ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৪৫ বার

মোঃ দৌলত হোসেন নালিতাবাড়ী শেরপুর সংবাদ দাতা।
দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে দ্বিতীয় বারের মতো জেলা পরিষদের নির্বাচনে এসে দলীয় পদ হারালেন শেরপুর জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান প্রশাসক হুমায়ুন কবীর রুমান। মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে উৎসব কমিউনিটি সেন্টারে জেলা আওয়ামী লীগের এক জরুরি বৈঠক শেষে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠকে জেলা আওয়ামী লীগের ৫৪ জন নেতা উপস্থিত ছিলেন। তবে এ সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে শেরপুর সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ছানোয়ার হোসেন ছানু সভাস্থল ত্যাগ করেন।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্রের ৪৭(১১) ধারা অনুযায়ী দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায় এমনিতেই বহিস্কৃত হয়েছেন হুমায়ুন কবীর রুমান। তাই জেলা আওয়ামী লীগ তাকে দলের সকল পদ থেকে অব্যহতি দিয়েছে।
দলীয় সূত্র জানায়, এর আগেই তিনি দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছিলেন। কিন্তু দল তাকে ওইবার সাধারণ ক্ষমা করেছিল। তবে দ্বিতীয়বার আবারও দলের সিদ্ধান্ত ভঙ্গ করায় তার বিরুদ্ধে জেলা আওয়ামী লীগের সভায় এ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, এবার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট চন্দন কুমার পাল ও সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন কবীর রুমানসহ ৬ জন দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশি হন। গত নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী এবং শেরপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র হুমায়ন কবীর রুমানের কাছে হেরে যাওয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট চন্দন কুমার পালকে এবারও আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দেয়। তিনি আনারস প্রতীক নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন। অন্যদিকে সাবেক পৌর মেয়র, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বর্তমান প্রশাসক জেলা আওয়ামী লীগের সদ্য বহিস্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ন কবীর রুমান দ্বিতীয় বারের মতো দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

Shares