আজ বৃহস্পতিবার , ২৬শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

হালুয়াঘাটে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু ওজনে ধান বেশী নেয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ নালিতাবাড়ীতে মাংস বিক্রেতাদের জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত নালিতাবাড়ীতে অগ্নিকাণ্ডে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বসতঘর পুড়ে ক্ষয়ক্ষতি “মুক্তিযুদ্ধে হালুয়াঘাট” গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত প্রকল্পের পাওনা টাকা দাবী: ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশে হামলার অভিযোগ “মুক্তিযুদ্ধে হালুয়াঘাট” গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত নালিতাবাড়ীর মাদক ব‍্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব হালুয়াঘাটে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত শেরপুরে স্বামী পরিত্যক্তা তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: গ্রেফতার এক নালিতাবাড়ীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন নালিতাবাড়ীতে র‍্যাবের হাতে বিদেশী মদসহ যূবক গ্রেফতার তিনানী বাজার থেকে সয়াবিন তেল জব্ধ,লাখ টাকা জরিমানা নালিতাবাড়ী প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণের অভিযোগে একজন আটক নালিতাবাড়ীতে গতি রোধ করে গরু ব্যবসায়ীর উপর বিজিবি’র গুলি, আহত তিন

হালুয়াঘাটে কেজি ধরে তরমুজ বিক্রি। ক্রেতাদের ক্ষোভ

প্রকাশিতঃ ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ | এপ্রিল ১২, ২০২২ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৪০ বার

ওমর ফারুক সুমন: গরমে স্বস্তির রসালো ফল তরমুজ নিয়ে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে সৃষ্টি হয়েছে নৈরাজ্য। গরমকে পুঁজি করে মানুষকে এক ধরনের জিম্মি করেই চলছে কেজি ধরে তরমুজ বেচাকেনা। পিস হিসাবে তরমুজ ক্রয়-বিক্রয় হলেও পাইকার ও খুচরা ব্যবসায়ীরা বাড়তি মুনাফা লাভের আশায় বিক্রি করছে কেজি ধরে। বিশেষ করে এখন চলছে রোজার মাস, সেই সঙ্গে চৈত্রের কাঠফাটা গরম। আর গরমে রোজার দিনে পানি ও পানিজাতীয় ফল তরমুজের প্রতি রয়েছে মানুষের আলাদা আগ্রহ। আর এই সুযোগে এক শ্রেণীর অসাধু মাহাজনরা লুটে নিচ্ছে অতিরিক্ত মুনাফা। হালুয়াঘাটের বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে তরমুজ। প্রশাসনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে এমন কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে অসাধু ব্যবসায়ীরা। একটি তরমুজের ওজন ৫ কেজি থেকে ১২ কেজি। সেই হিসেবে এক পিচ তরমুজ বিক্রি হচ্ছে তিনশত থেকে পাঁচশত টাকায়। এদিকে কেজি ধরে তরমুজ বিক্রি করায় ক্রেতাদের মাঝে সৃষ্টি হয়েছে প্রচন্ড ক্ষোভ। তরমুজ ক্রয় করতে আসা সাইদুল ইসলাম (৪৫) নামে এক ক্রেতা বলেন, অনেকটা জিম্মি করেই ব্যবসায়ীরা কেজি ধরে তরমুজ বিক্রি করে যাচ্ছে। কেজিতে তরমুজ ক্রয় করতে গেলে দাম বেশি দিতে হয় ব্যবসায়ীদের। আলম (৩৮) নামে অপর আরেক ক্রেতা বলেন, সারাজীবন পিচ হিসেবে তরমুজ কিনে আসলাম, আর এখন কেজি ধরে তরমুজ কিনতে হয়। এ নিয়ে প্রচন্ড ক্ষোভ ক্রেতাদের। তরমুজ ব্যবসায়ীদের জিজ্ঞেস করলে তাদের দাবী, ক্রেতারাই কেজি ধরে তরমুজ ক্রয় করতে চান। উল্টো ক্রেতাদের উপরই দোষ চাপিয়ে দেন ব্যবসায়ীরা। হালুয়াঘাট পৌর মেয়র খাইরুল আলম ভুঁঞা খুররম বলেন, ব্যবসায়ীরা যদি কেজি ধরে তরমুজ বিক্রি করে থাকে তাহলে কঠোর হস্তে তা বন্ধ করা হবে।

Shares