আজ শনিবার , ১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৯শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ীর মাদক সম্রাট পিচ্চি খোকন আটক শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে বিশ্ব হাতি দিবস পালিত নালিতাবাড়ীতে কৃষি মেলার উদ্ভোধন ইকোপার্কে বেড়াতে গিয়ে খালু কর্তৃক ভাগ্নী ধর্ষণের শিকার শ্রীবর্দীতে পানিতে ডুবে প্রতিবন্ধী শিশুর মৃত্যু মেয়ের খুনের বিচার চাইলেন বাবা বাউফলে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নালিতাবাড়ীতে বন্য হাতির আক্রমণে কৃষকের মৃত্যু দাশপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি আজম, সম্পাদক মজিবর নালিতাবাড়ীর নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর নিখোঁজ শিক্ষার্থী উদ্ধার নালিতাবাড়ীতে গণহত্যা দিবস পালিত দলিল প্রতি অতিরিক্ত ফি ১০ হাজার টাকা। প্রতিবাদে ধোবাউড়ায় সংবাদ সম্মেলন রামচন্দ্রকুড়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচারণায় বাঁধা: সংঘর্ষ, গাড়ি ভাংচুর, আহত হালুয়াঘাটে গাছের সাথে শত্রুতা হালুয়াঘাটে আরও ২৯ জন ভূমিহীনকে জমিসহ ঘর প্রদান

প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ভিক্ষুক সালেমুন নেছার বাড়িতে ইউ.এন.ও

প্রকাশিতঃ ৮:১২ অপরাহ্ণ | জুলাই ২০, ২০২১ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৭৯ বার

ওমর ফারুক সুমনঃ প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ভিক্ষুক সালেমুন নেছার বাড়ীতে যান হালুয়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রেজাউল করিম। আজ বিকেলে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ তৌহিদুর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে ঐ বৃদ্ধার বাড়ীতে উপস্থিত হয়ে তার হাতে নগদ টাকা ও খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন। একই সাথে ভিক্ষাবৃত্তি ছেড়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার জন্যেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রদক্ষেপ গ্রহণ করেন। সালেমুন নেছার কাছ থেকে ফিরে এসে এ তথ্য নিশ্চিত করেন এসিল্যান্ড তৌহিদুর রহমান ও ইউ.এন.ও রেজাউল করিম। । প্রশাসনের এই দুই কর্মকর্তা জানান, ভিক্ষুক সালেমুন নেছা বয়স বেশী ও শারিরীকভাবে দুর্বল। তার দেখভাল করার কেউ নেই। এই মুহুর্তে ঘরের চেয়ে তার খাদ্যের সংস্থানটা জরুরী। তার বাকী জীবনে যাতে খাদ্যের চিন্তা না করতে হয় সে জন্যে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। ভিক্ষুক সালেমুন নেছাকে রান্নাবান্না করে খাওয়াবে এই ব্যবস্থাও করা হয়েছে। একই সাথে তার চিকিৎসাসহ নিয়মিত খোজ খবর নেয়া হবে এমনটাই জানান তারা। উল্লেখ্য ২০২০ সালের ৪ জুন তারিখে সালেমুন নেছা বৃষ্টিতে ভিজে ভিক্ষা করতেছিলো এমন একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হয়। পরে ইউ.এন.ও রেজাউল করিম ও তৎকালীন এসিল্যান্ড তানভির আহমেদ বৃদ্ধার খোজ খবর নেন, তাকে খাবার, চিকিৎসা ও বস্ত্রের ব্যবস্থা করে স্থায়ী পুনবার্সন করার প্রতিশ্রুতিও দেন। কিন্তু দীর্ঘ এক বছরে ঐ ভিক্ষুকের জন্যে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করায় এ নিয়ে গত ১৯ জুলাই দৈনিক মানবজমিনে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। যার প্রেক্ষিতে ইউ.এন.ও রেজাউল করিমের কাছে ঘটনাটি পুনরায় নজরে আসলে আজ বিকেলে ভিক্ষুক সালেমুন নেছার বাড়ীতে উপস্থিত হন। সালেমুন নেছার বাড়ী পূর্ব গোবড়াকুড়া (শাপলা বাজার) গ্রামে।

Shares