আজ শুক্রবার , ৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭ হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিএনপি নেতা রুবেল’র অক্সিজেন সিলিন্ডার ও চিকিৎসা সামগ্রী প্রদান বাউফলে খাদ্য ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী পেল ২৬২ দুস্থ পরিবার হালুয়াঘাটে ১০৮০ টাকায় এম্ভুলেন্স সেবা। উদ্ভোধন করলেন এমপি জুয়েল আরেং হালুয়াঘাট ডোবা থেকে বৃদ্ধা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার বাউফল প্রেসক্লাবের সভাপতিকে হুমকি বাউফলে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেপ্তার হালুয়াঘাটে গত দুইদিনে তিন নারীর আত্মহত্যা! হালুয়াঘাটে পারিবারিক দ্বন্ধে দুই নারীর আত্মহত্যা! হালুয়াঘাটে পারিবারিক দ্বন্ধে দুই নারীর আত্মহত্যা করোনা সন্দেহে লাশ নেয়নি পরিবার, দাফন করল ছাত্রলীগ বাউফলে ইশা ছাত্র আন্দোলনের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ভিক্ষুক সালেমুন নেছার বাড়িতে ইউ.এন.ও ভিক্ষুক সালেমুন নেছা’র আজও হয়নি পুনর্বাসন

রাস্তায় পড়ে থাকা পাগলি’র দায়িত্ব নিলেন ইউ.এন.ও

প্রকাশিতঃ ১১:১৬ অপরাহ্ণ | জুলাই ১৪, ২০২১ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৮ বার

ওমর ফারুক সুমনঃ বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল তার কবিতায় ফুটিয়ে তুলেন সৃষ্টির সেরা জীব হচ্ছে মানুষ। সড়কের দ্বারে অবহেলায় পড়ে থাকা সেই মানুষটিও একই স্রষ্টার সৃষ্টি। এমনই একজন ছিন্নমুল মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে একজন নির্বাহী কর্মকর্তা প্রমান করলেন মানবতা হারিয়ে যায়নি। মানবতা নামক শব্দটি আছে, থাকবে। যার প্রমান রাখলেন হালুয়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রেজাউল করিম ও এসিল্যান্ড তৌহিদুর রহমান। কয়েক মাস ধরে অনাহারে-অর্ধাহারে বিদ্যুতের পিলারের উপরে পড়ে থাকা সেই পাগলির জন্যে করলেন চিকিৎসা ও খাবারের ব্যবস্থা। সরেজমিনে স্থানীয়দের সাথে কথা বললে তারা জানান, এই নারী হালুয়াঘাট পৌর শহরের পুরাতন মার্কাস মসজিদের পাশে দীর্ঘদিন যাবত অনাহারে অর্ধাহারে পড়ে ছিলো। তার বয়স পঞ্চাশ উর্ধ হবে। নাম পরিচয় বলতে পারেনা সে। এ অবস্থায় এই নারীকে নিয়ে কংশ টিভিতে সপ্তাহ খানেক আগে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এক পর্যায়ে বিষয়টি নজরে আসে প্রশাসনের। যার ধারাবাহিকতায় আজ সকালে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ তৌহিদুর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে ইউ.এন.ও রেজাউল করিম ছুটে যান ঐ পাগলি মায়ের কাছে। হাতে তুলে দেন খাবার। একই সাথে হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মুনির আহমেদের পরামর্শে ব্যবস্থা করেন সু’চিকিৎসার-। হাসপাতালে নির্ধারিত একটি বিছানায় সেবিকাদের নিবিড় পরিচর্যায় এই পাগলি মায়ের জন্যে চলছে সেবা। এ বিষয়ে হালুয়াঘাট নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রেজাউল করিমের সাথে কথা বলতে তিনি জানান, আমরা সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে জানতে পারি যে, সড়কের পাশে কয়েক মাস যাবত এক মহিলা অবস্থান করছে। রোদ-বৃষ্টিতেও একই স্থানে রাত্রি যাপন করে। খবর পেয়ে আমরা গিয়ে তার হাতে খাবার তুলে দিই, পরে সরকারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্যে ভর্তি করি। চিকিৎসা পেলে হয়তো সুস্থ্য হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারে এমন মন্তব্য করেন তিনি। ইউ.এন.ও বলেন, সংসারের দৈন্য দশা, পারিবারিক অশান্তি ও বিভিন্ন ঘটনার প্রেক্ষিতে অনেক পিতা মাতা’ই মেন্টালি সর্ট খেয়ে পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হতে পারে। তাই সম্প্রীতির বন্ধনটা বৃদ্ধি করা জরুরি করা উচিৎ বলে মন্তব্য করেন তিনি। মানবিক ইউ.এন.ও’র এমন উদারতায় প্রশংসিত হচ্ছেন সর্বস্তরের মানুষের কাছে।

Shares