আজ শুক্রবার , ৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭ হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিএনপি নেতা রুবেল’র অক্সিজেন সিলিন্ডার ও চিকিৎসা সামগ্রী প্রদান বাউফলে খাদ্য ও স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী পেল ২৬২ দুস্থ পরিবার হালুয়াঘাটে ১০৮০ টাকায় এম্ভুলেন্স সেবা। উদ্ভোধন করলেন এমপি জুয়েল আরেং হালুয়াঘাট ডোবা থেকে বৃদ্ধা নারীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার বাউফল প্রেসক্লাবের সভাপতিকে হুমকি বাউফলে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী গ্রেপ্তার হালুয়াঘাটে গত দুইদিনে তিন নারীর আত্মহত্যা! হালুয়াঘাটে পারিবারিক দ্বন্ধে দুই নারীর আত্মহত্যা! হালুয়াঘাটে পারিবারিক দ্বন্ধে দুই নারীর আত্মহত্যা করোনা সন্দেহে লাশ নেয়নি পরিবার, দাফন করল ছাত্রলীগ বাউফলে ইশা ছাত্র আন্দোলনের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ভিক্ষুক সালেমুন নেছার বাড়িতে ইউ.এন.ও ভিক্ষুক সালেমুন নেছা’র আজও হয়নি পুনর্বাসন

হালুয়াঘাটে সরকারী বই বিতরণে টাকা গ্রহণের অভিযোগ

প্রকাশিতঃ ৪:১৪ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০২১ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৮৪ বার

ওমর ফারুক সুমনঃ মাধ্যমিক স্তরে সরকারীভাবে বিনামূল্যে বই বিতরণের কথা থাকলেও তা না করে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা গ্রহণ করে বই বিতরণের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার পাবিয়াজুড়ী স্কুল এন্ড কলেজে। টাকা গ্রহণের বিষয়টি অভিযোগ আকারে প্রকাশ ঘটলে তা ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করে প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অদ্যক্ষ শাহজাদ সারোয়ার। ঘটনা আড়াল করতে টাকা গ্রহণের বিষয়টি দেখানো হয় শিক্ষার্থীর ভর্তি খাতে। মঙ্গলবার সরেজমিনে বিদ্যালয়ে গেলে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছ থেকে মেলে এমন তথ্য। এ নিয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের পক্ষে ৭৮ জন অভিভাবক বাদী হয়ে হালুয়াঘাট উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে শিক্ষা অফিসার মোঃ জাকির হোসেন মোল্লা গত মঙ্গলবার বিদ্যালয়ে তদন্তে যান। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, সরকারী নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে পাবিয়াজুড়ি স্কুল এন্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ শাহজাদ সারোয়ার সরকারী বই বিতরণ করেছেন। প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে গ্রহণ করেছেন দুইশত টাকা। এ নিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাভবকদের মাঝে বিরাজ করছে চরম ক্ষোভ। তারই ধারাবাহিকতায় গত ২৪ জানুয়ারী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ক্ষুব্ধ অভিভাবকরা। টাকা না দিলে বই বিতরণ করা হবেনা এমন অভিযোগও রয়েছে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে। নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সোহাগী আক্তার বলেন, বই বিতরণের সময় দুইশত টাকার বিনীময়ে বই নিয়েছেন। একই কথা বলেন, ৭ম শ্রেণীর জান্নাতুল ফেরদৌসী, আসফিত আরা মিম, ৬ষ্ঠ শ্রেণীর আছিয়া আক্তার। তাদের দাবী টাকা না দিলে বই পাইনি কেউ। প্রত্যেক শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে দুইশত করে টাকা গ্রহণ করেছেন এমন অভিযোগ উপস্থিত শিক্ষার্থীদের। এ ঘটনায় পাবিয়াজুড়ী স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ শাহজাদ সারোয়ার বই বিতরণে টাকা গ্রহণ করেছেন এমনটা অস্বীকার করে বলেন, ভর্তি বাবদ দুইশত করে টাকা রশিদের মাধ্যমে গ্রহণ করেছেন। তবে সকল ছাত্রের কাছে রশিদ পৌছানো সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন, প্রতি বছরই ভর্তি বাবদ টাকা নেয়া হয়। এইবারও কমিটির সাথে মৌখিক আলোচনা করেই টাকা গ্রহণ করেছেন। প্রতিষ্ঠানের সভাপতি আলহাজ্ব আবু সিদ্দিক বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা বিনামূল্যে বই বিতরণের ঘোষনা দিয়েছেন। তিনি বলেন, আমিও শুনেছি, প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ শাহজাদ সারোয়ার বই বিতরণে প্রত্যেক ক্লাসের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে দুইশত করে টাকা নিয়েছেন। যদি টাকার বিনীময়ে বই বিতরণ করা হয়ে থাকে তাহলে কর্তৃপক্ষের নিকট শাস্তি প্রদানের দাবী জানিয়েছেন তিনি। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ জাকির হোসেন মোল্লা বলেন, বই বিতরণে টাকা গ্রহণ করেছেন এমন অভিযোগের প্রাথমিক সত্যটা পাওয়া গেছে। তদন্ত প্রতিবেদন উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে পাঠানো হবে। তারাই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

Shares