আজ সোমবার , ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ইকোপার্কে বেড়াতে গিয়ে খালু কর্তৃক ভাগ্নী ধর্ষণের শিকার শ্রীবর্দীতে পানিতে ডুবে প্রতিবন্ধী শিশুর মৃত্যু মেয়ের খুনের বিচার চাইলেন বাবা বাউফলে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নালিতাবাড়ীতে বন্য হাতির আক্রমণে কৃষকের মৃত্যু দাশপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি আজম, সম্পাদক মজিবর নালিতাবাড়ীর নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর নিখোঁজ শিক্ষার্থী উদ্ধার নালিতাবাড়ীতে গণহত্যা দিবস পালিত দলিল প্রতি অতিরিক্ত ফি ১০ হাজার টাকা। প্রতিবাদে ধোবাউড়ায় সংবাদ সম্মেলন রামচন্দ্রকুড়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচারণায় বাঁধা: সংঘর্ষ, গাড়ি ভাংচুর, আহত হালুয়াঘাটে গাছের সাথে শত্রুতা হালুয়াঘাটে আরও ২৯ জন ভূমিহীনকে জমিসহ ঘর প্রদান ময়মনসিংহে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামী আটক। প্রধান মন্ত্রীর উপহার চান ভাগ্য বিড়ম্বিত বিধবা রেনুবালা! ২৫ বৎসরেও হয়নি বিলকিছের প্রতিবন্ধী ভাতা

চেয়ারম্যান ইরাদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

প্রকাশিতঃ ১:৩৯ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ০৮, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৭৮ বার

ওমর ফারুক সুমনঃ ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে আব্দুল কাদির (৬৫) নামে এক বৃদ্ধকে দিনদুপুরে কুপিয়ে হত্যার প্রতিবাদে জড়িত চেয়ারম্যান জিহাদ হোসেন সিদ্দিকী ইরাদসহ জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে স্থানীয়রা। আজ দুপুরে কয়েক হাজার নারী পুরুষের অংশ গ্রহণে উক্ত বিক্ষোভ মিছিলটি হালুয়াঘাট বাজারের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। বিক্ষোভ মিছিলে ১২নং স্বদেশী ইউনিয়নের ইউপিসদস্যসহ সকল শ্রেণী পেশার মানুষ অংশ নেয়। উল্লেখ্য গত বুধবার বিকেলে উপজেলার গাজিপুর গ্রামে বালু উত্তোলনের ঘটনায় বৃদ্ধ আব্দুল কাদিরকে প্রকাশে খুন করে ইউপি চেয়ারম্যান জিহাদ হোসেন সিদ্দীকি ইরাদ।পরে হালুয়াঘাট থানায় চেয়ারম্যান ইরাদকে প্রধান আসামী করে ১৬ জনের নামে খুনের মামলা রুজো হলে ওসি মাহমুদুল হাসানের নেতৃত্বে ঐ রাতেই অভিযান চালিয়ে চেয়ারম্যানসহ তিনজনকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। এদিকে পুলিশের জালে আটক হয়ে চেয়ার ইরাদ অনেক অপকর্মের স্বীকারোক্তিও দিয়েছে বলে জানা গেছে। ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে জন্ম দিয়েছেন বহু বিতর্কের। কারাগারে গিয়েছেন একাধিকবার। তবুও থেমে নেই তার অপরাধ সাম্রাজ্যের অপকর্ম। খুন, মাদক ব্যবসা, নারী নির্যাতন, লুটতরাজ, পুলিশের উপর আক্রমনসহ এমন কোনো অপকর্ম নেই যা তিনি করেননা।ইউনিয়ন পরিষদে ইয়াবা সেবনের আখরা বানিয়ে রেখেছেন। ইয়াবা বিক্রির অভিযোগে কয়েকবার আটকও হয়েছেন। অভিযোগ রয়েছে, তার কথার বাহিরে চললে ধরে নিয়ে যান নিজস্ব কামরায়। তার উপর চালানো হয় নির্যাতন। পরে মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়া পান নির্যাতিতরা। তার কথার অবাধ্য হলে কারও কেটে দেন পা, কারও হাত এমন বহু অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। বারবার অপরাধ করেও প্রমানের অভাবে পার পেয়ে যান অপরাধ সাম্রাজ্যের গড ফাদার চেয়ারম্যান ইরাদ। তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পাননা কেউ। পুলিশ জানায়, তার বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রয়েছে অর্ধ ডজন খানেক।চাঁদাবাজী, লুটতরাজ, মাদক, ইয়াবাসহ নানান অপরাধের ফিরিস্তি রয়েছে পুলিশের কাছে। চেয়ারম্যান ইরাদের শাসনের স্টাইলটা অনেকটা কুখ্যাত সন্ত্রাসী এরশাদ সিকদারের মতো এমন অভিযোগ কারও। পুলিশ বার বার আটক করে জেলখানায় পাঠালেও আইনের ফাঁক দিয়ে বের হয়ে আবার শুরু করে নানা অপকর্ম। তারই ধারাবাহিক তান্ডবে গত বুধবার বিকেলে প্রকাশ্যে দিবালোকে কুপিয়ে খুন করেছেন আব্দুল কাদির নামে ৬৫ বৎসরের এক বৃদ্ধকে।

Shares