আজ বৃহস্পতিবার , ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফলে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন বাউফলে জাতীয় মৎস সপ্তাহ শুরু হালুয়াঘাটে বজ্রপাতে মৃত্যু! বাবার লাশের পাশে দেড় বছরের শিশু ‘নুসাইবা’ হালুয়াঘাটে নির্মাণের বছরেই বক্স কালভার্ট ধ্বস! বাউফলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত ভিক্ষের টাকা গণনা করছিলো ভিক্ষুক। ইমাম বাসের চাপায় মৃত্যু ঐ ভিক্ষুকের শোক দিবসে হালুয়াঘাটে বিজিবি’র ত্রাণ বিতরণ বাউফলে সফিউল বারী বাবু’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭

বাউফলে শেষ মূহুর্তে কৌশলে চলছে বেচাকেনা

প্রকাশিতঃ ৫:৩৮ অপরাহ্ণ | মে ২৩, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১২৯ বার

তোফাজ্জেল হোসেন, বাউফল(পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: করোনা ভাইরাস সংক্রামন রোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলায় পটুয়াখালীর বাউফলে ঔষধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্যের দোকান ব্যাতীত অন্য সব ধরনের দোকান/ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কিংবা শপিংমল বন্ধের নির্দেশনা জারি করেন উপজেলা প্রশাসন। সরকারি সেই নির্দেশনা অমান্য করে দোকানপাট খোলা রাখেন ব্যবসায়ীরা। এ কারনে বিভিন্ন সময়ে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ব্যবসায়ীদের ও ক্রেতাদের অর্থদন্ডও প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহি ম্যাজিষ্ট্রেট উপজেলা নির্বাহি অফিসার জাকির হোসেন ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) আনিচুর রহমান বালী । তবুও থেমে নেই ব্যবসায়ীদের বেচাকেনা। কৌশলে প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন বেচাকেনার কাজ।
আজ শনিবার সকাল ১১ টার দিকে সরেজমিনে বাউফল পৌর সদরের হাচন দালাল মার্কেট, নূরিয়া সুপার মার্কেট ,হাইস্কুল রোডের জালাল প্লাজা সহ কয়েকটি মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে, ব্যবসায়ীরা দোকানের একটি শার্টার বন্ধ রেখে অপর শার্টারটি অর্ধেক পরিমান খোলা রেখে বাহিরের দোকানের সামনে বসে আছে দোকানিরা। ক্রেতারা আসলে কি লাগবে তা জিজ্ঞাসা করে নিশ্চিত হন প্রথমে। ক্রেতার চাহিদামত জিনিস দোকানে থাকেলেই কেবল ক্রেতাদের দোকানের ভিতরে প্রবেশ করানো হয়। পরে বন্ধ করে দেয়া হয় অর্ধ খোলা শার্টাটিও। এ ভাবে দোকানের ভিতরে বসেই চলছে বেচাকেনা। একই চিত্র দেখা গেছে উপজেলার কালাইয়া, বগা বন্দর ও কালিশুরী বন্দরেও। আরো দেখা গেছে, হাচন দালাল মার্কেটের ব্যবসায়ীরা ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করার খবর পেয়ে তড়িঘড়ি করে দোকানপাট বন্ধ করে পালিয়ে যায়। পরে ওই মার্কেটের রুহল আমিন নামে এক কাপড় ব্যবসায়ী ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহি ম্যজিষ্ট্রেট উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) আনিচুর রহমান বালী সঙ্গে থাকা এক কর্মীকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অপরাধে ওই দোকানটি সিলগালা করে দেন আদালত।
আদালত সূত্রে জানা গেছে, এর আগে গতকাল শুক্রবার সকালে বাউফল পৌরসদরের জালাল মার্কেটে অভিযান চালিয়ে দোকানীদের না পেয়ে আট ক্রেতাকে ৫’শ টাকা করে মোট ৪ হাজার টাকা এবং পরে দুপুরের দিকে নুরাইনপুর বাজারে দোকান খোলা রাখার দায়ে ৬ ব্যবসায়িকে ৩২ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন একই আদালত। এরও আগে গত বৃহস্পতিবার সকালে পৌর সদরের মোখলেছ ভবনের ৬ ব্যবসায়ীকে একই অপরাধে ৫৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন একই আদালত। তারও আগে গত বুধবার কালাইয়া বন্ধরের ৬ ব্যবসায়ি ও বাউফল পৌরসদরের হাচন দালাল মার্কেটের ৩ ব্যবসায়িকে মোট ৩৯ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালত।

Shares