আজ বৃহস্পতিবার , ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফলে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন বাউফলে জাতীয় মৎস সপ্তাহ শুরু হালুয়াঘাটে বজ্রপাতে মৃত্যু! বাবার লাশের পাশে দেড় বছরের শিশু ‘নুসাইবা’ হালুয়াঘাটে নির্মাণের বছরেই বক্স কালভার্ট ধ্বস! বাউফলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত ভিক্ষের টাকা গণনা করছিলো ভিক্ষুক। ইমাম বাসের চাপায় মৃত্যু ঐ ভিক্ষুকের শোক দিবসে হালুয়াঘাটে বিজিবি’র ত্রাণ বিতরণ বাউফলে সফিউল বারী বাবু’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭

মাদারিপুরে ১৫ বানর হত্যায় মামলা

প্রকাশিতঃ ৮:৫৮ অপরাহ্ণ | মে ০৬, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৮৩ বার

মাদারিপুরে ১৫ বানর হত্যায় মামলা

স্টাফ রিপোর্টারঃ মাদারীপুরের চরমুগরিয়ায় খাবারের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে ১৫টি বানরকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় দোষীদের বিচার দাবি করেছেন এলাকাবাসী। সামাজিক বন বিভাগের পক্ষ থেকে দুটি মামলা দায়ের করা হলে অপরাধীদের ধরতে মাঠে নেমেছে পুলিশ। প্রশাসন বলছে, এ ঘটনায় কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার বিকেলে মাদারীপুর পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যখাগদি এলাকায় কলা, মুড়ি, বিস্কুট, চিড়া বানরদের খাবার খেতে দিয়ে চলে যায় কয়েকজন যুবক। খাবার খেয়ে মুখ দিয়ে রক্ত বের হতে থাকে বানরগুলোর। মুহূর্তেই মাটিতে ঢলে পড়ে সন্ধ্যায় মারা যায় ১২টি বানর।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সামাজিক বন বিভাগের কর্মকর্তারা। পরে বুধবার সকালে ওই এলাকায় আরও ৩টি বানরের মরদেহ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় দোষীদের বিচার দাবি করেছেন স্থানীয়রা।
মাদারীপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ বদরুল আলম মোল্লা বলেন, এ ঘটনায় সদর মডেল থানায় ফৌজদারি ও বন্যপ্রাণী আইনে আলাদা দুটি মামলা দায়ের করেছে বন বিভাগ।
খাবারের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে বানরগুলো হত্যা করা হয়েছে উল্লেখ করে প্রশাসন বলছে, এ ঘটনায় কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।
মাদারীপুর সামাজিক বন বিভাগ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তাপস কুমার সেনগুপ্ত বলেন, বন্যপ্রাণী দমন আইনে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
মাদারীপুর জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, এমন নির্মম কাজ যারা করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করছি।
চরমুগরিয়ায় এলাকায় বসবাসরত দুই থেকে আড়াই হাজার বানরের জন্য নয়াচরে ২০১৪ সালে ১০ একর জমিতে নির্মাণ করা হয় ইকোপার্ক। তবে ১ কোটি ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ইকোপার্ক নির্মাণ করা হলেও বানরগুলোকে আজও সেখানে নিতে পারেনি বন বিভাগ।

Shares