আজ সোমবার , ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ইকোপার্কে বেড়াতে গিয়ে খালু কর্তৃক ভাগ্নী ধর্ষণের শিকার শ্রীবর্দীতে পানিতে ডুবে প্রতিবন্ধী শিশুর মৃত্যু মেয়ের খুনের বিচার চাইলেন বাবা বাউফলে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নালিতাবাড়ীতে বন্য হাতির আক্রমণে কৃষকের মৃত্যু দাশপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি আজম, সম্পাদক মজিবর নালিতাবাড়ীর নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর নিখোঁজ শিক্ষার্থী উদ্ধার নালিতাবাড়ীতে গণহত্যা দিবস পালিত দলিল প্রতি অতিরিক্ত ফি ১০ হাজার টাকা। প্রতিবাদে ধোবাউড়ায় সংবাদ সম্মেলন রামচন্দ্রকুড়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচারণায় বাঁধা: সংঘর্ষ, গাড়ি ভাংচুর, আহত হালুয়াঘাটে গাছের সাথে শত্রুতা হালুয়াঘাটে আরও ২৯ জন ভূমিহীনকে জমিসহ ঘর প্রদান ময়মনসিংহে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামী আটক। প্রধান মন্ত্রীর উপহার চান ভাগ্য বিড়ম্বিত বিধবা রেনুবালা! ২৫ বৎসরেও হয়নি বিলকিছের প্রতিবন্ধী ভাতা

হালুয়াঘাটে চাষীদের সবজি ক্ষেতে আগুন, প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবেদকের বক্তব্য

প্রকাশিতঃ ৩:২১ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ১৫, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৮৩ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃঃ ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার ২নং জুগলী ইউনিয়নের ঘিলাভুই গ্রামে সবজির দাম না পেয়ে ঝিঙ্গা ক্ষেতে আগুন দেয় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা এই শিরোনামে একটি প্রতিবেদন আনন্দ টিভিসহ দৈনিক মানবজমিন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। যা ছিলো অনভিপ্রেত ও অনাকাঙ্ক্ষি। সংবাদটি প্রচারিত হওয়ার পর পরই বিষয়টি নজরে আসে প্রশাসনের। তার পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল মঙ্গলবার সবজি ক্ষেত পরিদর্শনে আসেন ময়মনসিংহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ আব্দুল মাজেদ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর অতিরিক্ত পরিচালকের কার্যালয় ময়মনসিংহ অঞ্চলের উপ-পরিচালক মোঃ রেজাউল করিম ও হালুয়াঘাট উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ মাসুদুর রহমান। পরিদর্শন করতে আসা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বললে তারা জানান, প্রকৃতপক্ষে ঝিঙ্গা চাষীরা তাদের জমিতে আগুন দেয়নাই। তবে প্রতিকী সরুপ তারা মাত্র কয়েকটি গাছে আগুন দিয়েছিলো। এতে কৃষকরা কোনো ক্ষতিগ্রস্থ হয়নি। তারা জানান, করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাব সময়ে সারা দেশেই একটি প্রতিকূল অবস্থা বিরাজ করছে। এক্ষেত্রে সবজি চাষীরা একটু কম দামেই তাদের সবজি বিক্রি করতে হচ্ছে। এই সময়ে কৃষকদের হতাশা না হয়ে আগামী দিনে কৃষকরা যাতে সাফল্যের স্বপ্ন নিয়ে সবজি চাষ করতে পারে তার জন্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে সহযোগিতার আশ্বাস দেন। হালুয়াঘাট উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ মাসুদুর রহমান বলেন, আমি কৃষকদের সবজি চাষকৃত জমি পরিদর্শনে গিয়েছিলাম। বাস্তবে গিয়ে আনুমানিক ৬-৭ একর জমি পেয়েছি। আসলে ৬০ একর জমির কথা যে রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে তা আদৌ সত্য নয়। আর আগুনে পুড়িয়েছে তাদের সবজি ক্ষেত তাও সত্য নয়। তিনি বলেন, বর্তমান দুর্যোগপূর্ণ সময়ে এমন তথ্য বিভ্রাট সংবাদ আদৌ কাম্য নয়। জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের আহবান জানান তিনি।

প্রতিবেদকের বক্তব্যঃ সবজির দাম না পেয়ে হালুয়াঘাটে সবজি ক্ষেতে আগুন শিরোনামে প্রচারিত সংবাদটি তথ্যগত ভূল ছিলো। আসলে কৃষকরাই মিথ্যে তথ্য দিয়ে প্রতিবেদককে সংবাদটি প্রকাশিত করিয়েছে যা ছিলো অনভিপ্রেত ও অনাকাঙ্খিত। প্রকৃতপক্ষে ৬০ একর জায়গায় সবজি হিসেবে ঝিঙ্গা চাষ করেন কৃষকরা তাও সত্য ছিলোনা। আগুন দেয়ার ঘটনাটিও সত্য নয়।

Shares