আজ রবিবার , ১৭ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১লা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দাবীতে আজ মানববন্ধন হালুয়াঘাটের শিমুলকুচি গ্রামে কামাল’র কুলখানি অনুষ্ঠিত হালুয়াঘাটে বৃদ্ধকে নির্যাতনের ঘটনায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ হালুয়াঘাটের ট্রলি উল্টে দুই বন্দর শ্রমিকের মৃত্যু, আহত ৬ মাছ ধরার জালে ঢিল ছোড়ায় খুন হন শিশু শিক্ষার্থী সুমন হালুয়াঘাটে ১ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে খুন এমপি’র কাছে নালিশ করায় বৃদ্ধকে পিটিয়েছে চেয়ারম্যান হালুয়াঘাটে প্রতারিত শত শত কৃষক বাউফলে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন

করোনার কারণে বিশ্বে কনডম ঘাটতি বাড়ছে, সঙ্কট বাড়ার শঙ্কা

প্রকাশিতঃ ১:১৪ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ০৮, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৩৩ বার

অনলাইন ডেস্কঃ করোনাভাইরাস মহামারি আকারে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ার কারণে কনডম তৈরি প্রতিষ্ঠান বন্ধসহ সরবরাহ থমকে আছে। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি জন্ম নিয়ন্ত্রণ সামগ্রী প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানগুলো এবং জাতিসংঘ শঙ্কা প্রকাশ করেছে, ভবিষ্যতে জন্ম নিয়ন্ত্রণ সামগ্রীর আকাল দেখা দেবে।
বিশ্বের দু’শ নয়টি দেশে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার কারণে অধিকাংশ মানুষ এখন গুহবন্দি হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন দেশেই সরকারি নির্দেশে দোকানপাট বন্ধ রাখার কথা বলা হয়েছে। যদিও ওষুধের ফার্মেসী খোলা রাখার কথা বলা হয়েছে, তবে অত্যন্ত প্রয়োজন ছাড়া কাউকে বাড়ি থেকে বের হতে নিষেধ করা হচ্ছে।
কনডমের কাঁচামাল সবচেয়ে বেশি রপ্তানি করে মালয়েশিয়া। গত মাস থেকেই করোনার কারণে সেই দেশে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। গত মার্চের মাঝামাঝি থেকে এপ্রিলের মাঝামাঝি পর্যন্ত আগের তুলনায় কেবল কারেক্স নামক কনডম প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ২০০ মিলিয়ন কনডম কম বাজারজাত করছে।
অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলোও বিভিন্ন দেশের সীমান্ত বন্ধ থাকায় রপ্তানি করতে পারছে না। একইভাবে বিভিন্ন দেশ থেকে জন্ম নিয়ন্ত্রণ সামগ্রী আমদানচ্রেতে অসুবিধা হচ্ছে করোনার কারণে। এমনকি দেশের মধ্যেও এগুলো ছড়িয়ে দিতে সমস্যা হচ্ছে পরিবহণে অসুবিধার কারণে।

Shares