আজ সোমবার , ৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ইকোপার্কে বেড়াতে গিয়ে খালু কর্তৃক ভাগ্নী ধর্ষণের শিকার শ্রীবর্দীতে পানিতে ডুবে প্রতিবন্ধী শিশুর মৃত্যু মেয়ের খুনের বিচার চাইলেন বাবা বাউফলে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নালিতাবাড়ীতে বন্য হাতির আক্রমণে কৃষকের মৃত্যু দাশপাড়া ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি আজম, সম্পাদক মজিবর নালিতাবাড়ীর নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর নিখোঁজ শিক্ষার্থী উদ্ধার নালিতাবাড়ীতে গণহত্যা দিবস পালিত দলিল প্রতি অতিরিক্ত ফি ১০ হাজার টাকা। প্রতিবাদে ধোবাউড়ায় সংবাদ সম্মেলন রামচন্দ্রকুড়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচারণায় বাঁধা: সংঘর্ষ, গাড়ি ভাংচুর, আহত হালুয়াঘাটে গাছের সাথে শত্রুতা হালুয়াঘাটে আরও ২৯ জন ভূমিহীনকে জমিসহ ঘর প্রদান ময়মনসিংহে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামী আটক। প্রধান মন্ত্রীর উপহার চান ভাগ্য বিড়ম্বিত বিধবা রেনুবালা! ২৫ বৎসরেও হয়নি বিলকিছের প্রতিবন্ধী ভাতা

হালুয়াঘাটে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ডিলারকে মারধর করার অভিযোগ

প্রকাশিতঃ ৬:২২ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ০৬, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৯৬ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ হালুয়াঘাট উপজেলার ১২ নং স্বদেশী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিহাদ সিদ্দিকী ইরাদের বিরুদ্ধে একই ইউনিয়নের নাশুল্লা এলাকার হতদরিদ্রদের মাঝে ১০ টাকায় চাল বিতরনের নির্ধারিত ডিলার সুলতানকে মারধর ও তার ঘর ভাংচুর করে টাকা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে ।
সুলতানের বড় ভাই ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান স্বপন বলেন, প্রতিদিনের মত তার ছোট ভাই ডিলার সুলতান সোমবার সকালে কার্ডধারীদের মাঝে নিয়ম অনুযায়ী চাল বিতরন করছিলেন । হঠাৎ মাদকাশক্ত ইউপি চেয়ারম্যান ইরাদ চাউল কম দেওয়ার অভিযোগ এনে তার দলীয় ক্যাডার বাহিনী নিয়ে ঘর ভাংচুর করে সুলতানকে মারধর করে । ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আবু নাসের জানান, আমি ঘটনার শেষসময়ে উপস্থিত হয়ে চয়ারম্যানকে স্থানত্যাগ করতে পরামর্শ দিলে সে এখান থেকে চলে যায় । ইউপি চেয়ারম্যান জিহাদ সিদ্দিকী ইরাদের বিরুদ্ধে পুলিশকে মারধর, স্থানীয় জনগনকে মারধর, মাদক সেবন ও বিক্রির অভিযোগে হালুয়াঘাট থানায় বেশ কয়েকটি মামলা চলমান আছে । ডিলার সুলতানের বড়ভাই ইউপি সদস্য স্বপন এ বিষয়ে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা করবেন বলে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান । এ ঘটনায় মুঠোফোনে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিহাদ সিদ্দিকী ইরাদ মারধর করার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ডিলার সুলতান চাল মাপে কম দিচ্ছিলো। ৩০ কেজির স্থলে ২৪ কেজী দেয়ায় আমি চাল বিতরণ বন্ধ করতে বলি। তাতে তার সাথে ধাক্কাধাক্কি হয়। চেয়ারম্যান বলেন, এর আগেও নিষেধ করেছি, তারপরেও ওজনে সে চাল কম দেয়। টাকা নেয়ার কথা অস্বীকার করেন। ডিলার সুলতান চাল কম দেয়ার কথা অস্বীকার করে বলেন, ট্যাগ অফিসারের অনুমতিক্রমে সাড়ে উনত্রিশ কেজী করে চাল দিয়েছেন তিনি। এ বিষয়ে গ্রাহকদের কোনো অভিযোগ নেই। চাল বিতরণের সময় চেয়ারম্যান জিহাদ সিদ্দিকী ইরাদ পরিকল্পিতভাবে তার ক্যাডার বাহিনী নিয়ে হঠাৎ এসে হামলা করে।ঘরের দরজা ও ঝাঁপ ভাংচুর করে। এ সময় চালের বস্তার চাল মাটিতে ফেলে দেয়। আমাকে মারধর করে এবং ক্যাশ বাক্স ভেঙ্গে টাকা নিয়ে যায়।

Shares