আজ বুধবার , ৩রা জুন, ২০২০ ইং | ২০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফলে গত ১ মাসে নতুন করে কেউ করোনা আক্রান্ত হয়নি বাউফলে হিন্দু, বৌদ্ধ,খিৃষ্টান ঐক্য পরিষদের মানববন্ধন সড়ক দুর্ঘটনায় আহত জনপ্রিয় বাউল কবি সালাম সরকার কেন্দুয়ায় প্রবীণ সাংবাদিক সন্তোষ সরকারসহ পরিবারের ৫ সদস্য করোনায় আক্রান্ত বাস চালানোর সমালোচনা করায় ডিজিটাল আইনে সাংবাদিক আটক হালুয়াঘাটে বিদ্যুতের তারে জড়ানো অবস্থায় শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার হালুয়াঘাটে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট নারীকে বাঁচাতে গিয়ে ঘটনাস্থলেই দুইজনের মৃত্যু হালুয়াঘাটে ৩২০ টি পরিবারকে বিজিবি’র ঈদ উপহার হালুয়াঘাটে কৌশলে চলছে বেচাকেনা! ৩০ দোকানীকে লক্ষাধিক টাকা জরিমানা বাউফলে শেষ মূহুর্তে কৌশলে চলছে বেচাকেনা শিল্পপতি হাবিবুর রহমান তোতা আর নেই হালুয়াঘাটে চার বীরাঙ্গনাকে ঈদ উপহার হালুয়াঘাটে লকডাউন উপেক্ষা করে বিপণী গুলোতে কেনাকাটার ধুম হালুয়াঘাটে লকডাউন উপেক্ষা করে বিপণী গুলোতে কেনাকাটার ধুম ময়মনসিংহে করোনায় মমেক হাসপাতালের স্টাফ নার্সের মৃত্যু

হালুয়াঘাটে দুই শিক্ষার্থীসহ তিন শিশু অপহরণ! আটক-১

প্রকাশিতঃ ৯:০১ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ০৫, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৫৯ বার

ওমর ফারুক সুমনঃ ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে তিন শিশু বাচ্চাকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার সময় এক মহিলাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে জনতা। আটককৃত মহিলার নাম লুনা আক্তার (৩৫)। তার বাড়ি নারায়নগঞ্জের সিদ্দিরগঞ্জ উপজেলায়। অপহরণকৃত তিন শিশু কৃষ্ণনগর গ্রামের খুরশেদ আলীর কন্যা ইকরা (৮) ও শিশু ছেলে জিহান (৪) এবং একই গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের কন্যা ইফা (৮)। ইফা ২য় শ্রেণীর শিক্ষার্থী ও ইকরা ৪র্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, রবিবার দুপুরে উপজেলার ৭ নং শাকুয়াই ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর গ্রাম থেকে তিন শিশু বাচ্চাকে প্রলোভন দেখিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে নাগলা বাজারে ঢাকাগামী গাড়ীর উদ্দেশ্যে অবস্থান করলে শিশু তিনটি চিৎকার দেয়। তাদের চিৎকারে স্থানীয়দের সন্দেহ হলে অভিযুক্ত ঐ মহিলাকে আটক করে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিনের কাছে হস্তান্তর করে। পরে চেয়ারম্যান পুলিশকে অবগত করলে হালুয়াঘাট থানার ওসি মোহাম্মদ আলী মাহমুদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে শাকুয়াই ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তিন শিশুসহ ঐ মহিলাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। অপহরণকৃত শিশু ইকরাকে জিজ্ঞেস করলে বলেন, আমাদের ঘুরতে নিয়ে যাবে বলে জোর করে গাড়িতে উঠিয়ে নিয়ে আসে। পরে নাগলা বাজারে আমাদের চিৎকারে লোকজন তারে আটক করে। এর বেশী আর কিছু বলতে পারছেনা শিশুটি।এ ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন বলেন, তিন শিশুকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার সময় নাগলা বাজার থেকে ঐ মহিলাকে স্থানীয় জনতা আটক করে আমাকে খবর দেয়। আমি পরে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে দিই। ওসি মোহাম্মদ আলী মাহমুদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, জনতা ও ইউপি চেয়ারম্যানের সহযোগীতায় আমরা অপহরণকারী মহিলাকে আটক করতে পেরেছি। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Shares