আজ মঙ্গলবার , ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ভালুকায় সাংবাদিক নিগ্রহের বিচার দাবিতে মানববন্ধন রিফাত হত্যা রায় ৩০ সেপ্টেম্বর ! মিন্নির সাজা হবে কি? টাংগাইল সদরের (বুরো এনজিও) কর্মকর্তা খুন। মতলব উত্তরে আধুনিক প্রযুক্তিতে বীজ উৎপাদন সংরক্ষনে মাঠ দিবস অনুষ্টিত টাংগাইলে জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান লিটন কে কুপিয়ে হত্যা চেস্টা। টাংগাইলে চতুর্থ শ্রেণির (১০) এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা। রাঙ্গাবালীতে বিয়ের প্রতিশ্রæতিতে প্রতারণার অভিযোগ, চারজনের বিরুদ্ধে মামলা হালুয়াঘাটে বিজিবি’র পিটুনিতে আহত-১ প্রশ্নবিদ্ধ টি.এইচ.ও ডা. সোহেলী শারমিন! কোটি টাকার দূর্ণীতির নেপথ্যে–? হালুয়াঘাটে নারী সোর্স সুমিসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর অভিযোগ বাউফলে এক ব্যক্তির চোখ উৎপাটন হালুয়াঘাটে সুমী’র অপকর্ম ফাঁস! প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৮২৭ রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের স্বঘোষিত সভাপতির হুমকিতে ৫ সাংবাদিক এলাকাছাড়া করোনায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু

হালুয়াঘাটে দুই শিক্ষার্থীসহ তিন শিশু অপহরণ! আটক-১

প্রকাশিতঃ ৯:০১ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ০৫, ২০২০ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৩৩ বার

ওমর ফারুক সুমনঃ ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে তিন শিশু বাচ্চাকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার সময় এক মহিলাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে জনতা। আটককৃত মহিলার নাম লুনা আক্তার (৩৫)। তার বাড়ি নারায়নগঞ্জের সিদ্দিরগঞ্জ উপজেলায়। অপহরণকৃত তিন শিশু কৃষ্ণনগর গ্রামের খুরশেদ আলীর কন্যা ইকরা (৮) ও শিশু ছেলে জিহান (৪) এবং একই গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের কন্যা ইফা (৮)। ইফা ২য় শ্রেণীর শিক্ষার্থী ও ইকরা ৪র্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, রবিবার দুপুরে উপজেলার ৭ নং শাকুয়াই ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর গ্রাম থেকে তিন শিশু বাচ্চাকে প্রলোভন দেখিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিলো। পথিমধ্যে নাগলা বাজারে ঢাকাগামী গাড়ীর উদ্দেশ্যে অবস্থান করলে শিশু তিনটি চিৎকার দেয়। তাদের চিৎকারে স্থানীয়দের সন্দেহ হলে অভিযুক্ত ঐ মহিলাকে আটক করে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিনের কাছে হস্তান্তর করে। পরে চেয়ারম্যান পুলিশকে অবগত করলে হালুয়াঘাট থানার ওসি মোহাম্মদ আলী মাহমুদ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে শাকুয়াই ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তিন শিশুসহ ঐ মহিলাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। অপহরণকৃত শিশু ইকরাকে জিজ্ঞেস করলে বলেন, আমাদের ঘুরতে নিয়ে যাবে বলে জোর করে গাড়িতে উঠিয়ে নিয়ে আসে। পরে নাগলা বাজারে আমাদের চিৎকারে লোকজন তারে আটক করে। এর বেশী আর কিছু বলতে পারছেনা শিশুটি।এ ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন বলেন, তিন শিশুকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার সময় নাগলা বাজার থেকে ঐ মহিলাকে স্থানীয় জনতা আটক করে আমাকে খবর দেয়। আমি পরে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে দিই। ওসি মোহাম্মদ আলী মাহমুদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, জনতা ও ইউপি চেয়ারম্যানের সহযোগীতায় আমরা অপহরণকারী মহিলাকে আটক করতে পেরেছি। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Shares