আজ মঙ্গলবার , ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন বাউফলে জাতীয় মৎস সপ্তাহ শুরু হালুয়াঘাটে বজ্রপাতে মৃত্যু! বাবার লাশের পাশে দেড় বছরের শিশু ‘নুসাইবা’ হালুয়াঘাটে নির্মাণের বছরেই বক্স কালভার্ট ধ্বস! বাউফলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত ভিক্ষের টাকা গণনা করছিলো ভিক্ষুক। ইমাম বাসের চাপায় মৃত্যু ঐ ভিক্ষুকের শোক দিবসে হালুয়াঘাটে বিজিবি’র ত্রাণ বিতরণ বাউফলে সফিউল বারী বাবু’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭ হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিএনপি নেতা রুবেল’র অক্সিজেন সিলিন্ডার ও চিকিৎসা সামগ্রী প্রদান

বিভাগীয় মামলাঃ জামালপুরের সেই ডিসি আহমেদ কবির বরখাস্ত

প্রকাশিতঃ ৩:৪৯ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৯ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৮৯ বার

অনলাইন ডেস্কঃ নারী কেলেঙ্কারির ঘটনায় বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) জামালপুরের সাবেক ডিসি আহমেদ কবীরকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে সরকার। একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলাও করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির রিপোর্টে তার বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার পর সরকার এই পদক্ষেপ নিল।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
সূত্র জানায়, জামালপুরের সাবেক ডিসি আহমেদ কবীরের সঙ্গে তারই দফতরের নারী অফিস সহকারীর শারীরিক সম্পর্কের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। এরপর তার বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক তদন্তের জন্য ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়ার পর আহমেদ কবীরকে জামালপুর থেকে প্রত্যাহার করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করা হয়।
এর পরপরই ঘটনা সরেজমিন পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্তের জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ একজন যুগ্ম সচিবের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করে। ওই কমিটি প্রায় তিন সপ্তাহ সময় নিয়ে ঘটনা তদন্ত করে ২২ সেপ্টেম্বর প্রতিবেদন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে জমা দেয়। কমিটিকে ভিডিও-সংক্রান্ত বিষয়ে তদন্ত করার নির্দেশ দেওয়া হলেও কমিটি সার্বিক একটি তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়।
এ ছাড়া কমিটি তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, ডিসির কাজের ধরন অনুযায়ী বিশ্রাম নেওয়ার জন্য খাসকামরা থাকতেই পারে। কিন্তু সেখানে দরজা বন্ধ করে খাট-পালঙ্ক না রেখে ইজি চেয়ার বা ডিভানের মতো কোনো আসবাবপত্র রাখা যেতে পারে।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের গঠিত কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ২৫ সেপ্টেম্বর বুধবার জামালপুরের সাবেক ডিসি আহমেদ কবীরকে সাময়িক বরখাস্ত করে আদেশ জারি করেছে। একই সঙ্গে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলাও করা হয়েছে।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন পদস্থ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ডিসির নারী কেলেঙ্কারির ঘটনায় সরকারের প্রশাসনযন্ত্রের ভাবমূর্তি ব্যাপকভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। এটিকে সরকার সর্বোচ্চ গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে দ্রুততার সঙ্গে ব্যবস্থা নিচ্ছে এবং সেটি দ্রুততার সঙ্গেই করা হচ্ছে। এর প্রমাণ হচ্ছে, ইতিপূর্বে প্রশাসনের কোনো কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে এত দ্রুততার সঙ্গে ব্যবস্থা নেয়নি। এবারই ব্যতিক্রম ঘটল।

Shares