আজ বুধবার , ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

এমপি মাহমুদুল হক সায়েমকে সি.আই.পি শামিমের সংবর্ধনা হালুয়াঘাটে ঈদে বাড়ি ফেরার পথে লাশ হল স্বামীসহ অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী হালুয়াঘাটের স্থলবন্দর দিয়ে ২৭টি পণ্যের আমদানী রপ্তানীর পরিকল্পনা-এমপি সায়েম হালুয়াঘাটে ২৭ হাজার দুস্থ অসহায় পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ১৩ বছর পর পদত্যাগ করলেন ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হালুয়াঘাটে ফেইসবুক গ্রুপে কোরআন তেলাওয়াত ও ইসলামী সংগীত প্রতিযোগিতা। পুরস্কার বিতরণ ‘কৃষ্ণনগরের কৃষ্ণকেশীর ‘বেহিসেবি রঙ.. হিমাদ্রিশেখর সরকার হালুয়াঘাট থেকে ফুলপুর পর্যন্ত চার লেনের রাস্তা নির্মাণসহ সড়ানো হচ্ছে অস্থায়ী বাস কাউন্টার জনগণের অধিকার আদায় না হওয়া পর্যন্ত বিএনপি রাজপথে থাকবে-প্রিন্স ডামি নির্বাচন করে গণতন্ত্রকে আইসিইউতে পাঠিয়েছে আওয়ামী লীগ-প্রিন্স বাজারে পণ্যের অগ্নিমূল্যের তাপ তাদের গায়ে লাগেনা-প্রিন্স নালিতাবাড়ীতে প্রেসক্লাবের নির্বাচন, সভাপতি সোহেল সম্পাদক মনির গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে আন্দোলন অব্যাহত থাকবে-বিএনপি নেতা প্রিন্স হালুয়াঘাটে বিএনপি নেতা প্রিন্স’র লিফলেট বিতরণ ৯৮ দিন কারাভোগের পর নিজ এলাকায় বিএনপি নেতা প্রিন্সকে সংবর্ধনা

বিমানবন্দরে যাত্রীর পায়ুপথে স্বর্ণের বার! যাত্রী আটক

প্রকাশিতঃ ৯:০৮ অপরাহ্ণ | জুন ০৩, ২০১৯ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৪৬২ বার

অনলাইন ডেস্কঃ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৮০০ গ্রামের ৮টি স্বর্ণের বারসহ এক যাত্রীকে আটক করা হয়েছে। রোববার ভোর সাড়ে পাঁচটায় কুয়ালামপুর থেকে আসা বিজি ০০৮৭ নম্বর ফ্লাইটে করে আসা সেলিম নামের যাত্রীকে আটক করেন কাস্টমস গোয়েন্দারা। এসময় তার কাছ থেকে ৮টি সোনার বার পাওয়া যায়। যার আনুমানিক বাজার দর ৪০ লাখ টাকা।
কাস্টমস সূত্র জানায়, আটক যাত্রী সেলিমের পাসপোর্ট নম্বর বিবি-০৩৬৪৮৬১। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কাস্টমস গোয়েন্দারা জানতে পারেন বিজি-০০৮৭ বিমানে আসা এক যাত্রীর কাছে চোরাই সোনা রয়েছে। এরপর গোয়েন্দা দল ওই ফ্লাইটে আসা যাত্রীদের দিকে নজর রাখে। একপর্যায়ে সেলিম নামের ওই যাত্রীকে শনাক্ত করা হয়।
যাত্রীরা গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করার সময় তাদের কাছে স্বর্ণ আছে কিনা জানতে চাওয়া হয়। অন্যান্য যাত্রীদের সঙ্গে সেলিমও তার কাছে স্বর্ণ থাকার কথা অস্বীকার করেন। পরে তার দেহ তল্লাশী করে ধাতব বস্তুর অস্তিত্ব পাওয়া যায়। গোয়েন্দাদের অধিক জিজ্ঞাসাবাদে সেলিম তার পায়ুপথে স্বর্ণের বার থাকার কথা স্বীকার করেন। পরবর্তীতে তার পায়ুপথ থেকে আটটি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। শুল্ক আইনে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানায় কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।

Shares