আজ সোমবার , ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৩রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বিচারপতি টি.এইচ.খান আর নেই হালুয়াঘাটের যুবককে পিটিয়ে হত্যা হালুয়াঘাটের যুবককে পিটিয়ে হত্যা হালুয়াঘাটে দুই গারো তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার-৫ বাউফলে নৌকার মাঝি হলেন বর্তমান মেয়র জুয়েল কেন্দুয়ায় মৃত ব্যক্তি ভেঙ্গেছে নৌকা প্রার্থীর বাড়ীঘর ওসি শাহিনুজ্জামান’র শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হালুয়াঘাটে প্রতিবেশীকে ফাঁসাতে শশুরকে জবাই জামাতার! রামচন্দ্রকুড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা রামচন্দ্রকুড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা রামচন্দ্রকুড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা বাউফলে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালিত হালুয়াঘাটে ঐতিহাসিক তেলিখালী যুদ্ধ দিবস উদযাপন বাউফলে যুবদলের ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পলিত নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

বাউফলে মান্তা পরিবারের শিশুদের ঈদ আছে কিন্তু আনন্দ নেই

প্রকাশিতঃ ৯:৫১ অপরাহ্ণ | জুন ০২, ২০১৯ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৬০ বার

বাউফল(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি: প্রতি বছর মুসলমানদের ঘরে ঈদ আনন্দ আসে আবার চলে যায়। কিন্তু পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কালাইয়া ইউনিয়নের বগি তুলাতলা বাজার এলাকায় বসবাসরত মান্তা পরিবারের অসহায় শিশুদের ঈদ আছে কিন্তু আানন্দ নেই। শতাধিক মান্তা শিশু রয়েছে এ এলাকায়। তাঁদের প্রতি তাকিয়ে দেখারও যেন কেই নেই। তাদের ঈদ আনন্দের কথাও কারো ভাবনায় নেই। কেই জানতেও চায় না কিভাবে কাটে তাদের ঈদ আনন্দ। সরকারি পর্যায়ে খোঁজখবর নেয়াতো দুরের কথা দেখা মিলছে না কোন বেসরকারি সংস্থার সাহায্য সহযোগীতার। ঈদে সবাই পরিবারের সকলকে নিয়ে ঈদের আনন্দ খুিশ খাগাভাগি করে নেবে। নতুন পোশাক পড়ে আনন্দ ভাসবে। তখন তোমরা(মান্তা পরিবারের শিশুরা) কোথায় পাবে নতুন কাপড় সরেজমিনে বগি এলাকার মান্তা পরিবারের শিশুদের কাছে এমন প্রশ্ন করলে শিশু সিমা(৯), পাখি(৭),সোনিয়া(১১), মুন্নি(১০) ও জয়নবসহ(১২) অনেকে হতাশা জড়িত কন্ঠে বলে, আমারা গরীব তাই আমাদের নতুন কাপড় দেয়ার কেই নেই।বাবার আয়ে সংসার চলে না। ঈদে নতুন কাপড়ও দিতে পারে না। তাই আমাদের ঈদ আনন্দ হয় না। মান্তা শিশুরা জানায়, নতুন পোশাক নেই তাদের। পুরাতন কাপড় দিয়েই কাটিয়ে দেবে খুশির ঈদ । ঈদে সেমাই বা ফিন্নি জুটবে কিনা তাও নিশ্চিত নয়। এ সব কোমলমতি শিশুদের দিকে হাত বাড়ায়নি কেউ । এবার ঈদে কেউ তাদের পাশে দ^াড়াবে কি না তাও জানা নেই।
মান্তা পরিবারের ষাটোর্ধ বৃদ্ধ হাশেম সরদার জানান, সারা বছরই দুবেলা পেট ভরে খেতে পাওয়াই তাঁদের এক পরম সৌভাগ্য। সেখানে তাঁদের নতুন জামা কাপড় স্বপ্নের মত। তাঁদের কাছে ঈদ যেন নতুন চাঁদ দেখার মাঝেই সীমাবদ্ধ। ঈদের দিন আর বছরের অন্যান্য দিন প্রায় একই।
দায়িত্ব প্রাপ্ত বাউফল উপজেলা নির্বাহি অফিসার শুভ্রা দাস বলেন, এরকম সম্প্রদায়ের কথা শুনেছি। খোঁজখবর নিয়ে সাধ্যমত সাহায্য সহযোগীতা করা হবে।

Shares