আজ শনিবার , ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

রামচন্দ্রকুড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা রামচন্দ্রকুড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা রামচন্দ্রকুড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা বাউফলে জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস পালিত হালুয়াঘাটে ঐতিহাসিক তেলিখালী যুদ্ধ দিবস উদযাপন বাউফলে যুবদলের ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পলিত নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন নালিতাবাড়ীতে শিক্ষক নেতার উপর সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দাবীতে আজ মানববন্ধন হালুয়াঘাটের শিমুলকুচি গ্রামে কামাল’র কুলখানি অনুষ্ঠিত হালুয়াঘাটে বৃদ্ধকে নির্যাতনের ঘটনায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ হালুয়াঘাটের ট্রলি উল্টে দুই বন্দর শ্রমিকের মৃত্যু, আহত ৬ মাছ ধরার জালে ঢিল ছোড়ায় খুন হন শিশু শিক্ষার্থী সুমন হালুয়াঘাটে ১ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে খুন এমপি’র কাছে নালিশ করায় বৃদ্ধকে পিটিয়েছে চেয়ারম্যান হালুয়াঘাটে প্রতারিত শত শত কৃষক

হালুয়াঘাটে বিয়ের দু’মাস পরেই নববধূর বাচ্চা প্রসব! পিতৃত্ব নিয়ে ধুম্রজাল!৫ জনের নামে মামলা

প্রকাশিতঃ ২:১৫ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৪, ২০১৯ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৪৫১ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ ঘটনাটি প্রায় দুই মাস পূর্বের। গত ২৫ ফেব্রুয়ারী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বার অভিযোগ নিয়ে থানায় এসেছিলেন কিসমত নড়াইল গ্রামের ১৮ বছরের এক কিশরী। অভিযোগ ছিলো বাউসা গ্রামের আক্তার উদ্দিনের পুত্র ইলিয়াস নামক এক যুবকের বিরুদ্ধে। প্রেমের পরিনতিতে গড়ে উঠে তাদের শারিরীক সম্পর্ক। চলে ইলিয়াসের সাথে অবাধ মেলামেশা।সুযোগ পেলেই রাতের আধারে দেখা সাক্ষাত করতেন এই প্রেমিক যুগল। বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে ইলিয়াস মেলামেশা করতো কিশোরীর সাথে। এক পর্যায়ে কিশোরি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে বিয়ের চাপ দেন ইলিয়সকে। অতঃপর বিভিন্ন কৌশলে ইলিয়াস কেটে পড়ার চেষ্টা চালায়। অস্বীকার করেন কিশোরির পেটের সন্তানকে। এই অবস্থায় বিয়ের দাবী নিয়ে আইনের স্বরনাপর্ণ হয়ে হালুয়াঘাট থামায় উপস্থিত হোন সেই কিশোরী।গত ২৫ ফেব্রুয়ারী পুলিশ ও গণমাধ্যম কর্মীদের সামনে ঠিক এইভাবেই অভিযোগগুলো প্রকাশ করেছিলেন কিশোরী।সকল অভিযোগই ছিলো ইলিয়াসের বিরুদ্ধে।
সুত্রে জানা যায়, ঐদিন পুলিশ কিশোরীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ইলিয়াস ও তার বাবা এবং নিকট আত্বীয় স্বজনদের থানায় ডেকে নিয়ে আসেন। দীর্ঘ সময় চলে হালুয়াঘাট সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আলমগীর পিপিএম ও ওসি জাহাঙ্গীর আলম তালুকদারের জিজ্ঞাসাবাদ। শুরুতে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর পেটের বাচ্চার কথা অস্বীকার করলেও প্রেমের সম্পর্ক ছিলো তা ইলিয়াস স্বীকার করেন। এক পর্যায়ে ইলিয়াস কিশোরীর পেটের বাচ্চাকে স্বীকার করে নিয়ে উভয় পক্ষের সম্মতিক্রমে পাঁচ লক্ষ টাকা দেনমোহরের বিনীময়ে থানার অভ্যন্তরে বিয়ে হয় এই প্রেমিক যুগলের।
এই ঘটনার প্রায় দুইমাস পরে কিশোরী বাচ্চা প্রসব করলে নবজাতকের পিতৃত্ব নিয়ে নতুন করে প্রশ্ন তুলেন ঐ কিশোরী। অভিযোগের তীর যায় করুয়াপাড়া গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলীর পুত্র আলাল মিয়ার (৩৫) বিরুদ্ধে। কিশোরী বাদী হয়ে গত ১৭ এপ্রিল সন্তানের পিতার দাবী নিয়ে আলালসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে ময়মনসিংহ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেন। নতুন করে নবজাতকের পিতা আলাল মিয়া, এই দাবী কেনো তুলছেন এমন প্রশ্নে কিশোরী বলেন, ৮নং নড়াইল ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য তাছলিমা খাতুন তাকে ফুঁসলিয়ে সেদিন ইলিয়াসের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করতে বাধ্য করান। কিশোরী সকল নাটকের বিষয়ে ইউপি সদস্য তাছলিমাকেই দায়ী করেন। অভিযুক্ত ইউপি সদস্য তাছলিমার সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি তার বিরুদ্ধে কিশোরীর অভিযোগ সত্য নয় বলে জানান। কিশোরির দাবিকৃত সন্তানের পিতার দাবীদার আলাল মিয়া বলেন, আমি কিশোরীকে চিনিনা। এ সকল ঘটনায় সাজানো নাটক বলে উল্লেখ করেন। এই ঘটনার বিষয়ে হালুয়াঘাট থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার বলেন, গত ২৫ ফেব্রুয়ারী এই কিশোরী ইলিয়াসের বিরুদ্ধে প্রতারনা ও অন্তঃসত্ত্বার অভিযোগ নিয়ে হালুয়াঘাট থানায় আসলে তিনি ইলিয়াস ও তার অভিভাবকদের থানায় ডেকে নিয়ে আসেন, পরে ছেলে ও মেয়ের সম্মতিক্রমে উভয় পক্ষের অভিভাবকদের উপস্থিতিতে ইলিয়াস ও কিশোরীর বিবাহ সম্পন্ন হয়।

Shares