আজ মঙ্গলবার , ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন বাউফলে জাতীয় মৎস সপ্তাহ শুরু হালুয়াঘাটে বজ্রপাতে মৃত্যু! বাবার লাশের পাশে দেড় বছরের শিশু ‘নুসাইবা’ হালুয়াঘাটে নির্মাণের বছরেই বক্স কালভার্ট ধ্বস! বাউফলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত ভিক্ষের টাকা গণনা করছিলো ভিক্ষুক। ইমাম বাসের চাপায় মৃত্যু ঐ ভিক্ষুকের শোক দিবসে হালুয়াঘাটে বিজিবি’র ত্রাণ বিতরণ বাউফলে সফিউল বারী বাবু’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭ হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিএনপি নেতা রুবেল’র অক্সিজেন সিলিন্ডার ও চিকিৎসা সামগ্রী প্রদান

নালিতাবাড়ীতে স্বামীর হাতে স্বামী খুন॥ খুনি আটক

প্রকাশিতঃ ৯:৪৯ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৯ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩২৩ বার

নালিতাবাড়ী থেকে লাল মোঃ শাহজাহান কিবরিয়াঃ
নালিতাবাড়ী উপজেলার খুজিউরা গ্রামে প্রথম স্বামী কালু মফিজুলের হাতে নৃশংসভাবে খুন হয়েছে দ্বিতীয় স্বামী বাবুল । সোমবার গভীর রাতে এ খুনের ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ ঘাতক স্বামীকে আটক করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, প্রায় ১৪ বছর আগে খুজিউরা গ্রামের মৃত তোফাজ্জল হোসেনের কন্যা শহিদার (২৭) বিয়ে হয় পৌর শহরের গড়কান্দা মহল্লার আমির হোসেনের পুত্র কালু মফিজুলের (৩৫)। কালু পেশায় একজন রিকশাচালক। সংসার জীবনে তাদের ময়না নামে ১১ বছরের একজন কন্যা ও সজীব নামে ৬ বছরের একজন পুত্র রয়েছে। কালু বছরের প্রায় বেশিরভাগ সময় ঢাকায় মানিক নগর বস্তিতে থেকে রিকশা চালাতো। এ সময় তার পরিচয় হয় আরেক রিকশা চালক একই উপজেলার কোন্নগর গ্রামের আরমান আলীর পুত্র বাবুুেলর (৩৫)। বাুবলও বিবাহিত এবং দু’ সন্তানের জনক। দু’জনে মাঝে গড়ে উঠে সখ্যত্ া। মাঝে মাঝেই বাবুল কালুর সাথে কালুর বাড়িতে বেড়াতে আসতো। এই সুযোগে বাবুলের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে উঠে কালুর স্ত্রী শহিদার। এক পর্যায়ে প্রায় ১ মাস আগে শহিদা প্রথম স্বামী কালুকে তালাক দিয়ে বাবুলকে বিয়ে করে। সন্তানদের কালুর বাড়িতে রেখে বসবাস শুরু করে খুজিউরা গ্রামের মামা মোস্তফার বাড়িতে। ২৫ ফেব্রুয়ারী দিবাগত রাতে ক্ষুব্ধ কালু স্ত্রী শহিদাকে খুন করার উদ্দেশে শহিদার বাড়ির সিম গাছের ঝোঁপে উৎপেতে থাকে। রাত দেড়টার দিকে শহিদা ও দ্বিতীয় স্বামী বাবুল প্রকৃতির ডাকে ঘর থেকে বের হলে, কালু স্ত্রীকে ছুরি দিয়ে আঘাতের চেষ্টা করে। এ সময় দ্বিতীয় স্বামী বাবুল তাকে রক্ষা করতে এলে সে বাবুলকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। স্ত্রী শহিদা কালুকে গলায় ঝাপটে ধরে চিৎকার শুরু করলে, আশেপাশের লোকজন কালুকে বেঁধে রেখে থানায় খবর দেয় এবং বাবুলকে নিয়ে হাসপাতালের পথে রওয়ানা দেয়। পথেই বাবুল মারা যায়। পরে পুলিশ কালুকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ব্যাপারে বাবুলের ভাই বাদি হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

Shares