আজ বুধবার , ২৮শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ত্রিশালে দুই মাদক কারবারী আটক- বাউফলে যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ফ্রান্সে মহানবী(সঃ) এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বাউফলে মানববন্ধন ব্যারিস্টার রফিক উল হকের মৃত্যুতে ত্রিশাল অনলাইন প্রেসক্লাবের শোক প্রকাশ হালুয়াঘাট ও ধোবাউড়ায় পুজা পরিদর্শনে এমরান সালেহ প্রিন্স বরিশাল বিভাগের সেরা সম্পাদক হিসেবে সম্মাননা পেলেন দৈনিক দ্বীপাঞ্চল সম্পাদক ইউটিউবে ঝড় তুললেন ৭ বছরের “জারা” ৯ বৎসর পেরিয়েও হচ্ছেনা হালুয়াঘাটের দুই ইউপি’র নির্বাচন ত্রিশালে এটিএম সিআরএম বুথ এর শুভ উদ্বোধন – উপ নির্বাচন. ইউপি সদস্যসহ আটক ৪ হালুয়াঘাটে পৃথক স্থানে ট্রাক চাপায় ও বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুইজনের মৃত্যু গৌরিপুরে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা হালুয়াঘাটে ইয়াবাসহ আটক-২ সারাদেশে ধর্ষণের প্রতিবাদে হালুয়াঘাটে মানববন্ধন বগুড়ার শেরপুরে গ্রাম্য শালিশ বৈঠক নিয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশে গ্রামবাসীর প্রতিবাদ

ইবাদ আলীর গবেষনালব্ধ শিশু শিক্ষার নতুন পদ্ধতি

প্রকাশিতঃ ৯:৩২ অপরাহ্ণ | জানুয়ারি ২৪, ২০১৯ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৫৪৫ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ ইবাদআলী একজন সফল কৃষিবিদ,গবেষক ও লেখক, ২০০৯ সালে বাংলাদেশ কৃষিবিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফুড ইনিঞ্জিয়ারিং বিষয়েএ ম. এস. ডিগ্রী অর্জন করেন। ১৯৮০র দশকে তরুন এ গবেষকের জন্ম হয় শিল্প নগরী যশোর সদর উপজেলার ফতে পুর গ্রামের কৃষক বাবান ওয়াব আলী মোল্লা এবং গৃহিনী মারিজিয়া খাতুনের পরিবারে। ৭ সন্তানের মধ্যে ইবাদ আলী চতুর্থ। গবেষক ইবাদের ইচ্ছা দেশের মানুষের জন্য ভালো কিছুকরা। সেই ভাবনা থেকেই একের পর এক গবেষনা করে সফল হচ্ছেন তিনি। ইতোমধ্যে নানা পুরস্কারে ভুষিত হয়ে প্রসংশা কুড়িয়েছেন অনেক। কর্ম জীবনে প্রবেশের পূর্বে তার নিজ জেলায় নানা সফলতার পাশাপাশি শুরু করেন কোমলমতি শিশুদের শিক্ষা নিয়ে ব্যতিক্রমধর্মী গবেষনা। সম্প্রতি তার গবেষনায় প্রকাশিত হয়েছে কোমলমতি শিশু শিক্ষাও অভিভাবকদের করনীয় বিষয় নিয়ে তিনটি বই। ওই বইয়ের মাধ্যমে অধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত হতে পারবেন শিশুরা। ইতোমধ্যে বই তিনটি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে দেশ জুড়ে। ইবাদের দাবী সদ্য প্রকাশিত গবেষনা ধর্মী ওই বই গুলোরদিকে যেন নজর পড়েস রকারসহ সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতনকর্তৃপক্ষের। বর্তমানে ইবাদ আলী স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের অধীনে বাগেরহাট জেলার শরণখোলা উপজেলায় কর্মরত আছেন। সম্প্রতি প্রকাশিত বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন শরণ খোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাস। পরে সাংবাদিকদের সাথে এক চায়ের আড্ডায় ইবাদ আলী বলেন,শিক্ষা মানুষের মৌলিক অধিকার, জাতি গঠনের উত্তম উপায়,মাথা তুলে দাঁড়াবার পরীক্ষিত পথ,জীবনকেসত্য ও সুন্দর পথে পরিচালনাকরারমহাসড়ক। শিক্ষা মানুষকে অন্ধকার হতে আলোর পথে আনে, জরাজীর্ণ পুরাতনকেপিছনে ফেলে নতুন কে সামনে দিকে ধাবিত করে। শিক্ষা মানুষের অন্তর্নিহিত গুণাবলিরপূর্ণ বিকাশ করে মানুষকে মানব সম্পদে পরিণতকরে। একটি জাতির সভ্যতা ,উন্নতি,আচার-আচরণ,নেতৃত্ব ,শান্তিসমৃদ্ধি সবকিছু-ইনির্ভর করে একটি সুন্দর বিজ্ঞান ভিত্তিক আধুনিক শিক্ষা পদ্ধতির উপর। একটি গবেষণাধর্মী ,বিজ্ঞান ভিত্তিক শিক্ষা ব্যাবস্থায়-ই পারে জাতি কে সঠিক পথে পরিচালনা করতে, পারে উন্নতির শিখরে পৌছে দিতে। তাই শিশু শিক্ষা নিয়ে গবেষণার বিকল্প নেই। শিশুদের পাঠ্য বই কেমন হবে,কিকি বিষয় তাদেরকে শেখাতে হবে ,কেমন করে শেখাতেহবে -সে বিষয় গুলো নিয়ে গবেষণা করে তার বই টি প্রকাশ করাহ য়েছে। বর্তমান সময় শিশুরা বিভিন্ন গেম, কার্টুন বেশিশিখছে। লেখাপড়া ওনীতি নৈতিকতা শিখছে কম। বেশিরভাগছাত্র/ছাত্রীশিক্ষকদেরকথা শোনেনা, পিতা-মাতাকেমান্য করেনা,বড়দের সম্মানকরেনা, এ জন্য মূলতঅভিভাবকরাই বেশি দায়ী। এতে তাদের ব্যক্তিত্বের বিকাশ ঘটছে না। নীতি বহির্ভুত শিক্ষার দিকে ছেড়ে দিচ্ছি। শিশুরা কিকি পছন্দ করে,কিকি করেনা,কিভাবে পড়ালে সে আনন্দ পায়, তার শারীরিক, মানসিক ও ব্যক্তিত্বের বিকাশ হবে সেই বিষয়ে অভিভাবকদের আগে জানতেহ বে। শিশু শিক্ষার ক্ষেত্রে যে বিষয়টি প্রথমে মনে রাখতে হবে সেটি হল ভয়। শিশুর কোমল হৃদয়ে ভয়ার্ত চেহারা,আচার-আচারণ,ছবি,লাঠি,বেত,ইত্যাদি দ্বারাআঁচড় দেয়া যাবেনা। তাদেরকে¯েœহ,মায়া,মমতা,আদর,ভালবাসা,করুনা,সহমর্মীতা,মানবিকতার মধ্যে শেখাতেহবে। বাংলা ভাষায় একটি শিশুর শিক্ষা জীবনের প্রথম বাক্য শুরু হয় ‘‘ অ” দ্বারা । আর তা যদি কোমলমতি শিশুদের শেখানে হয়,অ-তে ” অজগরটি আসছে তেড়ে অর্থাৎ জীবনের প্রথমে শিশুদের কে ভয় শেখানোহচ্ছে। তাদের থেকে একটি জাতি সৃষ্টি হয়। একটি জাতি যদি ভয় দিয়ে জীবন শুরু করে, তাহলেদেশ ভালোভাবে চলবেনা। শিশুদের মায়েরা তাদেরস ন্তানদেরকে বাঘের ভয় দেখিয়ে ঘুম পড়ানো চেষ্টা করেন। কিন্ত এভাবে ঘুম পড়ানো কখনো উচিৎ নয়। কারণ বাজারের অনেক বইতে আছেঅ-তে”অজু করে নামাজ পড়ি”বাক্যটিমুসলিমদেরজন্য অত্যন্তভাল ও পবিত্রকিন্তহিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টানবাঅন্যদেরজন্য ঠিকনয়।এভাবে অ-তে অলিউড়েফুলেফুলে,্ঋ-তে” ঋষিবসেধ্যানকরে” –মুসলিমরাকখনোচাইবেনা যে তারশিশু এই পদ্ধতিতেধ্যানকরাশিখুক।, এভাবেপ্রতিটিবাক্যের-ইসমালোচনাআছে। এভাবেশিশুশিক্ষাচলতেপারেনা।বইহবেসকলধর্মের, সকলবর্ণের ,সকল শ্রেণীরমানুষেরজন্য প্রযোজ্য। বইহবেবিজ্ঞানভিত্তিক,আধুনিক,জীবনঘনিষ্ট,নীতিকথামুলক। সেখানে কোনসমালোচনা থাকবেনা। এখনোঅনেক স্কুলেলাঠি ,বেত ও কানমলারপ্রচলরয়েছে যে কারণে

অনেকসময়স্যারেরভয়ার্ত চেহারা দেখলে শিশুরা ভয়ে জড়োসড় হয়ে যায়। যে কারণেপড়তেচায়না। বর্তমানে কোমলমতি শিশুদেরকে তাদের মানসিক বিকাশ হওয়ার আগেই বইয়ের বোঝাচাপিয়ে দেয়া হচ্ছে। যেখানেতিনবাচারটিবইইযথেষ্ট, সেখানে তাদেরকে বই দেয়া হচ্ছেসাত/আটটি।এছাড়াশিশুদেরকেমন-মানসিক তার উপর ভিত্তি করে পড়ানো হয়না। কোমলমতি শিশুদের ভর্তি হওয়ারপ্রায় সাথে সাথে-ই পরীক্ষা নেওয়াহয়। শিশুদেরকে আচার আচরণ, রীতিনীতি ও অন্যান্য মৌলিক গুণাবলিশিক্ষাদেয়া হয়না। তাদের স্কুলহবেবাড়িরমত।বাড়িতে যেমন সে খুব আনন্দবোধকরে স্কুলেও যেন সে আনন্দ পায়, সেদিকেপ্রত্যেকের খেয়ালরাখতেহবে।এছাড়াআমাদের দেশেরসবচেয়েবড়সমস্যাপিতামাতারমতামতশিশুদেরউপরচাপানোহয়। তাদেরইচ্ছার কোনমূল্য দেয়া হয়না। কিন্তএটামারাত্মকভুল। কারনসব ধরণের মেধাসবার থাকেনা। তাইঅভিভাবকদেরইচ্ছাকখনোইশিশুদেরউপরগচিয়ে দেয়া ঠিকনয়।কৃষিবিদ ও গবেষক ইবাদ আলীরশিক্ষাপদ্ধতিরকিছু মৌলিকনিয়মহল
১. মানুষজীবনেরপ্রথমে পর্যায়ে বস্তুরনাম শেখেবর্ণেরনামনয়
২. বইয়েরবামপাশে থাকবে বস্তুরছবিআরডানপাশে থাকবেবর্ণ
৩. প্রত্যেকমানুষেরমধ্যে কিছুসফ্টওয়্যারআছেআরএগুলোবাহ্যিকনিয়ামকদ্বারাপ্রভাবিতহয়
৪. শিশুদেরবইএকজনশিক্ষকএরভুমিকাপালনকরতেপারে

তিনিতার ৩-৭ বছরবয়সেরশিশুদেরজন্য এমনএকটিবইরচনাকরেছেন যে ,
১. বইটিএকজনশিক্ষকেরভূমিকাপালরকরতেপাবে অর্থাৎশিশুরানিজেনিজেবাংলাবর্ণমালাপ্রায়সবগুলোবর্ণ নিজে থেকে পড়তেপারে!
২.শুধু পড়তেইপারবেনাশতভাগসঠিকউচ্চারণকরতেপারবে ।
৩. শিশুরানীতিকথা ও বিজ্ঞানভিত্তিকশিক্ষাপাবে
৪. একটিউন্নতজাতীরভিতরচিতহবে

বইটিরনাম: শিশুশিক্ষারআধুনিকপাঠ- বাংলা

তবেনিচেরআটটিনিষম মেনেবইটিরচনাকরতেহবে

বইরচনারআটটিসাধারণনিয়ম
 এমনএকটিশব্দবাছাইকরতেহবেযারপ্রথমে, যে বর্ণটিশিশুকে চেনাতেচাচ্ছিশুধুমাত্র সেইবর্ণটিশব্দেরপ্রথমে থাকবে।
 বর্ণটির সাথে কোন আ -কার,এ-কার অর্থাৎ কোনঅলংকার যোগকরাযাবেনা।
 শব্দটিরএকটিছবি থাকতেহবেএবং সেইছবিটিআবারসবাইকেচিনতেহবে।
 বইএরপ্রথমেইশব্দটিরছবি থাকতেহবে ।
 বর্ণটিদ্বারা যে বাক্য শিশুকে শেখাতেচাচ্ছি সেইবাক্যটিঅবশ্যইনীতিকথামুলক, বিজ্ঞানভিত্তিক ও ব্যবহারিকহতেহবে।
 বইটিহতেহবেসকলধর্মের, সকলবর্ণেরসকল শ্রেণীর লোকেরজন্য উপযোগী।
 বাক্যটি যে বিষয়েহবে সেইবিষয়েরএকটিছবি থাকালাগবে ।
 ছবি ও বর্ণ পাশাপাশিবসবেএবংআগেছবি ,তারপরবর্ণ থাকবে।
তিনিশুধুশিশুদেরজন্যইবইরচনাকরেননি। তিনিমনেকরেনশিশুশিক্ষারজন্য শিশুশিশুদেরজন্য বইরচনাকরলেইহবেনা। শিক্ষক ও অবিভাবকদেরজন্য ও বই দরকার- এই ভাবনা থেকে তিনিলিখেছেন”আপনারশিশুকেকীভাবে শেখাবেন”বইটিবিশেষজ্ঞমহলেব্যাপকপ্রসংশা পেয়েছেএবংঅবিভাবক ও শিক্ষকগণবইটিসংগ্রহকরছেন।

ইচ্ছাএভাবেধীরেধীরেতিনি দেশেরসকলঅভিভাবকদেরএকদিনসচেতনকরেতুলতেপারবেন। তাহলেইশিক্ষানিয়েতার যে স্বপ্নতাপূরণহবে।###

Shares