আজ বুধবার , ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফলে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন বাউফলে জাতীয় মৎস সপ্তাহ শুরু হালুয়াঘাটে বজ্রপাতে মৃত্যু! বাবার লাশের পাশে দেড় বছরের শিশু ‘নুসাইবা’ হালুয়াঘাটে নির্মাণের বছরেই বক্স কালভার্ট ধ্বস! বাউফলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত ভিক্ষের টাকা গণনা করছিলো ভিক্ষুক। ইমাম বাসের চাপায় মৃত্যু ঐ ভিক্ষুকের শোক দিবসে হালুয়াঘাটে বিজিবি’র ত্রাণ বিতরণ বাউফলে সফিউল বারী বাবু’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭

হালুয়াঘাটে প্রতিবন্ধী ও অসহায় মানুষের পাশে সালমান ওমর রুবেল

প্রকাশিতঃ ২:৪৭ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২৭, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৬৭ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ মানুষ মানুষের জন্যে’ এই প্রতিপাদ্যকে বুকে লালন করে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট ও ধোবাউড়া উপজেলার প্রতিবন্ধী, অসহায় ও মানুষের জন্যে, কাজ করে যাচ্ছেন ওমর ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, খালেদা জিয়া মুক্তি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও বিএনপি নেতা আলহাজ্ব সালমান ওমর রুবেল। তার সহযোগীতায় ইতিমধ্যে কয়েক হাজার মানুষ ফিরে পেয়েছেন তাদের দৃষ্টি শক্তি। ৩০ হাজারেরও অধিক মানুষ পেয়েছেন চক্ষু সেবা। জানা যায়, সরকারী অনুদান ছাড়াই নিজস্ব প্রচেষ্টায় ব্যক্তিগত তহবিল থেকে মানবতার কান্ডারী হিসেবে, দীর্ঘ ১০ বৎসর যাবৎ কাজ করে যাচ্ছেন ৩৫ বৎসরের এই যুবক। মানুষের সাথে কথা বলে জানা যায়, অসুস্থ্য ব্যাক্তির জন্যে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা, মৃত ব্যক্তির জন্যে সৎকারের ব্যবস্থা করা, দরিদ্র ও কন্যা দায়গ্রস্থ পিতাকে আর্থিক সহযোগীতা প্রদান, এতিম ও দরিদ্র ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়ার খরচ বহন করা, মানসিক ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদেরকে অন্ন-বস্ত্র ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা, বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সহযোগিতা করাই তার একমাত্র লক্ষ্য। ইতিমধ্যে সাধারন মানুষের মুখে মুখে আলোচনায় স্থান করে নিয়েছেন তিনি। সালমান ওমররের হুইল চেয়ার নিতে আসা বাঘাইতলা গ্রামের সালামি দ্রং বলেন, আমার মেয়ে আগে চলতে পারতনা! হুইল চেয়ার পেয়ে এখন চলতে পারবে। ঈশ্বর যেন সালমানের মঙ্গল করেন। দর্শার পাড়ের সেলিনা ঘাগরা বলেন, হুইল চেয়ার পেয়ে আমি অনেক খুশি। আমার বাচ্চাটা নড়াচড়া করতে পারবে! খেলতে পারবে! ঘুরতে পারবে! এরকমভাবে পাগলপাড়া গ্রামের বিজয় সাংমা, চড়বাঙ্গালিয়া গ্রামের সুভদ্রা চিসিম, প্রশিস দিও, মোজা খালি গ্রামের রঞ্জিমনি চিসিম বলেন, এতদিন আমাদের সন্তানরা চলতে পারেনাই। ওমর ফাউন্ডেশন আমাদের সন্তানদের দিকে চাইয়া দেখছে। ঈশ্বর তারে দেখবে! উল্লেখ্য প্রতিবারের ন্যায় আবারো গত বৃহঃপতি-ও-শুক্রবার ধোবাউড়া ও হালুয়াঘাট উপজেলায় ২৭ জন শারিরীক প্রতিবন্ধীর মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ করেন তিনি। একই সময়ে আগুনে ক্ষতিগ্রস্থ একটি পরিবারকে নগদ টাকা ও ঘর মেরামতের জন্যে ঢেউটিন প্রদান করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক হানিফ মোঃ সাকের উল্লাহ্, আনম সাদেকুর রহমান নঈম. নাদিম আহমদ প্রমূখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে সালমান ওমর রুবেল বলেন, আমি প্রতিবছর আলাদাভাবে আদিবাসীদের জন্য শীতবস্ত্র বিতরণ, চক্ষুক্যাম্প ও হুইল চেয়ার বিতরণ করে থাকি। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ময়মনসিংহ জেলা জাতীয়তাবাদী ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী দলের সভাপতি শশধর দ্রং।

Shares