আজ মঙ্গলবার , ২৭শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

ত্রিশালে দুই মাদক কারবারী আটক- বাউফলে যুবদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ফ্রান্সে মহানবী(সঃ) এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে বাউফলে মানববন্ধন ব্যারিস্টার রফিক উল হকের মৃত্যুতে ত্রিশাল অনলাইন প্রেসক্লাবের শোক প্রকাশ হালুয়াঘাট ও ধোবাউড়ায় পুজা পরিদর্শনে এমরান সালেহ প্রিন্স বরিশাল বিভাগের সেরা সম্পাদক হিসেবে সম্মাননা পেলেন দৈনিক দ্বীপাঞ্চল সম্পাদক ইউটিউবে ঝড় তুললেন ৭ বছরের “জারা” ৯ বৎসর পেরিয়েও হচ্ছেনা হালুয়াঘাটের দুই ইউপি’র নির্বাচন ত্রিশালে এটিএম সিআরএম বুথ এর শুভ উদ্বোধন – উপ নির্বাচন. ইউপি সদস্যসহ আটক ৪ হালুয়াঘাটে পৃথক স্থানে ট্রাক চাপায় ও বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুইজনের মৃত্যু গৌরিপুরে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা হালুয়াঘাটে ইয়াবাসহ আটক-২ সারাদেশে ধর্ষণের প্রতিবাদে হালুয়াঘাটে মানববন্ধন বগুড়ার শেরপুরে গ্রাম্য শালিশ বৈঠক নিয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশে গ্রামবাসীর প্রতিবাদ

দুই গ্লাস পানি পরিবেশনে বকশিস সাত লাখ

প্রকাশিতঃ ৯:৫৩ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২৩, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২৫২ বার

অনলাইন ডেস্কঃ রেস্তোরাঁতে খাবারের বিল পরিশোধের পর টিপস দেয়াটা এখন খুব সাবলীল একটা ব্যাপার হয়ে গিয়েছে। বরং নিজের মান বোঝাতে অনেকেই বেশি টিপস দেয়াকে বেছে নেন। তবে তাই বলে সেটার পরিমাণ লক্ষাধিক হবে এটা দিবাস্বপ্নেও কেউ দেখবে না। তবে এমন কাল্পনার অতীত ঘটনা বাস্তবেই ঘটেছে।
আনন্দবাজারের বরাত দিয়ে জানা যায়, যুক্তরাষ্ট্রে নর্থ ক্যারোলিনায় গ্রিনভিলের ‘সুপ ডগস’ নামে একটি রেস্তোরাঁয় গত শনিবার এক ব্যক্তি এসে দুই গ্লাস পানি পান করার জন্য চাইলেন। রেস্তোরাঁর কর্মী অ্যালাইনা কাস্টার পানি দিয়ে যাবার পর যখন বিল নিতে ফিরে আসেন তখন তার জন্য রেখে যাওয়া টিপস দেখে তার চক্ষু চড়কগাছ। কারণ, দুই গ্লাস পানি পরিবেশনের জন্য বকশিস হিসেবে পেয়েছেন ৭ লাখ ৩৬ হাজার টাকা। সঙ্গে একটি ছাট্ট নোট।
তাতে লেখা, ‘সুস্বাদু পানির জন্য ধন্যবাদ।’

এ ঘটনায় প্রথমে বিশ্বাসই করতে পারেননি অ্যালাইনা। তিনি প্রথমে মনে করেছিলেন, ওই ব্যক্তি হয়তো ভুল করে টাকাগুলো ফেলে গেছেন। অথবা কেউ তার সঙ্গে মজা নিচ্ছে। কিন্তু সত্যিকার অর্থেই ওই টাকাগুলো অ্যালাইনা কাস্টারকে বকশিস হিসেবে দেয়া হয়েছিল। আর যিনি দিয়েছিলেন তিনি জনপ্রিয় ইউটিউবার মিস্টার বিস্ট।

এমন বিষ্ময়কর ঘটনায় রেস্তোরাঁটির কর্মী অ্যালাইনা কাস্টার বলেন, এই টিপসটা আমার কাছে ভীষণ জরুরি ছিল। এটি কল্পনাতীত এবং আনন্দের। কারণ সুপ ডগসে যারা কাজ করেন তাদের বেশিরভাগই কলেজপড়–য়া। এই বকশিস সবাই মিলে ভাগ করে নেবেন বলেও অ্যালাইনা নিজের ফেসবুক পাতায় জানান।
অন্যদিকে সুপ ডগস রেস্তোরাঁও ফেসবুকে তাদের কর্মী অ্যালাইনা কাস্টারের ছবি শেয়ার করেছে ফলাও করে। আর এতে বিখ্যাত ইউটিউবার মিস্টার বিস্টের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সবাই।

Shares