আজ শুক্রবার , ২৭শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

হালুয়াঘাটে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু ওজনে ধান বেশী নেয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ নালিতাবাড়ীতে মাংস বিক্রেতাদের জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত নালিতাবাড়ীতে অগ্নিকাণ্ডে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ বসতঘর পুড়ে ক্ষয়ক্ষতি “মুক্তিযুদ্ধে হালুয়াঘাট” গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত প্রকল্পের পাওনা টাকা দাবী: ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশে হামলার অভিযোগ “মুক্তিযুদ্ধে হালুয়াঘাট” গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও প্রকাশনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত নালিতাবাড়ীর মাদক ব‍্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব হালুয়াঘাটে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত শেরপুরে স্বামী পরিত্যক্তা তরুণীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ: গ্রেফতার এক নালিতাবাড়ীতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন নালিতাবাড়ীতে র‍্যাবের হাতে বিদেশী মদসহ যূবক গ্রেফতার তিনানী বাজার থেকে সয়াবিন তেল জব্ধ,লাখ টাকা জরিমানা নালিতাবাড়ী প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণের অভিযোগে একজন আটক নালিতাবাড়ীতে গতি রোধ করে গরু ব্যবসায়ীর উপর বিজিবি’র গুলি, আহত তিন

হালুয়াঘাটে চতুর্থ শ্রেনির ছাত্রের পা বিকল প্রায়! সাহায্যের আবেদন

প্রকাশিতঃ ১০:৫৬ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২২, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৫১৫ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ হালুয়াঘাট উপজেলায় জাহিদুল ইসলাম সাগর (১১) নামে এক স্কুলছাত্রের চিকিৎসার অভাবে একটি পা চিকন হয়ে প্রায় অচল অবস্থায় চলে যাচ্ছে। টাকার জন্য ছেলের কোন ভাল চিকিৎসা করাতে পারছেন না এই অসহায় পরিবারটি। সাগরের চিকিৎসার জন্যে সহযোগীতা চেয়েছেন তার পরিবার।

সাগর উপজেলার গামারীতলা শাহজালাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেনির ছাত্র। শিশুটি প্রতিদিন অচলবস্থা পা নিয়েই মায়ের কাঁধে বর করে হেটে স্কুলে যেতে চাচ্ছে।

পরিবারের স্বজনরা জানায়, গত বছর বাড়ির পিছনে একটি মাঠে খেলতে গিয়ে পায়ের উরুতে ব্যাথা পেয়েছিল সাগর। পরে স্থানীয়ভাবে একাধিক বার চিকিৎসা করলেও কোন কাজে আসেনি। পরিবারটি অর্থের অভাবে উন্নত চিকিৎসা করাতে না পারায় শিশুটির একটি পা শুকিয়ে চিকন হয়ে যাচ্ছে। ওই পাটি এখন মাটিতে রাখাও সম্ভব হচ্ছেনা ।

এদিকে সাগরের মা জানান, ‘আমার ছেলের পড়া লেখার আগ্রহ রয়েছে। তাই প্রতিদিন সে আমাকে ধরে এক পায়ে হেটেই স্কুলে যায় । সকালে সাগরকে স্কুলে দিয়ে আসি এবং আবার বিকেলে নিজেই গিয়ে নিয়ে আসি।’

বাবা এশাকুল বলেন, ‘আমি একজন হতদরিদ্র মানুষ। আমার পাচঁ শতাংশ ভিটা ছাড়া আর কোন সম্বল নেই। অন্যের জমিতে দিন মজুরের কাজ করে কোন মতে সংসার চালাতে হয়। যা কিছু ছিল তা দিয়ে ছেলের চিকিৎসা করে এখন নিঃস্ব হয়ে গেছি। আমার শিশু ছেলের চিকিৎসার খরচ বহন করা আমার পক্ষে এখন খুব কষ্টকর হয়ে গেছে। এখন সংসার চালাবো নাকি ছেলে চিকিৎসা করাবো? আর সম্ভব হচ্ছেনা। তাই ছেলের চিকিৎসার জন্য দেশের বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের আবেদন করছি।’

অন্যদিকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানান, ‘সাগর স্কুলের ভাল ছাত্রদের মধ্যে একজন। আমরাও চাই সে আবার নিজের পায়ে হেটে স্কুলে আসুক।’

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম বলেন, ‘ছেলেটির উন্নত চিকিৎসা করা প্রয়োজন, না হলে সাগরের ভবিষ্যৎ নষ্ট হয়ে যাবে। তিনি সরকারের কাছে বিনা খরচে উন্নত চিকিৎসা পাওয়ার জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন।’

স্থানীয় চিকিৎসকরা জানান, ‘সাগরের পায়ের উরুর হাড় ক্ষয় ও নালি সমস্যার কারনে পা ক্রমশই চিকন হয়ে যাচ্ছে। সুচিকিৎসা না পেলে ছেলেটি পঙ্গু হয়ে যেতে পারে।’

সাহায্যের পাঠানোর জন্য যোগাযোগ করুন, শিশু সাগরের বাবা এশাকুল ইসলাম, মোবাইল নং-০১৯০৪-৩৮৮৫৬৭।

Shares