আজ বুধবার , ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফলে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন বাউফলে জাতীয় মৎস সপ্তাহ শুরু হালুয়াঘাটে বজ্রপাতে মৃত্যু! বাবার লাশের পাশে দেড় বছরের শিশু ‘নুসাইবা’ হালুয়াঘাটে নির্মাণের বছরেই বক্স কালভার্ট ধ্বস! বাউফলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত ভিক্ষের টাকা গণনা করছিলো ভিক্ষুক। ইমাম বাসের চাপায় মৃত্যু ঐ ভিক্ষুকের শোক দিবসে হালুয়াঘাটে বিজিবি’র ত্রাণ বিতরণ বাউফলে সফিউল বারী বাবু’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭

হালুয়াঘাটে চতুর্থ শ্রেনির ছাত্রের পা বিকল প্রায়! সাহায্যের আবেদন

প্রকাশিতঃ ১০:৫৬ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২২, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৪৪৬ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ হালুয়াঘাট উপজেলায় জাহিদুল ইসলাম সাগর (১১) নামে এক স্কুলছাত্রের চিকিৎসার অভাবে একটি পা চিকন হয়ে প্রায় অচল অবস্থায় চলে যাচ্ছে। টাকার জন্য ছেলের কোন ভাল চিকিৎসা করাতে পারছেন না এই অসহায় পরিবারটি। সাগরের চিকিৎসার জন্যে সহযোগীতা চেয়েছেন তার পরিবার।

সাগর উপজেলার গামারীতলা শাহজালাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেনির ছাত্র। শিশুটি প্রতিদিন অচলবস্থা পা নিয়েই মায়ের কাঁধে বর করে হেটে স্কুলে যেতে চাচ্ছে।

পরিবারের স্বজনরা জানায়, গত বছর বাড়ির পিছনে একটি মাঠে খেলতে গিয়ে পায়ের উরুতে ব্যাথা পেয়েছিল সাগর। পরে স্থানীয়ভাবে একাধিক বার চিকিৎসা করলেও কোন কাজে আসেনি। পরিবারটি অর্থের অভাবে উন্নত চিকিৎসা করাতে না পারায় শিশুটির একটি পা শুকিয়ে চিকন হয়ে যাচ্ছে। ওই পাটি এখন মাটিতে রাখাও সম্ভব হচ্ছেনা ।

এদিকে সাগরের মা জানান, ‘আমার ছেলের পড়া লেখার আগ্রহ রয়েছে। তাই প্রতিদিন সে আমাকে ধরে এক পায়ে হেটেই স্কুলে যায় । সকালে সাগরকে স্কুলে দিয়ে আসি এবং আবার বিকেলে নিজেই গিয়ে নিয়ে আসি।’

বাবা এশাকুল বলেন, ‘আমি একজন হতদরিদ্র মানুষ। আমার পাচঁ শতাংশ ভিটা ছাড়া আর কোন সম্বল নেই। অন্যের জমিতে দিন মজুরের কাজ করে কোন মতে সংসার চালাতে হয়। যা কিছু ছিল তা দিয়ে ছেলের চিকিৎসা করে এখন নিঃস্ব হয়ে গেছি। আমার শিশু ছেলের চিকিৎসার খরচ বহন করা আমার পক্ষে এখন খুব কষ্টকর হয়ে গেছে। এখন সংসার চালাবো নাকি ছেলে চিকিৎসা করাবো? আর সম্ভব হচ্ছেনা। তাই ছেলের চিকিৎসার জন্য দেশের বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের আবেদন করছি।’

অন্যদিকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানান, ‘সাগর স্কুলের ভাল ছাত্রদের মধ্যে একজন। আমরাও চাই সে আবার নিজের পায়ে হেটে স্কুলে আসুক।’

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম বলেন, ‘ছেলেটির উন্নত চিকিৎসা করা প্রয়োজন, না হলে সাগরের ভবিষ্যৎ নষ্ট হয়ে যাবে। তিনি সরকারের কাছে বিনা খরচে উন্নত চিকিৎসা পাওয়ার জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন।’

স্থানীয় চিকিৎসকরা জানান, ‘সাগরের পায়ের উরুর হাড় ক্ষয় ও নালি সমস্যার কারনে পা ক্রমশই চিকন হয়ে যাচ্ছে। সুচিকিৎসা না পেলে ছেলেটি পঙ্গু হয়ে যেতে পারে।’

সাহায্যের পাঠানোর জন্য যোগাযোগ করুন, শিশু সাগরের বাবা এশাকুল ইসলাম, মোবাইল নং-০১৯০৪-৩৮৮৫৬৭।

Shares