আজ বুধবার , ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

বাউফলে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ বাউফল উপজেলা ও পৌর সেচ্ছাসেবক দলের আহব্বায়ক কমিটি ঘোষণা বাউফলে ইউএনও’র বিদায়ী সংবর্ধনা নালিতাবাড়ীতে জেলা শিক্ষা অফিসারের বিদ্যালয় পরিদর্শন বাউফলে বিএনপি’র ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বাউফলে ছেলের বিচার চেয়ে বাবা মায়ের সাংবাদিক সম্মেলন বাউফলে জাতীয় মৎস সপ্তাহ শুরু হালুয়াঘাটে বজ্রপাতে মৃত্যু! বাবার লাশের পাশে দেড় বছরের শিশু ‘নুসাইবা’ হালুয়াঘাটে নির্মাণের বছরেই বক্স কালভার্ট ধ্বস! বাউফলে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত ভিক্ষের টাকা গণনা করছিলো ভিক্ষুক। ইমাম বাসের চাপায় মৃত্যু ঐ ভিক্ষুকের শোক দিবসে হালুয়াঘাটে বিজিবি’র ত্রাণ বিতরণ বাউফলে সফিউল বারী বাবু’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া-মোনাজাত করোনা টেস্ট করাতে অনিহা হালুয়াঘাটে করোনায় আক্তান্ত হয়ে ৯৬ বছরের বৃদ্ধের মৃত্যু। মোট মৃত্যু-৭

হালুয়াঘাটে বউ এর খোঁজে এসে গণধোলায়ের শিকার!

প্রকাশিতঃ ১:০৬ পূর্বাহ্ণ | অক্টোবর ০৭, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৬৩৯ বার

স্টাফ রিপোর্টারঃ হালুয়াঘাট উপজেলার নিজ ধারা গ্রামে নিজ স্ত্রীকে খোঁজতে এসে শশুড় বাড়ির লোকজনের গণধোলায়ের শিকার হলেন নেত্রকোনা উপজেলার মদন থানার সাটুরিয়া গ্রামের মিরাজ আলীর পুত্র রতন মিয়া(৩২)। শনিবার সন্ধায় নিজধারা গ্রামের আবুল হাশেমের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে আশপাশের লোকজনের মারফতে খবর পেয়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রতন মিয়াকে মারধর করে পা ভেঙ্গে দিয়েছে। বাড়ির উঠানে মাটিতে ফেলে রেখে চারিদিকে লোকজন ঘিরে রেখেছে। রতনকে জিজ্ঞেস করলে তিনি জানান, প্রায় নয় মাস পূর্বে মোবাইলের সম্পর্কের জের ধরে আবুল হাশেমের মেয়ে অজুফা (১৮) কে বাড়ি থেকে পালিয়ে বের করে নিয়ে বিয়ে করেন। বিয়ে করার পর গাজীপুর বোর্ড বাজার এলাকার তাজ উদ্দিন গনী মৃর্দাবাড়ি রোডের মান্নানের বাসায় ভাড়া থাকতেন। সেখানে একাধারে নয়মাস সংসার করেন। কিন্তু গত কদিন পূর্বে মায়ের অসুখের কথা বলে তার স্ত্রী পালিয়ে বাড়িতে চলে আসেন। অতঃপর স্ত্রীকে খোঁজতে এসে নিজের জীবন হারাতে বসেছিলেন প্রায়। আশ পাশের লোকজন তাকে রক্ষা করে। রতনের পূর্বের স্ত্রী সন্তানও রয়েছে বলে জানা যায়। এ বিষয়ে অজুফার পিতা আবুল হাশেম বলেন, মোবাইলে ফুঁসলিয়ে নয়মাস পূর্বে মেয়েকে বের করে নিয়ে যান। এতদিন পালিয়ে ছিলো তারা। তার মেয়ে বর্তমান নিখোঁজ রয়েছে বলে জানান। পরে রতনকে পেয়ে তারা মারধর করেছেন। মেয়ে পালিয়ে বা হারিয়ে গিয়েছে এই মর্মে কোন মামলা বা থানায় জিডি করেছিলেন কিনা এমন প্রশ্নে বলেন, মেয়ে চলে যাবার পর আমি থানায় গিয়েছিলাম জিডি করতে। আমার অভিযোগ থানায় নেয়নি। হালুয়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম তালুকদারকে ঘটনাটি মুঠোফুনে জানালে তিনি বিষয়টি দেখবো বলে জানান।

Shares