আজ শনিবার , ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

রিফাত হত্যা রায় ৩০ সেপ্টেম্বর ! মিন্নির সাজা হবে কি? টাংগাইল সদরের (বুরো এনজিও) কর্মকর্তা খুন। মতলব উত্তরে আধুনিক প্রযুক্তিতে বীজ উৎপাদন সংরক্ষনে মাঠ দিবস অনুষ্টিত টাংগাইলে জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান লিটন কে কুপিয়ে হত্যা চেস্টা। টাংগাইলে চতুর্থ শ্রেণির (১০) এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা। রাঙ্গাবালীতে বিয়ের প্রতিশ্রæতিতে প্রতারণার অভিযোগ, চারজনের বিরুদ্ধে মামলা হালুয়াঘাটে বিজিবি’র পিটুনিতে আহত-১ প্রশ্নবিদ্ধ টি.এইচ.ও ডা. সোহেলী শারমিন! কোটি টাকার দূর্ণীতির নেপথ্যে–? হালুয়াঘাটে নারী সোর্স সুমিসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর অভিযোগ বাউফলে এক ব্যক্তির চোখ উৎপাটন হালুয়াঘাটে সুমী’র অপকর্ম ফাঁস! প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪১ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৮২৭ রূপগঞ্জ প্রেসক্লাবের স্বঘোষিত সভাপতির হুমকিতে ৫ সাংবাদিক এলাকাছাড়া করোনায় আরও ৩৬ জনের মৃত্যু মসজিদে এসি বিস্ফোরণে মৃত বেড়ে ২৮

‘অনেকেই আমাকে কারিনা বলে ডাকে’

প্রকাশিতঃ ১:৩১ অপরাহ্ণ | জুন ০৯, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ১৭২ বার

সীমান্তবার্তা ডেস্কঃ ঢালিউডে সিনেমা মুক্তির মাধ্যমে অভিষিক্ত হওয়ার আগেই সিনেপাড়া, গণমাধ্যমে বেশ সুপরিচিত ও আলোচিত মুখ চিত্রনায়িকা অধরা খান। শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি অভিজাত ক্লাবে যুগল পরিচালক ইস্পাহানি আরিফ জাহানের ‘ডিমগার্ল’ সিনেমায় তিনি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। অনুষ্ঠান শেষে নিজের সিনেমা কেরিয়ারের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ঢাকা টাইমসের সঙ্গে এক আড্ডায় মেতে উঠেছিলেন ঢাকাই সিনেমার এই আবেদনময়ী নায়িকা।

প্রথমেই ‘ডিমগার্ল’ সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হওয়ার গল্পটা শুনতে চাই…
অধরা খান:
আমি শুনেছি ইস্পাহানি আরিফ জাহান স্যাররা ‘ডিমগার্ল’ নামে নতুন একটি সিনেমার প্রজেক্ট শুরু করছেন। আর আমি সেই সিনেমায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে আমি অভিনয় করছি। ব্যাস এরপরে আজ (শুক্রবার) সেই সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হলাম।

ঢালিউডে অনেক পরিচিত নতুন মুখ থাকলেও আপনাকে এই সিনেমায় নির্বাচনে নেপথ্যে কি কারণ থাকতে পারে বলে আপনার মনে হয়?
অধরা খান:
এই প্রশ্নের সবচেয়ে গোছানো ও সঠিক উত্তর দিতে পারবেন আমার এই সিনেমার (‘ডিমগার্ল’) নির্মাতাদ্বয়। তবে এখানে আমি একটু ছোট করে যোগ করে বলতে চাই, আমি ইস্পাহানি আরিফ জাহান স্যারদের সঙ্গে আমার কেরিয়ারের তৃতীয় সিনেমা ‘নায়ক’-এ কাজ করেছি। সেই সিনেমায় কাজ করতে গিয়ে আমার জায়গা থেকে যতটুকু পরিশ্রম ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করা প্রয়োজন ছিল আমি তার পুরোটাই আমার অভিনয়ের সময় দেওয়ার চেষ্টা করেছি। হয়ত আমাকে এই সিনেমায় নির্বাচনের জন্য এটাও একটা কারণ হতে পারে। তবে এটা আমার একান্ত ব্যক্তিগত মতামত।

সিনেপাড়ায় গুঞ্জন রটেছে, কিছু বিনোদন সাংবাদিকদের সঙ্গে আপনার বেশ ভালো বন্ধুত্বের ফলে আপনি সবসময় একটু বেশি নিউজ কাভারেজ পান। আদৌ কি তাই?
অধরা খান:
ভালো সর্ম্পকের কারণে কখনোই নিউজ হয় না। হ্যা এটা সত্যি আমি গণমাধ্যমের সকলের সহযোগিতা পাচ্ছি। আমার সঙ্গে গণমাধ্যমের গুড আন্ডারস্ট্যান্ডিং থাকতেই পারে কিন্তু আমি যদি কাজ না করি তাহলে আমার নিউজ কেউ করবেন না। আমি কাজ করতে গিয়ে যেটা লক্ষ্য করেছি, শুধু আমার ক্ষেত্রেই নয় বরং বর্তমানে নতুন যারাই সিনেমায় কাজ করতে এসেছে তাদের সবাইকে গণমাধ্যম সহযোগিতা করছে।

ঢাকাই সিনেমার দর্শকরা এই বছরে আপনার কোন সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে দেখতে পারবেন?
অধরা খান:
সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এই বছরেই আমার অভিনীত দুটো সিনেমা মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে। একটি নির্মাতা শাহিন সুমনের ও আরেকটি নির্মাতা ইস্পাহানি আরিফ জাহান স্যারদের, এর বেশি কিছু আমি জানি না।

আপনার অভিনীত সিনেমাগুলো মুক্তির পরে দর্শকদের হৃদয়ে অভিনয়ের মাধ্যমে ঠাঁই করে নেওয়ার ব্যাপারে আপনি কতটুকু আশাবাদী?
অধরা খান:
ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই আমি প্রতিটি সিনেমার কাজকে আমার বিশ্বাসের জায়গা থেকে ভালো করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করেছি। সিনেমাগুলো মুক্তি পাওয়ার পরে আমার অভিনীত সিনেমাগুলো যখন দর্শকরা দেখবেন তখন তারা এর সঠিক উত্তর দিতে পারবেন। আমি তাদের হৃদয়ে আমার অভিনয়ের মাধ্যমে ঠাঁই করে নিতে পারলাম কি না কিংবা তাদের আত্মতৃপ্তির জায়গা কতটুকু ছুঁয়ে যেতে পারলাম। তাই এই প্রশ্নের উত্তর এই মূর্হূতে আসলেই আমার পক্ষে সম্পূর্ণ সঠিকভাবে দেওয়া সম্ভব নয়। তবে একজন শিল্পীর কাছে তার প্রতিটি কাজ গুরুত্বপূর্ণ বলে আমার বিশ্বাস। তাই একজন শিল্পী হিসেবে আমার দিক থেকে ভালো কাজের ক্ষেত্রে চেষ্টার কোন ত্রুটি যেন না থাকে আমি সবসময় সেই চেষ্টা করেছি।

আপনার চেহারা বলিউডের দুইজন মডেল ও অভিনেত্রী সঙ্গে অনেকটাই মিলে। সেক্ষেত্রে আপনি তাদের কাজের দ্বারা কতটুকু প্রভাবিত?
অধরা খান:
আসলেই আমার চেহারা বলিউডের কারিনা কাপুর এবং উর্বশী রাওতেলার সঙ্গে অনেকটাই মিলে যায়। ছোটবেলায় আমার নানুরা আমাকে কারিনা কাপুর বলে ডাকতো। অনেকেই আমাকে কারিনা বলে ডাকে। তবে যখনই কেউ তাদের চেহারার সঙ্গে আমার চেহারার সাদৃশ্য খুঁজে পান তখন খুবই বিস্মিত হই। আর আমি কোনভাবেই তাদের দুইজনের কোন কাজ দ্বারা প্রভাবিত না।

ঢালিউডে নায়িকাদের আসা যাওয়ার তালিকায় আপনিও হারিয়ে যাবেন না তো?

অধরা খান: এটা আমার ভাগ্যের উপর নির্ভর করবে। আর বাকিটা নির্ভর করবে দর্শকরা আমাকে কিভাবে গ্রহণ করবেন। তবে আমার দিক থেকে ভালো কাজ করার ক্ষেত্রে চেষ্টার কখনোই কোন অংশে কমতি থাকবে না।

ঢালিউডের অনেক নায়িকা তো উপস্থাপনা করছেন। সেই ইচ্ছে কি আছে?
অধরা খান: আমি নিয়মিত চলচ্চিত্রেই কাজ করতে চাই। তবে কখনো উপস্থাপনা করবো কিনা তা সময়ের উপর নির্ভর করছে।

ঢালিউডে সিনেমা মুক্তির মাধ্যমে অভিষিক্ত হওয়ার আগেই সিনেপাড়া, গণমাধ্যমে বেশ সুপরিচিত ও আলোচিত মুখ চিত্রনায়িকা অধরা খান। শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি অভিজাত ক্লাবে যুগল পরিচালক ইস্পাহানি আরিফ জাহানের ‘ডিমগার্ল’ সিনেমায় তিনি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। অনুষ্ঠান শেষে নিজের সিনেমা কেরিয়ারের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ঢাকা টাইমসের সঙ্গে এক আড্ডায় মেতে উঠেছিলেন ঢাকাই সিনেমার এই আবেদনময়ী নায়িকা।

প্রথমেই ‘ডিমগার্ল’ সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হওয়ার গল্পটা শুনতে চাই…
অধরা খান:
আমি শুনেছি ইস্পাহানি আরিফ জাহান স্যাররা ‘ডিমগার্ল’ নামে নতুন একটি সিনেমার প্রজেক্ট শুরু করছেন। আর আমি সেই সিনেমায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে আমি অভিনয় করছি। ব্যাস এরপরে আজ (শুক্রবার) সেই সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হলাম।

ঢালিউডে অনেক পরিচিত নতুন মুখ থাকলেও আপনাকে এই সিনেমায় নির্বাচনে নেপথ্যে কি কারণ থাকতে পারে বলে আপনার মনে হয়?
অধরা খান:
এই প্রশ্নের সবচেয়ে গোছানো ও সঠিক উত্তর দিতে পারবেন আমার এই সিনেমার (‘ডিমগার্ল’) নির্মাতাদ্বয়। তবে এখানে আমি একটু ছোট করে যোগ করে বলতে চাই, আমি ইস্পাহানি আরিফ জাহান স্যারদের সঙ্গে আমার কেরিয়ারের তৃতীয় সিনেমা ‘নায়ক’-এ কাজ করেছি। সেই সিনেমায় কাজ করতে গিয়ে আমার জায়গা থেকে যতটুকু পরিশ্রম ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করা প্রয়োজন ছিল আমি তার পুরোটাই আমার অভিনয়ের সময় দেওয়ার চেষ্টা করেছি। হয়ত আমাকে এই সিনেমায় নির্বাচনের জন্য এটাও একটা কারণ হতে পারে। তবে এটা আমার একান্ত ব্যক্তিগত মতামত।

সিনেপাড়ায় গুঞ্জন রটেছে, কিছু বিনোদন সাংবাদিকদের সঙ্গে আপনার বেশ ভালো বন্ধুত্বের ফলে আপনি সবসময় একটু বেশি নিউজ কাভারেজ পান। আদৌ কি তাই?
অধরা খান:
ভালো সর্ম্পকের কারণে কখনোই নিউজ হয় না। হ্যা এটা সত্যি আমি গণমাধ্যমের সকলের সহযোগিতা পাচ্ছি। আমার সঙ্গে গণমাধ্যমের গুড আন্ডারস্ট্যান্ডিং থাকতেই পারে কিন্তু আমি যদি কাজ না করি তাহলে আমার নিউজ কেউ করবেন না। আমি কাজ করতে গিয়ে যেটা লক্ষ্য করেছি, শুধু আমার ক্ষেত্রেই নয় বরং বর্তমানে নতুন যারাই সিনেমায় কাজ করতে এসেছে তাদের সবাইকে গণমাধ্যম সহযোগিতা করছে।

ঢাকাই সিনেমার দর্শকরা এই বছরে আপনার কোন সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে দেখতে পারবেন?
অধরা খান:
সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এই বছরেই আমার অভিনীত দুটো সিনেমা মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে। একটি নির্মাতা শাহিন সুমনের ও আরেকটি নির্মাতা ইস্পাহানি আরিফ জাহান স্যারদের, এর বেশি কিছু আমি জানি না।

আপনার অভিনীত সিনেমাগুলো মুক্তির পরে দর্শকদের হৃদয়ে অভিনয়ের মাধ্যমে ঠাঁই করে নেওয়ার ব্যাপারে আপনি কতটুকু আশাবাদী?
অধরা খান:
ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই আমি প্রতিটি সিনেমার কাজকে আমার বিশ্বাসের জায়গা থেকে ভালো করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করেছি। সিনেমাগুলো মুক্তি পাওয়ার পরে আমার অভিনীত সিনেমাগুলো যখন দর্শকরা দেখবেন তখন তারা এর সঠিক উত্তর দিতে পারবেন। আমি তাদের হৃদয়ে আমার অভিনয়ের মাধ্যমে ঠাঁই করে নিতে পারলাম কি না কিংবা তাদের আত্মতৃপ্তির জায়গা কতটুকু ছুঁয়ে যেতে পারলাম। তাই এই প্রশ্নের উত্তর এই মূর্হূতে আসলেই আমার পক্ষে সম্পূর্ণ সঠিকভাবে দেওয়া সম্ভব নয়। তবে একজন শিল্পীর কাছে তার প্রতিটি কাজ গুরুত্বপূর্ণ বলে আমার বিশ্বাস। তাই একজন শিল্পী হিসেবে আমার দিক থেকে ভালো কাজের ক্ষেত্রে চেষ্টার কোন ত্রুটি যেন না থাকে আমি সবসময় সেই চেষ্টা করেছি।

আপনার চেহারা বলিউডের দুইজন মডেল ও অভিনেত্রী সঙ্গে অনেকটাই মিলে। সেক্ষেত্রে আপনি তাদের কাজের দ্বারা কতটুকু প্রভাবিত?
অধরা খান:
আসলেই আমার চেহারা বলিউডের কারিনা কাপুর এবং উর্বশী রাওতেলার সঙ্গে অনেকটাই মিলে যায়। ছোটবেলায় আমার নানুরা আমাকে কারিনা কাপুর বলে ডাকতো। অনেকেই আমাকে কারিনা বলে ডাকে। তবে যখনই কেউ তাদের চেহারার সঙ্গে আমার চেহারার সাদৃশ্য খুঁজে পান তখন খুবই বিস্মিত হই। আর আমি কোনভাবেই তাদের দুইজনের কোন কাজ দ্বারা প্রভাবিত না।

ঢালিউডে নায়িকাদের আসা যাওয়ার তালিকায় আপনিও হারিয়ে যাবেন না তো?

অধরা খান: এটা আমার ভাগ্যের উপর নির্ভর করবে। আর বাকিটা নির্ভর করবে দর্শকরা আমাকে কিভাবে গ্রহণ করবেন। তবে আমার দিক থেকে ভালো কাজ করার ক্ষেত্রে চেষ্টার কখনোই কোন অংশে কমতি থাকবে না।

ঢালিউডের অনেক নায়িকা তো উপস্থাপনা করছেন। সেই ইচ্ছে কি আছে?
অধরা খান: আমি নিয়মিত চলচ্চিত্রেই কাজ করতে চাই। তবে কখনো উপস্থাপনা করবো কিনা তা সময়ের উপর নির্ভর করছে।

Shares