আজ শনিবার , ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

হালুয়াঘাটে আরব আলী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৬ শত মানুষ পেল ঈদ উপহার হালুয়াঘাটে রাস্তার দাবিতে মানববন্ধন মর্ডান স্পোটিং ক্লাবের দোয়া ও ইফতার জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা কায়েসের ঈদ উপহার সচেতনতা মুলক স্টিকার ও মাস্ক বিতরণ করলো জনপ্রিয় সেচ্ছাসেবী সংঘঠন ত্রিশাল হেল্পলাইন আজ শফিকুল ইসলাম ভাইয়ের মৃত্যুবার্ষিকী খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় ত্রিশাল ছাত্রদলের পক্ষ থেকে ইফতার বিতরণ হালুয়াঘাটে কৃষকের ধান কাটলেন এমপি হালুয়াঘাটে কর্মহীন মানুষের মাঝে রুবেলে’র খাদ্য সামগ্রী বিতরণ! করোনাঃ মৃত্যুর মিছিলে ১৫৪ চিকিৎসক বাউফলে ডায়রিয়া আক্রান্তদের মাঝে বিনামূল্যে স্যালাইন বিতরণ বাউফলে টাকা চুরি’র ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক যুবককে কুপিয়ে জখম মৃত্যুপুরী ভারত শ্মশানে জায়গা না থাকায় গণচিতা ভারতে লুকানো হচ্ছে কোভিডে মৃতের সংখ্যা কমতে শুরু করেছে মৃত্যু ও শনাক্ত সংখ্যা

রোহিঙ্গা নির্যাতনের গোপন ভিডিও প্রকাশ (ভিডিও)

প্রকাশিতঃ ১০:২৮ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ২১৩ বার

অনলাইন ডেস্কঃ রাখাইন রাজ্যের উত্তরাঞ্চলের রোহিঙ্গাদের উপর চালানো জাতিগত নিধনযজ্ঞের পেছনে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর ইন্ধন রয়েছে বলে দাবি করেছে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা ফোর্টিফাই রাইটস। এ দাবির পেছনে প্রমাণ হিসেবে সংস্থাটি বৃহ¯পতিবার একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে। সংস্থাটি জানিয়েছে, ২০১৭ সালে রোহিঙ্গা নিধনের পূর্বে এ ভিডিওটি ধারণ করা হয়েছিল। সেখানে দেখা যায়, মিয়ানমার সেনাবাহিনীর একজন সদস্য রাখাইনের স্থানীয় বাসিন্দাদের বুঝিয়ে দিচ্ছে কেন ও কীভাবে এ অঞ্চল থেকে রোহিঙ্গাদের উচ্ছেদ করা হবে। এ থেকে স্পষ্ট হয় যে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরেই অভিযান পরিচালনার পরিকল্পনা করে আসছিল দেশটির সেনাবাহিনী। প্রকাশিত মূল ভিডিওটির দৈর্ঘ্য ৮ মিনিটেরও অধিক। সেখানে একজন সেনাসদস্যকে স্থানীয়দের রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে উস্কে দিতে দেখা যায়। ওই সদস্য বলতে থাকে, রোহিঙ্গারা আস্তে আস্তে রাখাইন এবং পর্যায়ক্রমে সমগ্র মিয়ানমার দখল করে নেবে।
তাদের উচ্চ জন্মহারকে দেশের জন্য হুমকি বলেন তিনি।

এ ভিডিও ফুটেজে থাকা প্রমাণের ভিত্তিতে ফোর্টিফাই রাইটসের প্রধান কার্যনির্বাহী কর্মকর্তা ম্যাথিউ স্মিথ বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অবশ্যই দ্রুততার সঙ্গে এর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। যেভাবেই হোক রোহিঙ্গা নির্যাতনের প্রমাণ সংগ্রহ করে অপরাধীদের বিচারের মুখোমুখি করতে হবে। তিনি আরো বলেন, রোহিঙ্গা নির্যাতনের বিচার নিশ্চিতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের অনর্থক নিষ্ক্রিয়তার কোনো কারণ নেই। মিয়ানমারের বর্তমান অবস্থা যত দ্রুত সম্ভব আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে উত্থাপন করা প্রয়োজন। https://www.youtube.com/watch?v=pebrk29ZJW8

Shares