আজ শনিবার , ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

হালুয়াঘাটে আরব আলী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৬ শত মানুষ পেল ঈদ উপহার হালুয়াঘাটে রাস্তার দাবিতে মানববন্ধন মর্ডান স্পোটিং ক্লাবের দোয়া ও ইফতার জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা কায়েসের ঈদ উপহার সচেতনতা মুলক স্টিকার ও মাস্ক বিতরণ করলো জনপ্রিয় সেচ্ছাসেবী সংঘঠন ত্রিশাল হেল্পলাইন আজ শফিকুল ইসলাম ভাইয়ের মৃত্যুবার্ষিকী খালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় ত্রিশাল ছাত্রদলের পক্ষ থেকে ইফতার বিতরণ হালুয়াঘাটে কৃষকের ধান কাটলেন এমপি হালুয়াঘাটে কর্মহীন মানুষের মাঝে রুবেলে’র খাদ্য সামগ্রী বিতরণ! করোনাঃ মৃত্যুর মিছিলে ১৫৪ চিকিৎসক বাউফলে ডায়রিয়া আক্রান্তদের মাঝে বিনামূল্যে স্যালাইন বিতরণ বাউফলে টাকা চুরি’র ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক যুবককে কুপিয়ে জখম মৃত্যুপুরী ভারত শ্মশানে জায়গা না থাকায় গণচিতা ভারতে লুকানো হচ্ছে কোভিডে মৃতের সংখ্যা কমতে শুরু করেছে মৃত্যু ও শনাক্ত সংখ্যা

স্কুলছাত্রীর মরদেহ পাশে রক্তাক্ত যুবক

প্রকাশিতঃ ৫:৫১ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ০৯, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩৩৩ বার

অনলাইন ডেস্কঃ স্কুলছাত্রীটি মৃত। রক্তে লাল তার স্কুল ড্রেসটিও। আর তাকে জড়িয়ে নিথর অবস্থায় পড়ে আছে রক্তাক্ত এক যুবক। শনিবার বেলা পৌনে ৩টার দিকে চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার দক্ষিণ ভূর্ষি ইউনিয়নের বেলতল রেললাইনের পাশে এমন দৃশ্য দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। খবর পেয়ে বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে তাদের উদ্ধার করতে যায় পটিয়া থানা পুলিশ।

নিথর দেহ দেখে প্রথমে মনে হয়েছিল দু’জনেই মৃত। পটিয়া থানার এসআই আলমগীর হোসেন বলেন, যুবকটির দেহ নড়াচড়ার সময় গোঙানির শব্দ কানে আসে। ফলে তাকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
তবে সে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ছিল। তার পেটে ছুরির আঘাত শনাক্ত করা হয়েছে। তবে স্কুলছাত্রীর পেটে একাধিক ছুরিকাঘাত রয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বিষয়টি প্রেমঘটিত।

তিনি বলেন, মনে হচ্ছে যুবকটি প্রেমে প্রত্যাখ্যান হয়ে স্কুলছাত্রীকে ছুরিকাঘাতে খুন করেছে। আর নিজেও ছুরিকাঘাতে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে।

খুন হওয়া স্কুলছাত্রী পটিয়া উপজেলার হাইদগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তার নাম রিমা আক্তার। উপজেলার দক্ষিণ ভূর্ষি এলাকার বাসিন্দা। আর আহত যুবকের পরিচয় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। তবে স্কুলছাত্রী রিমা আক্তারের পরিবারে খবর দেয়া হয়েছে। তারা হলে রহস্যের জট খুলতে পারে বলে জানান এসআই আলমগীর হোসেন।

পটিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মোহাম্মদ নেয়ামত উল্লাহ বলেন, বেলতল রেললাইনের পাশে নিহত স্কুলছাত্রীকে জড়িয়ে আহত যুবককে পড়ে থাকতে দেখে উৎসুক জনতা ভিড় জমায়। পরে পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করে। প্রথমে মনে করা হয়েছিল দু’জনই মারা গেছে। পরে অস্ফুট গোঙানির শব্দ পেয়ে যুবকটির বেঁচে থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। পুলিশ আহত যুবককে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছে।

Shares