আজ সোমবার , ২১শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

জনগনের সেবক হতে চাই- অধ্যক্ষ পিকু জনগনের সেবক হতে চাই- অধ্যক্ষ পিকু হালুয়াঘাটে আশার আলো’র নির্বাচন! কাঞ্চন সভাপতি, আলী হোসেন সম্পাদক ব্যক্তিগত কারণে আত্মগোপনে ছিলেন ত্ব-হা: ডিবি হালুয়াঘাটে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান উপলক্ষে প্রেস ব্রিফিং হালুয়াঘাটে বাসের চাপায় পিষ্ট হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত একদিনে আরও ৬০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৯৫৬ ময়মনসিংহে নিখোঁজ শিক্ষার্থীর লাশ পাওয়া গেল টয়লেটের ট্যাংকে বাউফলে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে বন্ধ ময়মনসিংহের ত্রিশালে সাংবাদিক এনামুল ফাউন্ডেশনের ইফতার ও দোয়া মাহফিল মা দিবসের শুভেচ্ছা ময়মনসিংহের এিশালে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও দীর্ঘায়ু কামনায় ইফতার হালুয়াঘাটে আরব আলী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৬ শত মানুষ পেল ঈদ উপহার হালুয়াঘাটে রাস্তার দাবিতে মানববন্ধন মর্ডান স্পোটিং ক্লাবের দোয়া ও ইফতার

‘কেউ একাধিক বিয়ে করলে বিসিবির কিছু করার নেই’

প্রকাশিতঃ ৮:৪৪ অপরাহ্ণ | আগস্ট ৩০, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩২০ বার

স্পোর্টস ডেস্ক: ক্রিকেটারদের মধ্যে কেউ যদি একাধিক বিয়ে করে বা কাউকে ডিভোর্স দেয়, সেক্ষেত্রে বিসিবির কিছু করার নেই বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

বৃহস্পতিবার (৩০ আগস্ট) বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন পাপন।

সম্প্রতি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ উঠাছে। মূলত সাব্বির রহমানকে স্কোয়াড থেকে বাদ দেয়ার কারণ হিসেবে তার ব্যক্তিগত জীবনের বিভিন্ন ঘটনাকে দায়ী করেছেন বিসিবি সভাপতি।

আগামী শনিবার (১ সেপ্টেম্বর) শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগের ভিত্তিতে তিনজন ক্রিকেটারকে শুনানিতে ডাকা হয়েছে। তাদের মধ্যে আছেন সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও নাসির হোসেন।

পাপন বলেন, ‘ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত অনেক সমস্যা আছে সেখানে বিসিবির পক্ষে ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব হয় না। কেউ যদি কাউকে ডিভোর্স দেয় বা কেউ যদি একাধিক বিয়ে করে সেখানেও আমাদের কিছু করার নেই।’

তিনি বলেন, ‘এটা আমরা বলতে পারি না যে ক্রিকেট যারা খেলে তারা একাধিক বিয়ে করতে পারে না। তবে ক্রিকেটাররা যেহেতু আইডল বাংলাদেশের অনেকের কাছে, অনেকে সমর্থন করেন, অনেকে অনুসরণ করেন তাই বিসিবি চেষ্টা করে ক্রিকেটারদের ভাল মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে।’

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কোনও ক্রিকেটারের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ যে শাস্তি সেটা নির্ধারণ করেছে সেটা হলো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলতে না ডাকা।

নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড মূলত রুবেল হোসেনের ক্ষেত্রে সাহায্য করেছিল। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে তাকে দরকার ছিল।’

বিদেশে ভ্রমণের সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ক্রিকেটারদের আচরণেও লাগাম টানা হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

ক্রিকেটারদের মানসিক অবস্থার উন্নতির জন্য একজন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ নিয়োগ দেয়ার কথা আজ বিসিবির অনানুষ্ঠানিক সভায় আলোচনা করেছেন কর্মকর্তারা।

Shares