আজ শুক্রবার , ৫ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

শিরোনাম

হালুয়াঘাটের মামুন বাফুফে’র ক্যাপ্টেন নির্বাচিত হওয়ায় সংবর্ধনা ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে পৃথক স্থানে ট্রেনে কাটা পড়ে ২জন নিহত এমপি’র পক্ষে হালুয়াঘাট ধান্য ব্যবসায়ী সমিতির কম্বল বিতরণ ধোবাউড়ায় ট্রাক-হোন্ডা সংঘর্ষে নিহত-২, চালক ও হেলপার আটক বাউফলে ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি হালুয়াঘাটে ঝরে পড়া শিশুরা পাবে শিক্ষার সুযোগ। আসছে শিক্ষক নিয়োগও হালুয়াঘাটে স্বামীর আত্নহত্যা দেখে স্ত্রীও বিষ খায়! দুজনেরই মৃত্যু হালুয়াঘাটে স্বামী-স্ত্রীর আত্নহত্যা রাহেলা হযরত মডেল স্কুলে প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত ত্রিশাল অনলাইন প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে ভাষা শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধাঞ্জলি ভাষা শহীদদের প্রতি কংশ টিভির পরিবার ও গণমাধ্যম কর্মীদের শ্রদ্ধাঞ্জলী ফুটবল ফাইনাল টুর্নামেন্টে বিজয়ী মধুপুর একাদশ স্পোটিং ক্লাব ২৮ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়লো ময়মনসিংহ জেলার শ্রেষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার ত্রিশালের মোস্তাফিজুর রহমান হালুয়াঘাটে পিকনিকের বাস উল্টে আহত-৮

গণধর্ষণের শিকার কিশোরীর আকুতি

প্রকাশিতঃ ৭:০২ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২৯, ২০১৮ । এই নিউজটি পড়া হয়েছেঃ ৩৪৫ বার

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: সতের বছর বয়সি কিশোরীকে দিনের পর দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়েছে। জোর করে তাঁর শরীরে আঁকা হয়েছে ট্যাটু৷ বন্দিদশা থেকে ছাড়া পেয়ে ধর্ষকদের বিচার চেয়েছেন সেই কিশোরী৷ তাঁর সেই দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ৷

চব্বিশ হাজারের বেশি মানুষ মরক্কোর রাজা মোহাম্মেদ ফো’র বরাবর করা একটি অনলাইন পিটিশনে ইতোমধ্যে স্বাক্ষর করেছেন৷ তাঁরা সবাই দু’ মাস আটকে রেখে ধর্ষণ এবং নির্যাতন করা কিশোরিটি যাতে ন্যায় বিচার পান, সেই দাবি জানিয়েছেন৷

‘‘আটকাবস্থায় তাঁর উপর যতরকমের নির্যাতন সম্ভব, সবই করা হয়েছে৷ ১৫ ব্যক্তি তাঁকে ক্রমাগত ধর্ষণ করেছে, পিটিয়েছে, এমনকি তাঁকে ঠিকমতো খাবারও দেয়া হয়নি৷ তাঁর ন্যূতম স্যানিটারি চাহিদাও পূরণ করা হয়নি৷ আটককারীরা তাঁর শরীরে জোরে করে ট্যাটুও এঁকে দিয়েছে,” জানিয়েছেন অনলাইন পিটিশনের আয়োজকরা৷

সতের বছর বয়সি কিশোরী স্থানীয় এক টেলিভিশন চ্যানেলকে জানিয়েছেন, একদল গুন্ডা জুনমাসে তাঁকে অপহরণের পর দুইমাস উলাদ ইয়াদ নামের ছোট্ট এক শহরে বন্দি করে রাখে৷

বন্দি থাকাকালে কিছু মানুষ অপহরণকারীদের অর্থ দিয়ে তাঁকে ধর্ষণ করতো বলেও জানিয়েছেন ওই তরুণী৷ তিনি বলেন, ‘‘তারা আমাকে খাবার বা পানি দিতো না, এমনকি আমাকে গোসলও করতে দেয়নি৷ আমি তাদের বিচার চাই৷ তারা আমার সঙ্গে যা করছে, তার মূল্য তাদের দিতে হবে৷”

কিশোরীর বাবা মোহাম্মেদ ডয়চে ভেলের আরবি ভাষাকে জানিয়েছেন, তার মেয়েকে সহায়তা করতে সরকারি কর্মকর্তা, অ্যাক্টিভিস্ট এবং সাংবাদিকরা বাড়িতে গেছেন৷ তিনি বলেন, ‘‘আমার মেয়ের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণে এবং তাকে মানসিক সহায়তা দিতে একটি মেডিকেল কমিটি গঠন করা হয়েছে৷”

এদিকে, মরক্কোর মানবাধিকার সংগঠনের নাঈমা ওউয়ালি বার্তাসংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, আলোচিত কিশোরীকে অপহরণ এবং ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে অন্তত ১২ ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে৷ আরো কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হতে পারে বলেও জানিয়েছেন তিনি৷

উল্লেখ্য, মরক্কোয় সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েকটি যৌন সহিংসতার ঘটনা আলোচনায় আসার পর এ সংক্রান্ত আইন এবং শাস্তি আরো কঠোর করার আহ্বান জানিয়েছেন অ্যাক্টিভিস্টরা৷ দেশটির ৫০ শতাংশের বেশি নারী নানাভাবে সহিংসতার শিকার বলেও সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে জানা গেছে৷

সূত্র-ডি ডাব্লিউ।

Shares